কবিতা

সত্যবাবু মারা গেছেন

ড. নেয়ামত উল্যা ভূঁইয়া
 | প্রকাশিত : ১৯ এপ্রিল ২০২১, ১৫:০০

বিনামেঘে বজ্রপাতে সত্যবাবু যেদিন গেলেন মারা,

শোকের ছায়া আসলো নেমে,

অশ্রুধারায় ভাসলো ঋষিপাড়া।

শিষ্যরা সব বুক ফাটিয়ে জুড়লো মাতম,

হায়রে আমরা কী অভাগা,কী-যে অধম!

সত্যি আমরা হতচ্ছাড়া, বেজায় কপালপোড়া,

নইলে কি আর এই নিদানে হতেম গুরুহারা!

এখন কে আর এগিয়ে নেবে সত্যগুরুর সত্যরীতির ধারা?

কেউবা বলে ভাবনা কিসের; আছে গুরুর যোগ্য সন্তানেরা।

শিষ্যরা সব মনে মনে এতেই কিছু স্বস্তি পেলো,

দেখলো আশার চিলতে দ্যোতি,

একটু খানিক দিব্য আলো।

সন্তানেরা যেই পেয়েছে মৃত পিতা-ঋষির আসন,

যুগের হাওয়ায় পাল্টে দিলো আদি রীতির সত্যসাধন।

সত্য যদি গায় না তোলে কলি কালের নামাবলি,

কলির পায়েই দিতে হবে সত্যাসত্য জলাঞ্জলি।

হালের হাওয়ার মেজাজ বুঝে

বেদ-পুরাণের পাঁজি খুঁজে,

এমন আজব মর্মবাণি করলো আবিষ্কার,

শাস্ত্র-রীতি চিতায় পুড়ে

চিরন্তনের সত্যশিরে-

চড়িয়ে দিলো আমূল সংস্কার।

ইহলোকে বাঁচো বাবা,পরকালতো পরে,

সত্য এখন চলবে তেমন, হাওয়া যেমন ঘোরে।

শিষ্যরা সব ঠেকিয়ে মাথা, ষষ্ঠ অঙ্গে জানায় নমস্কার,

সব গুরুদের কন্ঠে পরায় ভক্তিভরে জপমালার হার।

আনা-সত্যে, কানা-সত্যে; সত্য এখন হালের রূপান্তরে,

ভাব গতিকে যাচ্ছে বোঝা; সত্যবাবু বেঁচেই গেলেন মরে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

সাহিত্য বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :