মির্জাপুরে ছেলে ও বউয়ের ওপর অভিমানে নারীর আত্মহত্যা

মির্জাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৯ মে ২০২২, ১২:০৯

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে ছেলে ও বউয়ের ওপর অভিমান করে মিনু রানী সরকার (৫৫) নামে এক নারী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার ভাওড়া ইউনিয়নের পাহাড়পুর দক্ষিণপাড়া গ্রামের বাড়ি থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

নিহত মিনু রানী সরকার উপজেলার ভাওড়া ইউনিয়নের পাহাড়পুর দক্ষিণপাড়া গ্রামের মৃত মহর সরকারের স্ত্রী।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, মিনুর ছেলে রাজীব সরকার ও তার স্ত্রী অর্চনা সরকারের সঙ্গে প্রতিনিয়ত পারিবারিক ঝগড়া হতো। বুধবার পুত্রবধু অর্চনা সরকার ও তার কন্যা কল্যানী সরকারের সঙ্গে মিনু সরকারের ঝগড়া হয়।

এক পর্যায় ছেলে রাজীব ও স্ত্রী অর্চনা সরকার মিনু রানীকে শারীরিক নির্যাতন করেন বলে অভিযোগ রয়েছে। রাতে একই ঘরের পাশাপাশি কক্ষে তারা ঘুমায়। সকালে মিনু রানি সরকারকে গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় দেখতে পেয়ে ছেলে রাজীব ও তার স্ত্রী আশপাশের বাড়ির লোকজনকে ডেকে এনে লাশ নামায়। খবর পেয়ে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে।

মিনু রানী সরকারের ভাগ্নে কালিয়াকৈর উপজেলার চাপাইর ইউনিয়নের কুতুবদিয়া গ্রামের নিখিল চন্দ্র সরকার মির্জাপুর প্রেসক্লাবে এসে অভিযোগ করেন, তার খালা মিনু রানী সরকারের সাথে ছেলে রাজীব এবং তার স্ত্রী প্রতিনিয়ত ঝগড়া হতো। তারা তাকে শারীরিক নির্যাতনও করতো। বুধবার ঝগড়ার এক পর্যায় শারীরিক নির্যাতন করে ঘরে তালাবদ্ধ করে রাখে বলে মিনুর পাশের বাড়ির লোকজন তাকে জানিয়েছেন। তিনি ধারণা করছেন রাতে রাজীব ও তার স্ত্রী অর্চনা সরকার খালাকে হত্যা করে ফাঁসিতে ঝুঁলিয়ে রেখেছে। তাদের বিচার দাবি জানিয়ে বলেন, আমি তাদের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করবো।

মির্জাপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) নাসিরুজ্জামান জানান, বুধবার পুত্রবধূ ও নাতনীর সঙ্গে ঝগড়া হয়েছে। সে জন্য গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করতে পারে বলে তিনি ধারণা করছেন। লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

(ঢাকাটাইমস/১৯মে/এসএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :