রাজপথে যুবসমাজ বিএনপির ষড়যন্ত্রের জবাব দেবে: এনামুল হক শামীম

শরীয়তপুর প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২২ জুলাই ২০২৩, ২৩:২৮

পানি সম্পদ উপমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম এনামুল হক শামীম এমপি বলেছেন, বিএনপি আন্দোলনের নামে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করে দেশকে অস্থিতিশীল করতেে চায়। ক্ষমতার লোভে উন্মত্ত বিএনপি সরকারের বিরুদ্ধে অপপ্রচারে লিপ্ত। তারুণ্যের পদযাত্রার নামে তারা যুবসমাজকে জঙ্গিবাদ, অস্ত্রবাজি ও মাদকের দিকে ঠেলে দিচ্ছে। তারা আবার আগুন সন্ত্রাস করে মানুষ পুড়িয়ে মারা নেশায় মেতে উঠেছে। বিএনপি ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য মরিয়া হয়ে উঠেছে।

তারা যেকোনো উপায়ে ক্ষমতায় যেতে চায়। ক্ষমতায় যেতে চায় বলেই বিদেশিদের কাছে দেশের ভাবমূর্তি ধ্বংসের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। বিএনপি-জামায়াতের দেশবিরোধী সব ষড়যন্ত্রের জবাব দিতে যুবসমাজকে প্রস্তুত থাকতে হবে।

শনিবার বিকালে শরীয়তপুর শিল্পকলা একাডেমি মাঠে জেলা যুবলীগ আয়োজিত তারুণ্যের জয়যাত্রা সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, বিএনপি-জামাত সন্ত্রাসী সংগঠন। এদেশের মানুষ ভাল থাকুক, দেশের উন্নয়ন অব্যাহত থাকুক তা তারা চায় না। কারণ বিএনপির জন্মই হয়েছে গুম, খুন আর হত্যার রাজনীতির মাধ্যমে। তারা ২০০১ সাল থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত আওয়ামী লীগের হাজার হাজার নেতা-কর্মীকে হত্যা করেছে। ২০১৩-১৪ সালে অসংখ্য মানুষকে আগুনে পুড়িয়ে মেরেছে।যেখানে বিএনপি-জামাতের সন্ত্রাসীদের পাওয়া যাবে সেখানেই দাঁত ভাঙা জবাব দিতে হবে।বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার হাতেই বাংলাদেশ নিরাপদ, যুবসমাজ নিরাপদ।

উপমন্ত্রী বলেন, বিএনপি নির্বাচনকে ভয় পায়, তারা যেতে চায় না তারা নির্বাচন ব্যবস্থাকে ভুন্ডল করতে চায়, তারা গণতান্ত্রিক ব্যবস্থাকে নস্যাৎ করতে চায়। যুবলীগ নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলছি, আগামী নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বিএনপি-জামায়াত যদি কোনো ষড়যন্ত্র ও নৈরাজ্য সৃষ্টি করে তাদের কঠোরভাবে প্রতিহত করবেন।

এনামুল হক শামীম বলেন, বঙ্গবন্ধুর নির্দেশিত পথে সোনার বাংলার আধুনিক রূপ ডিজিটাল বাংলাদেশের সফল পথ পরিক্রমায় ‘স্মার্ট বাংলাদেশ’র পথে এগিয়ে যাবে দেশ। এই চলার পথে প্রধান শক্তি যুবরাই। শুধু দেশের উন্নয়নেই নয়, রাজনৈতিক ষড়যন্ত্রকারীদের সন্ত্রাস ও নৈরাজ্যের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার চলার পথকে মসৃন করে যাচ্ছে যুবলীগ। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আগামীতে যুবারাই গড়বে সমৃদ্ধ ও মেধাভিত্তিক স্মার্ট বাংলাদেশ। উদ্যমী যুবলীগের ঐক্যবদ্ধ নেতাকর্মীরা এ গন্তব্যে দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করবে।

তিনি বলেন, ২০০৮ সালের জাতীয় নির্বাচনে মধ্যম আয়ের দেশে উন্নীত করা এবং ডিজিটাল রাষ্ট্র হিসেবে গড়ে তোলার ঘোষণা দিয়েছিলেন জননেত্রী হাসিনা। ২০২১ সালের মধ্যে তা সফলভাবে বাস্তবায়ন করেছেন। স্মার্ট বাংলাদেশ গঠনে বঙ্গবন্ধুকন্যা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কোনো বিকল্প নেই। বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আছেন বলেই বাংলাদেশ সব দিক থেকে এগিয়ে যাচ্ছে। তারই ধারাবাহিকতায় শরীয়তপুর এগিয়ে যাচ্ছে। ফোর লেন সড়ক হচ্ছে। বঙ্গবন্ধু কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় হচ্ছে। সাব মেরিন ক্যাবল ও রিভার ক্রসিং টাওয়ারের মাধ্যমে দূর্গম চরাঞ্চলেও বিদ্যুৎ

সেবা পৌছে গেছে। ভাঙনকবলিত নড়িয়ার পদ্মা পাড় পর্যটন কেন্দ্র রূপান্তরিত হয়েছে। জয়বাংলা এভিনিউ ও সোনার বাংলা এভিনিউ হয়েছে। শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও যোগাযোগ অবকাঠামোগত ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। তাই আগামী নির্বাচনে এদেশের জনগণ পঞ্চম বারের মতো প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আসবেন। আর এই অঞ্চলের মানুষ কখনো বঙ্গবন্ধু, জননেত্রী শেখ হাসিনা ও নৌকার প্রশ্নে আপস করে নাই, আগামীতে করবে না।

জেলা যুবলীগের সভাপতি এমএম জাহাঙ্গীরের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক নুহুন মাদবরের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি ছিলেন, শরীয়তপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য ও আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ইকবাল হোসেন অপু, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ছাবেদুর রহমান খোকা সিকদার, সাধারণ সম্পাদক অনল কুমার দে, যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ডা. খালেদ শওকত আলী, সাংগঠনিক সম্পাদক ডা. হেলাল উদ্দিন, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক এ্যাড. মুক্তা আক্তার, সদস্য আসাদুজ্জামান আজম। এসময় দলের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

(ঢাকাটাইমস/২২জুলাই/ এআর)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :