প্রয়োজনে জমি অধিগ্রহণ করে খেলার মাঠ তৈরি হবে: তাপস

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৫ মার্চ ২০২১, ১৯:০৭

শরীরচর্চা ও সুস্থ বিনোদনের লক্ষ্যে প্রয়োজনে জমি অধিগ্রহণ করে প্রতিটি ওয়ার্ডে খেলার মাঠ তৈরি করা হবে বলে জানিয়েছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস।

শুক্রবার বিকালে ডেমরাস্থ ৬৮ নম্বর ওয়ার্ডের করিম জুট মিলস মাঠে আন্তঃওয়ার্ড ক্রীড়া প্রতিযোগিতা-২০২১ এর তৃতীয় পর্বের ফুটবল খেলা পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে মেয়র এ কথা বলেন।

শেখ তাপস বলেন, ‘আমরা চাই আমাদের ছেলেরা যেন মাঠে ফিরে আসে, খেলাধুলা করে। কিন্তু আমরা দেখেছি যে, প্রতিটি ওয়ার্ডে পর্যাপ্ত খেলাধুলার জায়গা নেই। আন্তঃওয়ার্ড ক্রীড়া প্রতিযোগিতার সঙ্গে সঙ্গে আমরা প্রতিটি ওয়ার্ডে খেলাধুলার জায়গা সৃষ্টিতে উদ্যোগ গ্রহণ করেছি।‘

এরইমাঝে কয়েকটি ওয়ার্ডে কিছু জায়গা উদ্ধার করা হয়েছে জানিয়ে মেয়র বলেন, ‘সেগুলোক খেলার উপযোগী করার জন্য ইতোমধ্যে আমরা কার্যক্রম গ্রহণ করেছি। ৪২ নম্বর, ২৬ নম্বর, ১৩ নম্বর ওয়ার্ডে আমরা উদ্ধার করা সেই জায়গাগুলোতে খেলার মাঠ করে দিচ্ছি। এটা দুরূহ কিন্তু একটু কষ্ট হলেও আমরা আশাবাদী যে, পর্যায়ক্রমে আমরা সফলতা পাবো। প্রয়োজন হলে জমি অধিগ্রহণ করে হলেও আমাদের সন্তানদের জন্য আমরা খেলার মাঠ করে দেবো।‘

তাপস আরও বলেন, ‘মুজিববর্ষ উপলক্ষে আমরা আন্তঃওয়ার্ড ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ২০২১ আয়োজন করেছি। এর মাধ্যমে ঢাকাব্যাপী ব্যাপক আলোড়ন সৃষ্টি হয়েছে। ছেলেদের মাঝে ব্যাপক আনন্দ উল্লাস সৃষ্টি হয়েছে।‘

গত ১০ জানুয়ারি থেকে ডিএসসিসির ৭৫টি ওয়ার্ডের মধ্যে চলছে আন্তঃওয়ার্ড ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ২০২১। এ আয়োজনে ক্রিকেট ও ফুটবল খেলায় নিজ নিজ ওয়ার্ডের পক্ষে স্থানীয় যুবকরা অংশ নিয়েছেন। যা ডিএসসিসিতে সৃষ্টি করেছে উৎসবের আমেজ। রাজধানীর ইতিহাসে প্রথম এ এত বড় আয়োজন করেছে মেয়র তাপসের নেতৃত্বাধীন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন।

উল্লেখ্য, ১৮৬৪ সালের পহেলা আগস্ট ঢাকা সিটি করপোরেশন (ডিসিসি) প্রতিষ্ঠিত হয়। ২০১১ খ্রিষ্টাব্দের ২৯ নভেম্বর তারিখে জাতীয় সংসদে স্থানীয় সরকার (সিটি করপোরেশন) (সংশোধনী) বিল, ২০১১ পাসের মাধ্যমে ঢাকা শহর দ্বিখণ্ডিত হয়। যার একাংশ ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি)। এ অংশে ওয়ার্ড সংখ্যা ৭৫টি। ২০২০ সালের পহেলা জুল ডিএসসিসি’র হালনাগাদ তথ্য অনুযায়ী, ৭৫টি ওয়ার্ড মিলে করপোরেশন এলাকায় মাঠের সংখ্যা মাত্র ১২ টি। আর পার্ক রয়েছে ২৮টি। যার করপোরেশন এলাকার প্রায় এক কোটি ২০ লাখ মানুষের জন্য অপ্রতুল।

ঢাকাটাইমস/০৫মার্চ/কারই/ইএস

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজধানী বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :