কবিতা

রূপের বাঁকাবন্দনা

ড. নেয়ামত উল্যা ভূঁইয়া
 | প্রকাশিত : ২৮ অক্টোবর ২০২০, ১০:১৯

রূপই যদি সব তবে গুণের কী দাম?

রঙের আল্পনা এঁকে, দেয়ালে দেয়ালে লিখে

দমে দমে জপো তবে রূপসির নাম।।

রূপের পানিতে ধোও গুণের অঙ্গার,

সেই অঙ্গারে পাবে রূপের বাহার।

রূপের আগুনে পোড়াও গুণধর সোনা,

পতঙ্গ সেজে তাতে পোড়ো নিজ ডানা।

রূপেরই তো জয়-জয় জগতে সুনাম-

দমে দমে জপো তাই রূপসির নাম।।

বিধাতা গড়েছে রূপ নিজ হাতে যত্নে,

মানুষ দিয়েছে শোভা সেই রূপ-রত্নে।

গুণ শুধু মানুষের শ্রমে গড়া সুফসল,

রূপ রসাতলে গেলে গুণে দেয়না তো ফল।

রূপ ছাড়া গুণনিধি দেখে তার বিধি বাম-

দমে দমে জপো তবে রূপসির নাম।।

দেশে দেশে কালে কালে রূপের আগুন,

গুণে-গড়া ঘর পোড়ে গুণের দ্বিগুণ।

রূপের ধূপেতে জ্বলে গুণের আকর,

অন্তরে থাকেনা তো গুণের শেকর।

রূপের আগুনে জ্বলে গুণের শ্মশান-

দমে দমে জপো সবে রূপসির নাম।।

রূপ বাঁধে অরূপের অন্তরে বাসা,

অপরূপ হয়ে রূপ হয় ভালোবাসা।

কলিকালে অলি জোটে ছলাকলাতে,

গুণ নয়, রূপই পারে মন গলাতে।

রূপের প্রতিমা পায় ভক্তি প্রণাম -

দমে দমে জপো তবে রূপসির নাম।।

গুণের গোলায় বসে ঘৃণার ইঁদুর,

রূপের ধারাল দাঁতে গুণ করে চুর।

রূপের কোকিলা ঘোরে অফিস পাড়ায়,

রূপের নহরে নথির গতিকে বাড়ায়।

গুণীরা সোহাগে মোছে রূপসির ঘাম-

দমে দমে জপো তবে রূপসির নাম।।

সংবাদটি শেয়ার করুন

সাহিত্য বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :