যেসব খাবারে দাঁতের ক্ষতি

স্বাস্থ্য ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২১ মার্চ ২০১৯, ১৫:২৭

যুগের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে রোজ দাঁতের সমস্যা বেড়েছে। সারা পৃথিবী ব্যাপী ২০ মার্চ এফডিআই ওয়ার্ল্ড ডেন্টাল ফেডারেশনের পক্ষ থেকে ‘ওয়ার্ল্ড ওরাল হেলথ ডে’ বা মুখগহ্বরের স্বাস্থ্যরক্ষার দিন পালিত হয়। দাঁতের যত্ন মানেই কিন্তু কেবল দাঁত মাজা বা মুখের ভিতর ফ্রেশনার ব্যবহার নয়। বেশ কিছু খাবারও কিন্তু রোজ আপনার দাঁতের ক্ষতি করে।

দাঁতকে সার্বিক সুস্থ রাখতে সে সব খাবারের আধিক্য এড়িয়ে চলার পরামর্শ দেন দন্ত বিশেষজ্ঞরা। জানেন কি, কোন কোন খাবারের বাড়াবাড়ি আপনার অজান্তেই ক্ষতি করছে দাঁতের?

চকলেট
দাঁতের ক্ষয় বাড়িয়ে দেওয়ার জন্য চকলেট একাই একশো। চকলেটের কোকো ও ক্যাফিন দাঁতের এনামেল ক্ষয় করে। তাই চকলেটের আধিক্যকে প্রশ্রয় দেবেন না একেবারেই। বাড়িতে খুদে সদস্য থাকলে তার দাঁতের যত্নের ক্ষেত্রেও চকলেট খাওয়ায় রাশ টানুন। বিশেষ করে চকলেট খাওয়ার পর ভাল করে মুখ কুলকুচি করে ধুয়ে ব্রাশ করে নিন।

জাঙ্ক ফুড
এই ধরনের খাবার থেকে দাঁতে অম্লতা তৈরি হয়। এনামেল সেই অ্যাসিডের প্রভাবে ক্ষয়ে যায় ও দাঁতে গর্ত তৈরি হয়। তাই অতিরিক্ত জাঙ্ক ফুড দাঁতের স্বাস্থ্যের পক্ষে ক্ষতিকারক। তাই মাত্রাতিরিক্ত জাঙ্ক ফুড এড়িয়ে চলুন।

কফি
ক্যাফিন যেমন দাঁতে ছোপ তৈরি করে, তেমনই এনামেলের ক্ষয় করে। তাই ঘন ঘন কফি খেলে দাঁতের বিশেষ যত্ন নিতেই হবে। পারলে এড়িয়ে চলুন মাত্রাতিরিক্ত কফি।

বেশি গরম বা বেশি ঠান্ডা
দাঁতের জন্য দুটেই ক্ষতিকর। খুব গরম খাবার বা পানীয়তেও দাঁতে শিরশিরানির সমস্যা বাড়ে। তাই চিকিৎসকের সঙ্গে পরামর্শ করে দাঁতের যত্ন নিন। এড়িয়ে চলুন ঘন ঘন খুব গরম চা-কফি বা আইসক্রিম। কাঁচা বরফ দেওয়া হয় এমন খাবারও দাঁতের শিরাগুলোকে দুর্বর করে দাঁতকে আলগা করে দেয়। তাই এড়িয়ে চলুন সে সব।

প্রসেসড বা প্রক্রিয়াজাত খাবার
যে সব খাবারে অতিরিক্ত চিনি ও লবণ আছে, তাদের খাবার পাত থেকে বাদ দেওয়াই বাঞ্ছনীয়। নরম পানীয়, যে কোনও প্রসেসড ফুড, পিরেজারভেটিভস দেওয়া খাবারদাবারে এই অতিরিক্ত চিনি ও লবণ থাকে বলে তারা দাঁতের খুব ক্ষয় করে। ক্যাভিটি তৈরি হওয়ার অন্যতম কারণ এরাই। তাই মাত্রাতিরিক্ত পরিমাণে এ সব খাবার খেলে দাঁতের ক্ষয় আসবেই।

(ঢাকাটাইমস/২১মার্চ/এজেড)

সংবাদটি শেয়ার করুন

স্বাস্থ্য বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :