প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে ধর্ষণ মামলা, গ্রেপ্তার ২

জামালপুর প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৮ জুন ২০১৯, ১৬:৫৭

জামালপুরের মেলান্দহে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে নিজেই ধর্ষিত হয়ে মামলা করেছিলেন এক গৃহবধূ। এ ঘটনায় আইনজীবীর সহকারীসহ দুইজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার সকালে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব ঘটনার বর্ণনা দেন পুলিশ সুপার।
গ্রেপ্তাররা হলেন- মহুরি খোশনবী ও ফজল।

পুলিশ সুপার দেলোয়ার হোসেন জানান, মেলান্দহ উপজেলার বংশী বেলতৈল গ্রামের গৃহবধূ গুলেনুর বেগমের সাথে জমি নিয়ে তার চাচাত ভাই নুরনবীর বিরোধ চলে আসছিল। তাদেরকে মামলা দিয়ে ফাঁসাতে ব্যর্থ হয়ে জামালপুর জজ কোর্টের আইনজীবীর সহকারী (মহুরি) খোশনবী গৃহবধূকে মামলায় জিতিয়ে জমি পাইয়ে দেয়ার লোভ দেখিয়ে ধর্ষণ মামলা দেয়ার পরমর্শ দেন। মহুরির পরামর্শে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে ২৫ মে রাতে বেলতৈল দাখিল মাদ্রাসার পেছনে একটি ধান ক্ষেতে মহুরি খোশনবী নিজে উপস্থিত থেকে তারই লোক দিয়ে গৃহবধূকে ধর্ষণ করানো হয়। রাতেই ধর্ষিতাকে দুই কিলোমিটর দূরে কোলমালঞ্চ গ্রামে একটি বাড়িতে রেখে পরদিন তাকে উদ্ধার দেখিয়ে জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে চাচাত ভাই নুরনবী  ও ভগ্নিপতি ছাইরুল ইসলামকে আসামি করে গৃহবধূ গুলেনুর বেগম বাদী হয়ে মামলা করেন। আর এসব করার জন্য মহুরি গৃহবধূর কাছ থেকে ২২ হাজার টাকা গ্রহণ করে।

গৃহবধূ জবানবন্দি দেয়ার পর ঘটনার মূলনায়ক মহুরি খোশনবীকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে গতকাল ভোরে নায়ারণগঞ্জ ফতুল্লা থানার জামতলী থেকে ধর্ষক ফজলকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠানো হয়।
(ঢাকাটাইমস/২৮জুন/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :