‘প্রাইম ব্যাংকের সবগুলো সূচক উন্নতির দিকে’

অর্থনৈতিক প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৭ এপ্রিল ২০১৯, ২১:০৩

২০১৮ সালে যেখানে দেশের ব্যাংকিং খাতে অস্থিরতা বিরাজ করেছে, সেখানে প্রাইম ব্যাংকের ব্যাংকিং কার্যক্রমে সবগুলো সূচক উন্নতির দিকে ছিল বলে জানিয়েছেন প্রাইম ব্যাংক ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী রাহেল আহমেদ।

বুধবার দুপুরে রাজধানীর ঢাকা ক্লাবে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। প্রাইম ব্যাংকের ২৪ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ‘মিট দ্য প্রেস’অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

রাহেল আহমেদ বলেন, ২০১৫ এবং ২০১৬ সালে যে সমস্ত উদ্যোগ নিয়েছিলাম তার ফলাফল আমরা এখন পাচ্ছি। এখন যে সমস্ত কাজগুলো আমরা শুরু করেছি আশা করি শিগগির তার ফলাফল পাওয়া যাবে।

২০১৮ সালের লভ্যাংশের উদাহরণ দিয়ে তিনি বলেন, এ বছর আমরা সাড়ে ১২ শতাংশ ক্যাশ ডিভিডেন্ড ডিক্লিয়ার করেছি। এরূপ ধারাবাহিকতা আগামী বছরেও বজায় রাখতে চাই।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে রাহেল আহমেদ বলেন, বর্তমানে ব্যাংকিং সেক্টরের সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ খেলাপি ঋণ। তবে এই চ্যালেঞ্জ অতিক্রম করা কঠিন কোনো বিষয় নয়। এজন্য অর্থঋণ আদালতের কাঠামো আরো বিস্তৃত করা প্রয়োজন। পাশাপাশি আইন প্রয়োগে কঠোর ভূমিকা পালন করার পরামর্শ দেন তিনি।

তিনি জানান, ২০১৮ সাল শেষে প্রাইম ব্যাংকের আমানতের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ১৯ হাজার ৮৩২ কোটি টাকা। বিনিয়োগের পরিমাণ ২০ হাজার ৫৮১ কোটি টাকা এবং সম্পদের পরিমাণ ২৯ হাজার ৩৯০ কোটি টাকায় পৌঁছেছে।

প্রাইম ব্যাংকের এ প্রধান নির্বাহী বলেন, গত এক বছরে আমরা যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলাম আপনারা ইতিমধ্যেই তার কিছু বাস্তায়ন দেখতে পেয়েছেন। কিছুদিন আগে আমরা দেশে প্রথমবারের মতো ডিজিটাল সঞ্চয়ী হিসাব প্রবর্তন করেছি। প্রাইম ডিজি নিয়ে খুব ভালো রেসপন্স পেয়েছি মার্কেট থেকে। এভাবে আগামীতেও প্রাইম ব্যাংকে যে পরিবর্তন দেখতে পাব, যেটা হবে উন্নতির জন্য।

সামনের বছরগুলো নন পারফরমিং লোনকে ম্যানেজ করাটাই মূল চ্যালেঞ্জ হবে ব্যাংকিং ইন্ডাস্ট্রির জন্য, মত দেন ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক।

তিনি আরো বলেন, অর্থমন্ত্রী ঋণখেলাপিদের ঋণ পরিশোধের জন্য যে কাঠামোতে সুযোগ দেয়ার কথা বলেছেন, তার কোনো সার্কুলার আমরা এখনো হাতে পাইনি। যখন সার্কুলার হবে তখন ইন্ডাস্ট্রিতে এর সামগ্রিক প্রভাব নিয়ে মূল্যায়ন করা যাবে। তবে এই নন পারফর্মিং লোনগুলোকে ম্যানেজ করাটা একটা চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়াবে।

অনুষ্ঠানে প্রাইম ব্যাংকের উপ ব্যবস্থাপনা পরিচালক গোলাম রাব্বানী, তৌহিদুল আলম খান, হাবিবুর রহমান চৌধুরীসহ আরও অনেকে মত বিনিময় করেন। স্বাগত বক্তব্য দেন ব্যাংকের ভাইস প্রেসিডেন্ট মনিরুজ্জামান।

উল্লেখ্য, ১৯৯৫ সালের ১৭ এপ্রিল প্রাইম ব্যাংক লিমিটেড যাত্রা শুরু করে। ব্যাংকটি আগামী ২০২১ সালকে সামনে রেখে কর্মপরিকল্পনা প্রণয়ন করেছে, যার লক্ষ্য পূরণে মূল প্রতিপাদ্য বিষয় হচ্ছে 'ওয়ান ব্যাংক, ওয়ান টিম।

(ঢাকাটাইমস/১৭এপ্রিল/আরএ/জেবি) 

সংবাদটি শেয়ার করুন

অর্থনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :