নটিংহামের পুরো গ্যালারি লাল সবুজের দখলে

দেলোয়ার হোসেন, নটিংহাম, ইংল্যান্ড থেকে
| আপডেট : ২০ জুন ২০১৯, ১৮:৪৩ | প্রকাশিত : ২০ জুন ২০১৯, ১৮:৪০

ইংল্যান্ড বাংলাদেশ দলের দ্বিতীয় হোম গ্রাউন্ড। সাফল্য বিচারে নয়, গ্যালারির দর্শক বিবেচনা করলে ইংল্যান্ডকে বাংলাদেশের দ্বিতীয় হোম গ্রাউন্ড বলতেই হবে। টাইগাররা যখনই এদেশ সফরে এসেছে, প্রবাসীরা স্ব:স্ফূর্তভাবে মাঠে এসে সমর্থন যুগিয়েছেন। তবে এবারের বিশ্বকাপে অতীতের উদাহরণও পেছনে ফেলে দিয়েছে। লাল সবুজের পতাকার সমর্থনে নানা সাজে সজ্জিত হয়ে বিশ্বকাপে বাংলাদেশের প্রতিটা ম্যাচে গ্যালারি মাতাচ্ছেন প্রবাসীরা।

বাংলাদেশের সার্বিক পরিস্থিতে তাদের হতাশার শেষ নেই। আছে প্রচন্ড ক্ষোভ। কিন্তু ক্রিকেট দলের প্রতি তাদের ভালোবাসার শেষ নেই। নাড়ির টান বলে কথা। টাইগারদের সমর্থন জানাতে আগ্রহ, উচ্ছ্বাসের শেষ নেই তাদের মধ্যে। বাংলাদেশের প্রতিটা ম্যাচেই গ্যালারি দখল করে নিচ্ছে লাল সবুজ রং।

কেনিংটন ওভালে গ্যালারির অবস্থা দেখে তো অবাক হয়েছিলেন নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক রস টেলর। ২৫ হাজার দর্শক ধারণ ক্ষমতা সম্পন্ন গ্যালিরর ২১ হাজারই বাংলাদেশি সমর্থক! বলেই ফেলেছিলেন,‘ আমার মনে হয় ইংল্যান্ডে নয়, খেলা হয়েছে ঢাকা অথবা চট্টগ্রামে।’

তার আগে দক্ষিণ আফ্রিকা ম্যাচেও দর্শক গ্যালারি ছিল লাল সবুজের দখলে। ২৫ হাজারের মধ্যে বড় জোড় হাজার ছয়েক দর্শক ছিলেন অন্য দেশের, বা প্রোটিয়া সমর্থক। কাডিফে হয়েছিল বাংলাদেশ ইংল্যান্ড ম্যাচ। বিস্ময়কর ব্যাপার হলো, ওই ম্যাচে গ্যালারির আনুপাতিক হার ছিল ৫০: ৫০। প্রবসীদের বেশিরভাগই ব্রিটিশ নাগরিক। মানে তাদের আসল দেশ হলো ব্রিটেন, বাংলাদেশ নয়। কিন্তু  নাড়ির টান যে কত বড় তার প্রমাণ দিয়ে বাংলাদেশকেই তারা সমর্থন করেছে। মানে ইংল্যান্ডের নাগরিক হয়েও সেই ইংল্যান্ডের বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছে তারা। গলা ফাটিয়েছেন সাকিবদের জন্য। এবং তা ব্রিটিশদের সামনেই। ব্যাপারটা কিন্তু মোটেও সহজ নয়। তারপরেও শিকড় ভুলে যায়নি প্রবাসীরা।

আজ নটিংহামে তো ৯৫ শতাংশ গ্যালারি বাংলাদেশি সমর্থকদের দখলে। লন্ডন থেকে নটিংহাম গাড়িতে প্রায় আড়াই ঘন্টার পথ। নটিংহামে খুব অল্প সংখ্যক বাঙালি বসবাস করেন। শুধু লন্ডন থেকে নয়, প্রবাসীরা খেলা দেখতে এসেছেন দূর দূরন্ত থেকে। লন্ডন, বর্মিংহাম, কাডিফ, ম্যানচেস্টার এমনকি ইংল্যান্ডের বাইরে থেকেও, যেমন প্যারিস, ইটালি,পর্তুগাল, স্পেন, আয়ারল্যান্ড।

নটিংহামের গ্যালারির ধারণ ক্ষমতা ১৭ হাজার ৫০০। এরমধ্যে মাত্র হাজার খানেক দর্শক অস্ট্রেলিয়ার সমর্থক। বাদ বাকি লাল সবুজের ভক্ত। যেন খেলা হচ্ছে মিরপুরে অথবা চট্টগ্রামে। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দুর্দান্ত জয়ে তারা উদ্বুদ্ধ।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বাংলাদেশের আজ ভাইটাল ম্যাচ। জিতলে শেষ চারের সমীকরণ সহজ হবে। হারলে সেমির আশা ক্ষিণ হয়ে যাবে। নটিংহামের পুরো গ্যালারি চাইছে অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে সেমিফাইনালের দিকে এগিয়ে যান বাংলাদেশ। কিন্তু পরিস্থিতি ভালো মনে হচ্ছে না।

(ঢাকাটাইমস/২০জুন/ডিএইচ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :