বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার গ্রহণ করলেন ১৫ কবি-লেখক-গবেষক

নিজস্ব প্রতিবেদক
| আপডেট : ০১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৮:৪৫ | প্রকাশিত : ০১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৬:১৫

সাহিত্যের বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদান রাখায় বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার-২০২২ গ্রহণ করেছেন ১৫ কবি-লেখক-গবেষক। বুধবার বিকালে বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গনে বইমেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পুরস্কারপ্রাপ্তদের হাতে সম্মাননা পত্র ও স্মারক তুলে দেন।

এসময় সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী কেএম খালিদ, বাংলা একাডেমির সভাপতি সেলিনা হোসেন, মহাপরিচালক মোহাম্মদ নুরুল হুদা প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এবার কবিতায় ফারুক মাহমুদ ও তারিক সুজাত; কথাসাহিত্যে তাপস মজুমদার ও পারভেজ হোসেন; প্রবন্ধ/গবেষণায় মাসুদুজ্জামান; অনুবাদে আলম খোরশেদ; নাটকে মিলন কান্তি দে ও ফরিদ আহমদ দুলাল; শিশুসাহিত্যে ধ্রুব এষ বাংলা একাডেমি পুরস্কার পেয়েছেন।

মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক গবেষণায় মুহাম্মদ শামসুল হক; বঙ্গবন্ধুবিষয়ক গবেষণায় সুভাষ সিংহ রায়; বিজ্ঞান/কল্পবিজ্ঞান/পরিবেশ বিজ্ঞানে মোকারম হোসেন; আত্মজীবনী/স্মৃতিকথা/ভ্রমণকাহিনিতে ইকতিয়ার চৌধুরী এবং ফোকলোরে আবদুল খালেক ও মুহম্মদ আবদুল জলিল বাংলা একাডেমি পুরস্কার পেয়েছেন।

এদিকে অনুষ্ঠান থেকে প্রধানমন্ত্রী অমর একুশে গ্রন্থমেলা-২০২৩ উদ্বোধন করবেন তিনি। এর মধ্য দিয়ে শুরু হবে ফেব্রুয়ারি জুড়ে মাসব্যাপী এই প্রাণের আসর। উদ্বোধন শেষে বইমেলা ঘুরে দেখার কথা রয়েছে প্রধানমন্ত্রীর।

গত তিন বছর মহামারির কারণে প্রধানমন্ত্রী মেলায় উপস্থিত হতে পারেননি। এর আগে প্রতি বছরই সশরীরে হাজির হয়ে বইমেলা উদ্বোধন করতেন সরকারপ্রধান।

উল্লেখ্য, এবার বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণ এবং ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের প্রায় সাড়ে ১১ লাখ বর্গফুট জায়গায় বইমেলা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। একাডেমি প্রাঙ্গণে ১১২টি প্রতিষ্ঠানকে ১৬৫টি এবং সোহরাওয়ার্দী উদ্যান অংশে ৪৮৯টি প্রতিষ্ঠানকে ৭৩৬টি ইউনিট অর্থাৎ মোট ৬০১টি প্রতিষ্ঠানকে ৯০১টি ইউনিট বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। মেলায় ৩৮টি প্যাভিলিয়ন থাকবে।

বইমেলার আঙ্গিকগত ও বিন্যাসে পরিবর্তন আনা হয়েছে। বিশেষ করে মেট্রোরেল স্টেশন-এর অবস্থানগত কারণে গতবারের মূল প্রবেশপথ এবার একটু সরিয়ে বাংলা একাডেমির মূল প্রবেশপথের উল্টো দিকে অর্থাৎ মন্দিরগেটটি মূল প্রবেশপথ হিসেবে ব্যবহৃত হবে। গতবারের প্রবেশপথটি বাহির পথ হিসেবে চিহ্নিত থাকবে। এছাড়া টিএসসি, দোয়েল চত্বর এবং ইঞ্জিনিয়ারিং ইনস্টিটিউশন অংশে আরো ৩টি প্রবেশ ও বাহিরপথ থাকবে।

প্রসঙ্গত, ১৯৬০ সাল থেকে বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার দেওয়া হয়। এতে প্রতিটি পুরস্কারের অর্থমূল্য তিন লাখ টাকা। এছাড়াও পুরস্কারপ্রাপ্তদের সম্মাননা পত্র ও স্মারক প্রদান করা হয়।

(ঢাকাটাইমস/০১ফেব্রুয়ারি/ডিএম)

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

জাতীয় এর সর্বশেষ

বৈষম্য নিরসনে নাগরিক সমাজকে ভূমিকা রাখার আহ্বান রাষ্ট্রপতির

মাদক মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির নির্দেশ প্রধান বিচারপতির

তিন জেলায় বজ্রপাতে ৭ জনের মৃত্যু

মোটরযানে হুটার-হাইড্রোলিক হর্ন ব্যবহারে বিআরটিএর হুঁশিয়ারি

সুষম অর্থনৈতিক উন্নয়ন ব্যতীত অভ্যন্তরীণ মাইগ্রেশন ঠেকানো সম্ভব নয়: স্থানীয় সরকারমন্ত্রী

নির্বাচন সংক্রান্ত সহায়তা দিবে ৯৯৯

দাবি আদায় না হলে আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা ৩য় শ্রেণি সরকারি কর্মচারীদের

সাংবাদিকরা বাংলাদেশ ব্যাংকে ঢুকবে কেন, প্রশ্ন ওবায়দুল কাদেরের

কুয়েতে বাংলাদেশের নতুন রাষ্ট্রদূত মেজর জেনারেল সৈয়দ তারেক হোসেন

সৌদিতে চলতি বছরে প্রথম বাংলাদেশি হজযাত্রীর মৃত্যু

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :