চীনা মুদ্রায় রুশ তেলের মূল্য পরিশোধ করল পাকিস্তান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৪ জুন ২০২৩, ২২:১০

রাশিয়া থেকে ছাড়ে কেনা অপরিশোধিত জ্বালানি তেলের প্রথম চালানের মূল্য চীনা মুদ্রা ইউয়ানে পরিশোধ করেছে পাকিস্তান। দেশটির পেট্রোলিয়াম মন্ত্রী সোমবার এ তথ্য জানিয়েছেন। খবর রয়টার্সের।

মার্কিন ডলার-প্রধান রপ্তানি অর্থপ্রদান নীতিতে এটি উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন। পাশাপাশি এর মাধ্যমে মস্কো এবং ইসলামাবাদের মধ্যে সম্পর্কের ক্ষেত্রেও নতুন অধ্যায়ের সূচনা হলো।

চলতি বছরের শুরুতে ইসলামাবাদ এবং মস্কোর মধ্যে একটি চুক্তির অধীনে সাজানো ডিসকাউন্ট রাশিয়ান অপরিশোধিত তেলের প্রথম কার্গো রবিবার করাচিতে পৌঁছেছে। এটি বর্তমানে দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর করাচির বন্দরে অবলোড করা হচ্ছে।

তেলমন্ত্রী মোসাদ্দেক মালিক মঙ্গলবার বলেছেন, পাকিস্তান সরকারিভাবে রাশিয়ার কাছ থেকে প্রথম চালানে এক লাখ টন অপরিশোধিত তেল কিনেছে এবং এর মূল্য পরিশোধ করা হয়েছে চীনা মুদ্রা ইউয়ানে। তবে রাশিয়ার সঙ্গে পাকিস্তানের বাণিজ্যিক চুক্তির বিস্তারিত তিনি জানাননি। এমনকি পাকিস্তান রাশিয়ার কাছ থেকে প্রতি ব্যারেল তেলে কি পরিমাণে ছাড় পেয়েছে তাও তিনি বলেননি।

চলতি বছরের প্রথম দিকে পাকিস্তান সরকার এবং মস্কোর মধ্যে রাশিয়া থেকে অপরিশোধিত তেলের প্রথম চালান গ্রহণের ব্যাপারে চুক্তি হয়। গত রবিবার রাশিয়া থেকে ওই তেল করাচি বন্দরে এসে পৌঁছায়। ইউক্রেনের সামরিক অভিযানের পর রাশিয়ার বিরুদ্ধে মার্কিন নেতৃত্বাধীন পশ্চিমা দেশগুলো ব্যাপকভাবে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে। এ অবস্থায় তুলনামূলক কম মূল্যে প্রধানত চীন এবং ভারতের কাছে তেল বিক্রি শুরু করে রাশিয়া। এর মধ্যে পাকিস্তান রাশিয়ার কাছ থেকে তেল কেনার চুক্তি করায় মস্কোর জন্য ক্রেতা বাড়ানোর সুযোগ হয়েছে।

এদিকে, চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ইউয়ানে মূল্য পরিশোধ করার ব্যাপারে বলেছে, এটি পাকিস্তান ও রাশিয়ার মধ্যে স্বাভাবিক বাণিজ্য সহযোগিতা। নীতিগত কারণে বেইজিং দেশ দুটির মধ্যকার লেনদেন নিষ্পত্তি করার জন্য চীনা মুদ্রা ব্যবহারের সুযোগ দিয়েছে।

বৈদেশিক মুদ্রা রিজার্ভ পাকিস্তানের প্রায় তলানিতে ঠেকেছে। এমতাবস্তায় ডলারে লেনদেন দেশটির ওপর বাড়তি বৈদেশিক ঋণের বোঝা চাপানো ছাড়া আর কিছুই না বলে মত বিশ্লেষকদের। ফলে বাহ্যিক ঋণ খেলাপি হওয়ার ঝুঁকি বেড়ে যেত বলে মনে করছেন অর্থনীতিবিদরা। এমনকি কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কাছে থাকা বৈদেশিক মুদ্রার যা রিজার্ভ ছিল তা দিয়ে এক মাসের নিয়ন্ত্রিত আমদানি ব্যয় মেটানোর জন্য যথেষ্ট কম।

(ঢাকাটাইমস/১৪জুন/এসএটি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আন্তর্জাতিক এর সর্বশেষ

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :