বন্দুকের নল সময়মত ঘুরে যেতে পারে: মির্জা আব্বাস

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৯:২৮ | প্রকাশিত : ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৯:২১

বন্দুকের নল সময়মত ঘুরে যেতে পারে সরকারের প্রতি হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস। তিনি বলেছেন, কোনো স্বৈরশাসক কখনো চিন্তা করে নাই যে বন্দুকের নল ঘুরতে পারে। কিন্তু যখন বন্দুকের নল ঘুরে তখন তাদের আর সময় থাকে না। সুতরাং সময়ের আগেই সাবধান হয়ে যান'

মঙ্গলবার বিকাল ৩টায় তেজগাঁওয়ে ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির (তেজগাঁও জোন) এর উদ্যোগে আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মির্জা আব্বাস বলেন, 'আপনারা আবার ক্ষমতায় থাকার জন্য কত প্রক্রিয়া করতেছেন। আট হাজার কোটি টাকা দিয়ে ইভিএম কিনে আনবেন এই টাকা ও ব্যয় হবে অবৈধভাবে। কারণ, অবৈধ সরকারের অবৈধ নির্বাচন কমিশন। এই অবৈধ কমিশন কোন টাকা ব্যয় করতে পারে না। এই নির্বাচন কমিশনের অধীনে কোনো নির্বাচন বাংলাদেশ হবে না।'

তিনি আরও বলেন, 'আওয়ামী লীগের নেতারা সব জায়গায় বলে থাকেন আমরা নির্বাচনে জয়লাভ করব না, এজন্য নির্বাচনে আসতে চাচ্ছি না। নির্বাচনে আমরা আসতে চাই। নিরপেক্ষ সরকার বা নির্বাচনকালীন সরকারের অধীনে নির্বাচন দিলেই বিএনপি নির্বাচনে যাবে। আর এই নির্বাচনে আপনারা বিএনপিকে হারাতে পারবেন না। কারণ জনগণ এবং বাংলাদেশের মানুষ বিএনপির পক্ষে আছে। জনগণ আজ আপনাদের পক্ষে নেই। এদেশের মানুষ আপনাদের বিশ্বাস করে না। আওয়ামী লীগের ওপর জনগণের কোনো আস্থা নেই। এমনকি যারা বিএনপি করে না যারা আওয়ামী লীগ করে না, যারা নিরপেক্ষ লোক তারা অন্তত আওয়ামী লীগকে বিশ্বাস করে না।'

তিনি বলেন, 'বাংলাদেশের কোনো সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠান ঠিক নেই। কোট-কাচারি, থানা, পুলিশ কোনো কিছুই ঠিক নেই। সব সব নষ্ট করে দিয়েছে আওয়ামী লীগ সরকার। এই দেশের শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে হবে। আমি স্যোশ্যাল মিডিয়ায় দেখেছি, পুলিশ সুপারদেরকে প্রজ্ঞাপন পাঠানো হচ্ছে। সেখানে প্রতি জেলা, উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ে বিএনপিসহ অন্যান্য রাজনৈতিক দলগুলোর বিভিন্ন সময়ে টাকা ইনভেস্ট ও লোক যোগানকারী শীর্ষস্থানীয় ব্যক্তিদের তালিকা বের করার জন্য। প্রজ্ঞাপনে জেলা পর্যায়ে একজন ও প্রতি উপজেলা, পৌরসভা ও ইউনিয়ন পর্যায়ে কমপক্ষে ৫ নাম, ঠিকানা ও মোবাইল নাম্বার দিয়ে তালিকা করতে বলা হচ্ছে। এটাতো সরকারের কাজ হতে পারে।’

‘আমার প্রশ্ন এই নাম গুলো দিয়ে কি করবেন আপনি? এদের নাম ঠিকানা সংগ্রহ করে এক জনকে যদি গ্রেপ্তার করা হয় সারা বাংলাদেশের মানুষ নিয়ে আমরা রাজপথে নেমে পড়ব’

ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির আহ্বায়ক আমানউল্লাহ সভাপতিত্বে সমাবেশটি পরিচালনা করেন ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির সদস্য সচিব আমিনুল হক।

অন্যান্যের মধ্যে সমাবেশে আরও বক্তব্য দেন, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল আউয়াল মিন্টু, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আবুল খায়ের ভূইয়া, জয়নুল আবদিন ফারুক, মহানগর দক্ষিণের আহ্বায়ক আবদুস সালাম, বিএনপি নেতা নাজিম উদ্দিন আলম, শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি, আনিসুর রহমান তালুকদার খোকন, চেয়ারপারসনের বিশেষ সহকারী শামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাস, মহানগর বিএনপি নেতা তাবিথ আউয়াল, সাইফুল আলম নীরব, এল রহমান, আনোয়ারুজ্জামান আনোয়ার, মুনসী বজলুল বাসিত আনজু, যুবদলের এসএম জাহাঙ্গীর, শফিকুল ইসলাম মিল্টন, স্বেচ্ছাসেবক দলের এসএম জিলানী, ফখরুল ইসলাম রবিন, শ্রমিক দলের মোস্তাফিজুল মজুমদার, তাঁতী দলের আবুল কালাম আজাদ, জাসাসের জাকির হোসেন রোকন, মহিলা দলের রুনা লায়লা প্রমুখ।

(ঢাকাটাইমস/২৭সেপ্টেম্বর/এলএম/ইএস)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

রাজনীতি এর সর্বশেষ

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :