ভাড়া বাড়ছে মেট্রোরেলে 

লিটন মাহমুদ, ঢাকা টাইমস
| আপডেট : ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ০৮:১৬ | প্রকাশিত : ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ০৮:১২

নির্দিষ্ট সময়ে গন্তব্যে পৌঁছাতে মেট্রোরেলের জুড়ি মেলা ভার। আর তাই দিনদিন রাজধানীবাসীর কাছে জনপ্রিয় হয়ে উঠছে এই যোগাযোগ মাধ্যম। ফলে প্রতিদিনই মেট্রোরেলে যাত্রীর চাপ বাড়ছে। যাত্রীরা বলছেন চাপাচাপি করে হলেও তারা সময়মতো গন্তব্যে পৌঁছাতে পারছেন। এ কারণে মেট্রোরেল তাদের প্রথম পছন্দ। এদিকে, ২০২৪-২৫ অর্থবছর থেকে মেট্রোরেলের টিকিটের ওপর জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) ফের মূল্য সংযোজন কর (ভ্যাট) আরোপের পরিকল্পনা করছে বলে জানিয়েছেন সংস্থাটির কর্মকর্তারা। ফলে জুলাই থেকে ঢাকা মেট্রোরেলে চলাচলের খরচ বাড়তে পারে যাত্রীদের।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন এনবিআর কর্মকর্তা বলেন, মেট্রোরেল পরিষেবা পুরোপুরি চালু না হওয়ায় সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী এনবিআর গত বছর মেট্রোরেলের টিকিটের দামে ভ্যাট ছাড় দিয়েছে।

এই কর্মকর্তা আরও বলেন, 'এখন এনবিআর এই খাত থেকে আরও রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যে ভ্যাট মওকুফ প্রত্যাহার করতে চায়। এ ব্যাপারে তারা ঢাকা ম্যাস ট্রানজিট কোম্পানি লিমিটেডের (ডিএমটিসিএল) সঙ্গে বৈঠক করবেন।

তিনি আরও বলেন, মেট্রোরেল পরিষেবার ভ্যাট থেকে রাজস্ব বোর্ড বছরে প্রায় ১০০ কোটি টাকা রাজস্ব আদায় করতে পারবে। ওই এনবিআর কর্মকর্তা জানান, আইন অনুযায়ী, এসি ও নন-এসি উভয় ধরনের রেলওয়ে পরিষেবার জন্য ১৫ শতাংশ ভ্যাট প্রযোজ্য। মূল্য সংযোজন কর ও সম্পূরক শুল্ক আইন ২০১২-এর ধারা ২৬-এ শীতাতপ-নিয়ন্ত্রিত (এসি) ও প্রথম-শ্রেণির নন-এসি রেল পরিষেবা কোনোটিতেই যাত্রী পরিবহনের জন্য ভ্যাট ছাড় দেওয়া হয়নি।

মেট্রোরেল যেহেতু সম্পূর্ণ শীতাতপ-নিয়ন্ত্রিত, তাই এই পরিষেবার ওপর ১৫ শতাংশ ভ্যাট প্রযোজ্য বলে জানান তিনি।

ওই এনবিআর কর্মকর্তা আরও বলেন, ১৫ শতাংশ ভ্যাট আরোপের পর ন্যূনতম দূরত্বের টিকিটের মূল্য হবে ২৩ টাকা, যা বর্তমানে ২০ টাকা। আর সর্বোচ্চ দূরত্বের টিকিটের মূল্য ১০০ টাকা থেকে বেড়ে ১১৫ টাকা হবে।

ডিএমটিসিএলের উপ-প্রকল্প পরিচালক (জনসংযোগ) নাজমুল ইসলাম ভূঁইয়া জানান, বর্তমানে প্রতিদিন গড়ে ২.৭ লাখ যাত্রী মেট্রোরেলে যাতায়াত করেন।

তিনি আরও বলেন, ডিএমটিসিএল এখন পর্যন্ত প্রায় ৩ লাখ কার্ড ইস্যু করেছে। তবে কতজন যাত্রী দ্রুত পাস ব্যবহার করছেন, সে সম্পর্কে তাদের কাছে হালনাগাদ তথ্য নেই। সূত্র অনুসারে, এ পর্যন্ত এক দিনে সর্বোচ্চ ২.৭৫ লাখ যাত্রী চলাচল করেছেন।

হিসাব অনুযায়ী, গড়ে ২.৭ লাখ যাত্রী মাথাপিছু ৫০ টাকা খরচ করলে মোট টিকিট বিক্রির পরিমাণ দাঁড়ায় ১.৩৫ কোটি টাকা। অতিরিক্ত ১৫ শতাংশ ভ্যাট আরোপ করা হলে এনবিআর প্রতিদিন অতিরিক্ত ২০.২৫ লাখ টাকা রাজস্ব আদায় করতে পারবে। এর ফলে বছরে প্রায় ৭৪ কোটি টাকা বাড়তি রাজস্ব পাবে সংস্থাটি।

প্রাথমিকভাবে, ডিএমটিসিএল উত্তরা উত্তর স্টেশন থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত এমআরটি-৬ পরিচালনা করলেও বর্তমানে মেট্রোরেল উত্তরা উত্তর স্টেশন থেকে মতিঝিল স্টেশন পর্যন্ত চলছে। ডিএমটিসিএল ২০২৫ সালের মধ্যে কমলাপুর স্টেশন পর্যন্ত কার্যক্রম সম্প্রসারিত করার লক্ষ্য নির্ধারণ করেছে।

৮ মিনিট পরপর মিলবে মেট্রোরেল

মেট্রোরেলের হেডওয়ে বা দুই ট্রেন চলার মধ্যবর্তী সময় দুই মিনিট কমানো হয়েছে। নতুন সময় মেনে আগামী শনিবার অর্থাৎ ১৭ জানুয়ারি থেকে চলাচল করবে মেট্রোরেল। বর্তমানে পিক আওয়ারে ১০ মিনিট ও অফপিক আওয়ারে ১২ মিনিট সময় নিয়ে ট্রেন ছাড়া হয়। নতুন এই সময় শুধু পিক আওয়ারের জন্য প্রযোজ্য। বৃহস্পতিবার ঢাকা ম্যাস র‌্যাপিড ট্রানজিট কোম্পানি লিমিটেডের (ডিএমটিসিএল) ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম এ এন ছিদ্দিক এই তথ্য জানান। তিনি জানান, নতুন সময় রমজানের আগ পর্যন্ত চলবে। রমজানে আলাদা সময় দেওয়া হবে। রমজান শেষ হলে আবার আগের সময়ে চলবে।

এম এ এন ছিদ্দিক বলেন, ‘বর্তমানে মেট্রোরেল গড়ে প্রায় ২ লাখ ৭০ হাজার যাত্রী পরিবহন করে এবং দিনে ১৫২ বার যাতায়াত করে। কিন্তু শনিবার থেকে নতুন সময়ে ২৬ বার যাতায়াত বেড়ে দিনে মোট ১৭৮ বার যাতায়াত করবে। আর প্রতিদিন একটি ট্রেনে ১ হাজার ৭৫০ জন যাত্রী যাতায়াত করছে।’

নতুন সময় নিয়ে ডিএমটিসিএলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক বলেন, ‘শনিবার থেকে উত্তরা থেকে ৭টা ১০ মিনিট থেকে সাড়ে সাতটা পর্যন্ত তিনটি ট্রেন চলবে। এটা স্পেশাল অফপিক। এরপর ৭টা ৩১ মিনিট থেকে ১১টা ৪৮ মিনিট পর্যন্ত পিক আওয়ারে ৮ মিনিট পরপর ট্রেন চলবে। এরপর ১১টা ৪৯ মিনিট থেকে ৩টা ১১ মিনিট অফ পিক আওয়ারে আগের মতই ১২ মিনিট সময় থাকবে। ৩টা ১২ মিনিট থেকে ৮টা ১১টা পর্যন্ত পিক আওয়ারে ৮ মিনিট পর ট্রেন চলবে।’

ডিএমটিসিএলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মতিঝিল থেকে উত্তরা অংশের সময় নিয়ে বলেন, ‘মতিঝিল থেকে সাড়ে ৭টা থেকে ৮টা পর্যন্ত তিনটা ট্রেন চলবে। এরপর ৮টা থেকে ১২টা ৮ মিনিট পর্যন্ত পিক আওয়ার। ১২টা ৯ মিনিট থেকে ৩টা ৫২ পর্যন্ত অফ পিক আওয়ার। ৩টা ৫২ থেকে রাত ৮টা ৪০ মিনিট পর্যন্ত পিক আওয়ার।’

ঘুড়ি উড়ানোর বিরুদ্ধে অভিযান চলছে

বুধবার কাজীপাড়া-শেওড়াপাড়া স্টেশনের মধ্যবর্তী স্থানে পার্শ্ববর্তী বিল্ডিংয়ে ছাদ থেকে ওড়ানো ঘুড়ি এসে আটকে যায় মেট্রোরেলের বৈদ্যুতিক লাইনের তারে। আর এতে প্রায় এক ঘণ্টা বন্ধ ছিল মেট্রো চলাচল।

মেট্রোরেল কর্তৃপক্ষ মেট্রোরেল লাইনের পার্শ্ববর্তী অঞ্চলে ঘুড়ি উড়ানোর বিরুদ্ধে অভিযান শুরু করেছে। এ সময় দুজনকে আটক করে কোম্পানি আইনে মামলা করা হয়েছে। আর ছয়জনের বয়স কম হওয়াতে মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। এ সময় ৭ হাজার ঘুড়ি জব্দ করা হয়েছে।

২০২২ সালের ২৮ ডিসেম্বর ঢাকায় প্রথম মেট্রোরেল উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সে সময় মেট্রোরেল উত্তরা থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত চলাচল করত। এরপর গত বছরের ৪ নভেম্বর মেট্রোরেলের আগারগাঁও থেকে মতিঝিল অংশের উদ্বোধন করেন শেখ হাসিনা। ৫ নভেম্বর উত্তরা থেকে মতিঝিল পর্যন্ত মেট্রোরেলের চলাচল শুরু হয়।

(ঢাকাটাইমস/১৬ফেব্রুয়ারি/এআর)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বিশেষ প্রতিবেদন বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন এর সর্বশেষ

মজুত ফুরালেই বাড়তি দামে বিক্রি হবে সয়াবিন তেল

কোন দিকে মোড় নিচ্ছে ইরান-ইসরায়েল সংকট

ছাদ থেকে পড়ে ডিবি কর্মকর্তার গৃহকর্মীর মৃত্যু: প্রতিবেদনে আদালতকে যা জানাল পুলিশ

উইমেন্স ওয়ার্ল্ড: স্পর্শকাতর ভিডিও পর্নোগ্রাফিতে গেছে কি না খুঁজছে পুলিশ

জাবির হলে স্বামীকে বেঁধে স্ত্রীকে জঙ্গলে ধর্ষণ, কোথায় আটকে আছে তদন্ত?

নাথান বমের স্ত্রী কোথায়

চালের বস্তায় জাত-দাম লিখতে গড়িমসি

গুলিস্তান আন্ডারপাসে অপরিকল্পিত পাতাল মার্কেট অতি অগ্নিঝুঁকিতে 

সিদ্ধেশ্বরীতে ব্যাংক কর্মকর্তার মৃত্যু: তিন মাস পেরিয়ে গেলেও অন্ধকারে পুলিশ

রং মাখানো তুলি কাগজ ছুঁলেই হয়ে উঠছে একেকটা তিমিরবিনাশি গল্প

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :