জামালপুরে আত্মীয়কে পেটানোর কারণ জানতে চেয়ে খুন হন সোহান: সিআইডি

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৮ মে ২০২২, ২২:৩৭

আত্মীয়কে মারধোরের কারণ জানতে চাওয়ায় জামালপুরে খুন হন নিহত সোহান মিয়া। পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি) এ তথ্য জানিয়েছে। গত ১৫ মে জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জ থানার পৌরসভার গাবতলী এলাকায় এক যুবকের ছুরিকাঘাতে খুন হন সোহান মিয়া।

বুধবার সিআইডির সদর দপ্তরে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এই হত্যার উদঘাটন বিষয়ে বিস্তারিত জানান সিআইডির বিশেষ পুলিশ সুপার মুক্তাধর।

নিহত মো. সোহান মিয়া জামালপুর জেলার দেওয়ানগঞ্জ থানার চর ভবসুর পূর্বপাড়া গ্রামের সামিউল হকের ছেলে। তিনি ময়মনসিংহ শহরে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালকের কার্যালয়ে মেকানিকাল পদে কর্মরত ছিলেন।

গ্রেপ্তার আসামির বরাত দিয়ে সংবাদ সম্মেলনে মুক্তাধর বলেন, কিছুদিন আগে গাবতলী বাজার থেকে দেওয়ানগঞ্জ বাজারে যাওয়া নিয়ে ফকির আলী নামে এক অটো চালকের সঙ্গে ইল্লাল সরদারের তর্ক-বিতর্ক হয়। পরে ইল্লাল তাকে তাকে বেধড়ক মারধর করে। মো. সোহান মিয়া ওই অটো চালকের আত্মীয়। সরকারি ছুটিতে তিনি বাড়িতে যান।

ঘটনার দিন বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে সোহান গাবতলী বাজার এলাকায় অটো চালক ফকির আলী ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের নিয়ে সমস্যার সমাধানের জন্য তার কাছে এসে ঘটনার বিষয়ে জানতে চান। ইল্লাল সরদার ওই বিষয়ে মুখ না খুললে তারা ঘটনাটি বলার জন্য বারবার অনুরোধ করেন। একপর্যায়ে ইল্লাল সরদার রাগান্বিত হয়ে সোহান মিয়াকে এলোপাতাড়ি কিল-ঘুষি মারতে থাকেন।

ইল্লাল সরদারের সঙ্গে থাকা ধারালো চাকু দিয়ে সোহানের বুকের মধ্যে আঘাত করে। এতে সোহান গুরুতর আহত হয়। পরে তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় দেওয়ানগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনার পরে ইল্লাল সরদার পালিয়ে যায়।

সংবাদ সম্মেলনে সিআইডির বিশেষ পুলিশ সুপার বলেন, নিহত সোহান মিয়ার বাবা সামিউল হক বাদি হয়ে দেওয়ানগঞ্জ থানায় একটি মামলা করেন। এতে মো. ইল্লাল সরদারকে প্রধান আসামি করা হয়। প্রকাশ্য দিবালোকে এক যুবককে এমন নির্মমভাবে ছুরিকাঘাতে হত্যার ঘটনাটি দেশজুড়ে বেশ চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করে।

পরে সিআইডির বিশেষ পুলিশ সুপার মুক্তা ধরের সার্বিক তত্ত্বাবধানে ও নির্দেশনায় সিআইডির এলআইসি শাখা ছায়া তদন্ত শুরু করে। পরবর্তীতে বিভিন্ন তথ্য উপাত্ত বিশ্লেষণ করে ঘটনার সঙ্গে মো. ইল্লাল সরদারের জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়া যায়। সিআইডির এলআইসির একটি চৌকস দল মঙ্গলবার দিবাগত রাতে খিলগাঁও থানার ত্রিমোহনী এলাকা থেকে ইল্লাল সরদারকে গ্রেপ্তার করে।

গ্রেপ্তারকৃত মো. ইল্লাল সরদার জামালপুর জেলার দেওয়ানগঞ্জ থানার চর ভবশুর পূর্বপাড়া গ্রামের মৃত মছকেদ সরদারের ছেলে। তার বিরুদ্ধে খুন, চুরি, নারী নির্যাতন, মাদকদ্রব্য ও অন্যান্য ধারার আইনে মোট নয়টি মামলা রয়েছে। তারমধ্যে একটি মামলা তদন্তাধীন ও অবশিষ্ট আটটি মামলা বর্তমানে আদালতে বিচারাধীন রয়েছে।

(ঢাকাটাইমস/১৮মে/এএ/কেএম)

সংবাদটি শেয়ার করুন

অপরাধ ও দুর্নীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

অপরাধ ও দুর্নীতি এর সর্বশেষ

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :