জয়পুরহাটে চিকিৎসককে মারপিটের অভিযোগে বাবা-ছেলে আটক

জয়পুরহাট প্রতিনিধি, ঢাকা টাইমস
 | প্রকাশিত : ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ২১:২৫

জয়পুরহাট আধুনিক জেলা হাসপাতালের বহির্বিভাগে রোগী দেখার সময় চিকিৎসককে মারধর ও আসবাবপত্র ভাঙচুরের অভিযোগে বাবা ও ছেলেকে আটক করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার দুপুরে সদর হাসপাতালে এই ঘটনা ঘটে।

আটককৃতরা হলেন-ক্ষেতলাল উপজেলার বানদীঘি গ্রামের জসিম উদ্দিন (৫৬) ও তার ছেলে জুয়েল হোসেন (৩২)।

পুলিশ ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ সূত্রে জানা গেছে, দুপুরের দিকে হাসপাতালের দ্বিতীয় তলায় বহির্বিভাগে মেডিকেল অফিসার ডা. জাকা কাইফ রোগী দেখছিলেন। এ সময় অনেক রোগী লাইনে দাঁড়িয়ে ছিলেন। হঠাৎ করে জসিম উদ্দিন ও তার ছেলে জুয়েল হোসেন লাইন ভেঙ্গে প্রবেশ করেন। এ সময় জুয়েল হোসেন কর্তব্যরত চিকিৎসককে বলেন তার বাবাকে দেখার জন্য। ডাক্তার তাদেরকে সিরিয়াল মেনে প্রবেশের কথা বললে তারা ক্ষিপ্ত হয়।

এসময় ডাক্তার ঘরের ভেতর থেকে বের হতে চাইলে বাবা-ছেলে দুজনই চিকিৎসককে মারধর শুরু করে এবং আসবাবপত্র ভাঙচুর করে।

উপস্থিত ও হাসপাতালের লোকজন তাদেরকে আটক করে পুলিশে খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে বাবা-ছেলেকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। এ ঘটনায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ও আহত ডাক্তার পৃথক দুটি মামলা দায়েরের প্রস্ততি নিচ্ছেন বলে জানা গেছে।

জয়পুরহাট সদর থানার উপপরিদর্শক (এস আই) নোমান বলেন, হাসপাতালে চিকিৎসককে মারপিট ও ভাঙচুরের ঘটনায় বাবা-ছেলেকে আটক করে থানায় নেয়া হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের প্রস্ততি চলছে বলেও জানান তিনি।

(ঢাকাটাইমস/২৭ফেব্রুয়ারি/প্রতিনিধি/পিএস)

সংবাদটি শেয়ার করুন

সারাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সারাদেশ এর সর্বশেষ

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :