পটুয়াখালীতে স্বামীকে কুপিয়ে হত্যার পর থানায় হাজির স্ত্রী

পটুয়াখালী প্রতিনিধি, ঢাকা টাইমস
| আপডেট : ০২ মার্চ ২০২৪, ১৪:১৮ | প্রকাশিত : ০২ মার্চ ২০২৪, ১৪:১৬

পটুয়াখালী শহরের কলাতলা এলাকার স্বামীকে কুপিয়ে হত্যার পর থানায় গিয়ে হাজির হলেন স্ত্রী। শুক্রবার সন্ধ্যার পর এ ঘটনা ঘটে।

নিহতের নাম রাকিব (৩০)। তিনি পটুয়াখালী শহরের কলাতলা এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকতেন। তার স্ত্রীর নাম মীম আক্তার (১৯)।

পুলিশ জানায়, মীম নামের এই নারী তাঁর স্বামীকে খুন করে পটুয়াখালী সদর থানায় গিয়ে দায়িত্বরত অফিসারকে বিষয়টি জানান। পুলিশ তাঁর কাছ থেকে বাসার ঠিকানা নিয়ে ঘটনাস্থলে এসে রাকিবের মরদেহ উদ্ধার করে। নিহত রাকিবের মাথায় কোপের চিহ্ন রয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ মীমকে হেফাজতে নেওয়ার পাশাপাশি রাকিবের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে।

নিহত রাকিবের বাবা নজরুল ইসলাম বলেন, ‘আসরের সময় রাকিব ও মীম বাসায় আসছে। আমি আসরের নামাজ পড়তে গেছি। নামাজ শেষ করে এসে দেখি তারা বাসায়। আমার ছোট ছেলে এসে বলে বড় ভাইয়ের (রাকিব) গলার মধ্যে কেমন যেন শব্দ করে। এ খবর শুনে আমি মীমদের ঘরে গেলে মীম জানায় রাকিব ঘুমাচ্ছে। এ কথা শুনে ফিরে আসি। পরে আমি মাগরিবের নামাজ পড়ে ফিরে আসার পর ছোট ছেলে জানায়, রাকিবকে মেরে ফেলছে।’

রাকিবের বাবা নজরুল ইসলাম এ ঘটনায় মীমের ফাঁসি দাবি করেন।

পটুয়াখালীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) আহমাদ মাঈনুল হাসান বলেন, হত্যার বিষয়টি আশেপাশের লোকজন টের পায়নি। খুন হওয়া ব্যক্তির ছোট ভাই ঘটনাস্থলের একটু দূরে মোবাইল নিয়ে ব্যস্ত ছিলেন, তিনিও টের পাননি। কেন কি কারণে এ ঘটনা ঘটেছে তা জানার চেষ্টা চলছে।

(ঢাকা টাইমস/০২মার্চ/প্রতিনিধি/এসএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

বাংলাদেশ এর সর্বশেষ

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :