অভিনয়শিল্পী সংঘের নির্বাচন স্থগিত

বিনোদন প্রতিবেদক
 | প্রকাশিত : ২০ জুন ২০১৯, ১৭:৩৪

আদালতের নির্দেশে স্থগিত হয়ে গেল অভিনয়শিল্পী সংঘের নির্বাচন। শুক্রবার সেগুনবাগিচায় অবস্থিত শিল্পকলা একাডেমিতে ভোটগ্রহণ শুরু হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু আজ বৃহস্পতিবার জানা যায়, আদালতের দেয়া রায়ে আটকে গেছে ছোট পর্দার অভিনেতা-অভিনেত্রীদের নিয়ে গঠিত সংগঠনটির দ্বিবার্ষিক নির্বাচন।

গত বুধবার শেখ মো. এহসানুর রহমান, আব্দুল্লাহ রানা এবং নূর মুহাম্মদ রাজ্য বাদী হয়ে বেশ কিছু অভিযোগ এনে দ্বিতীয় সহকারী আদালতে নির্বাচন স্থগিতের আবেদন করেন। সেই আবেদনের প্রেক্ষিতে ওইদিনই সিনিয়র সহকারী জজ মোহাম্মদ শাফি নির্বাচন স্থগিতের আদেশ দেন।

শুধু তাই নয়, এবারের নির্বাচনে প্রধান নির্বাচন কমিশনারের দায়িত্বে থাকা অভিনেতা খায়রুল আলম সবুজ, তার সহকারী হিসেবে থাকা অভিনেতা মাসুম আজিজ ও নাট্যজন বৃন্দাবন দাস এবং অভিনয়শিল্পী সংঘের প্রথম সভাপতি শহিদুল আলম সাচ্চুসহ আটজনকে গত ১৯ জুন থেকে আগামী সাত দিনের মধ্যে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয়া হয়েছে।

তবে প্রথম নির্বাচনে সভাপতি নির্বাচিত হওয়া অভিনেতা শহিদুল আলম সাচ্চুর দাবি, তারা আদালতের এমন কোনো কাগজপত্র হাতে পাননি। তাই আগামীকাল শুক্রবার নির্বাচন না হওয়ারও কোনো কারণ দেখছেন না।

কিন্তু দ্বিতীয় আদালতের দ্বি নোটিশ জারিকারী মোহাম্মদ শাহজাহান বলছেন, রায়ের দিনেই তিনি আদালতের নোটিশ নিয়ে অভিনয়শিল্পী সংঘের অফিসে যান। কিন্তু নোটিশ নিয়ে গেছেন শুনে সবাই তাকে রেখে বেরিয়ে যান। কেউই নোটিশের কাগজ গ্রহণ করেননি।  

অভিনয়শিল্পী সংঘের এবারের নির্বাচনে ভোটার প্রায় ৬০০ জন। ২১টি পদের জন্য লড়ছেন ৫১ জন প্রার্থী। কোনো প্রতিদ্বন্দ্বী না থাকায় ইতোমধ্যে সাংগঠনিক সম্পাদক পদে অভিনেতা লুৎফর রহমান জর্জ নির্বাচিত হয়ে গেছেন। অন্য যারা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন গত ১৫ জুন তাদের একটি তালিকা প্রকাশ করে বর্তমান অভিনয়শিল্পী সংঘ।

সে তালিকা থেকে দেখা যায়, এবার সভাপতি পদে লড়ছেন তিনজন। তুষার খান (আশিকুল ইসলাম খান), মিজানুর রহমান (শামীম ভিস্তী) ও শহীদুজ্জামান সেলিম। সহ-সভাপতি পদে তিনটি আসনের জন্য প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ছয়জন। আজাদ আবুল কালাম, আহসানুল হক মিনু, ইউজিন ভিনসেন্ট গোমেজ, ইকবাল লাবু, তানিয়া আহমেদ ও দিলু মজুমদার। এই ছয়জন থেকে জয়ী হবেন তিনজন।

সাধারণ সম্পাদক পদে লড়ছেন আহসান হাবিব নাসিম ও আবদুল হান্নান। যুগ্ম সাধারণ সম্পাদকের দুটি পদের জন্য লড়ছেন আশরাফ কবীর, আনিসুর রহমান মিলন, এ কে এম আমিনুল হক আমিন, রওনক হাসান (এম এম কামরুল হাসান) ও সুমনা সোমা। অর্থ সম্পাদক হিসেবে একটি পদের বিপরীতে লড়ছেন মুহাম্মুদ নূর এ আলম এবং মাঈন উদ্দিন আহমেদ। দপ্তর সম্পাদক পদে লড়াইয়ে থাকা চার প্রতিদ্বদ্বী প্রার্থী হলেন উর্মিলা শ্রাবন্তী কর, আরমান পারভেজ মুরাদ, গোলাম মাহমুদ ও শেখ মেরাজুল ইসলাম।

অনুষ্ঠান সম্পাদকের একটি আসনের জন্য লড়ছেন তিনজন। তারা হলেন- জিনাত সানু স্বাগতা, পাভেল ইসলাম ও রাশেদ মামুন অপু। আইন ও কল্যাণ সম্পাদকের একটি পদে লড়ছেন ম ম শিউলী, শামীমা ইসলাম তুষ্টি, শিরিন আলম। প্রচার ও প্রকাশনা পদে নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন প্রাণ রায়, শফিউল আলম বাবু এবং শহিদ আলমগীর। তথ্য ও প্রযুক্তিবিষয়ক সম্পাদক পদে লড়ছেন সিরাজুল ইসলাম ও সুজাত শিমুল।

কার্যনির্বাহী সদস্য হিসেবে সাতটি পদের জন্য প্রার্থী ১৮ জন। তারা হলেন- সেলিম মাহবুব, বন্যা মির্জা, শামস সুমন, শামসুন নাহার শিরীন (সূচনা সিকদার), আবদুর রাজ্জাক, সনি রহমান, নিথর মাহবুব, জাহিদুল ইসলাম চৌধুরী, ওয়াসিম হাওলাদার, মুনিরা বেগম মেমী, মাহাদী হাসান পিয়াল, তানভীর মাসুদ, নাদিয়া আহমেদ, রেজাউল করিম সরকার, নুরুন নাহার বেগম, তারেক মাহমুদ, জাকিয়া বারী মম এবং রাজিব সালেহিন।

অভিনয়শিল্পী সংঘের প্রথম নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছিল ২০১৭ সালের ১০ ফেব্রুয়ারি। সেবার প্রধান নির্বাচন কমিশনারের দায়িত্ব সামলেছিলেন এম এম মহসিন। সভাপতি নির্বাচিত হয়েছিলেন শহিদুল আলম সাচ্চু এবং সাধারণ সম্পাদক হন অভিনেতা আহসান হাবিব নাসিম। তাদের নেতৃত্বে দুই বছর চলেছে সংগঠনটি। চলতি বছরে প্রথম কমিটির মেয়াদ শেষ হয়।

ঢাকাটাইমস/২০ জুন/এএইচ

সংবাদটি শেয়ার করুন

বিনোদন বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :