যুক্তরাজ্যের নতুন প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২৩ জুলাই ২০১৯, ১৯:৫৪ | প্রকাশিত : ২৩ জুলাই ২০১৯, ১৯:৩০

যুক্তরাজ্যের নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে সাবেক পররাষ্ট্র সচিব বরিস জনসন নির্বাচিত হয়েছেন। মঙ্গলবার তিনি কনজারভেটিভ দলের ভোটাভুটির মাধ্যমে দলীয় প্রধান নির্বাচিত হন। বুধবার বর্তমান প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে’র কাছ থেকে বরিস জনসন দায়িত্ব গ্রহণ করবেন।

লন্ডনের সাবেক মেয়র বরিস জনসনের দীর্ঘদিন নিজের দেশের সেবা করার স্বপ্ন ছিল। নির্বাচনের জয়ের মাধ্যমে তিনি দেশকে সেবার সুযোগ পেলেন।

প্রায় এক লক্ষ ষাট হাজার কনজারভেটিভ দলের সদস্যের মধ্যে প্রতিদ্বন্ধী জেরেমি হান্ট ৪৬,৬৫৬ টি ভোট পান। অন্যদিক বরিস জনসন ৯২,১৫৩টি ভোট পেয়ে দলের প্রধান নির্বাচিত হন। ইতিমধ্যে পররাষ্ট্র সচিব জেরেমি হান্ট নির্বাচনের ফলাফল মেনে নিয়েছেন। তিনি নির্বাচিত প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানিয়েছেন। তিনি আশা করেন, বর্তমানে যুক্তরাজ্য যে কঠিন সময় পার করছে, নতুন প্রধানমন্ত্রী দক্ষতার সাথে চলমান সংকট নিরসন করতে পারবেন।

নির্বাচনে বিজয়ের পরে বরিস জনসন এক বক্তৃতায় জানান, তিনি তিনটি বিষয়কে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে কাজ করবেন। বেক্সিট ইস্যুর সমাধান, যুক্তরাজ্যকে ঐক্যবদ্ধ করা ও লেবার পার্টি দলের জেরেমি কোরবইয়ানকে পরাজিত করবেন।

নবনির্বাচিত প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, তিনি যুক্তরাজ্যের শক্তি বৃদ্ধির উদ্দেশ্যে কাজ করবেন। আগামী ৩১ অক্টোবরের মধ্যে বেক্সিট সমস্যার সমাধানের প্রতিশ্রুতি দেন।

বর্তমান প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে নির্বাচিত প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনকে অভিনন্দন জানিয়েছেন। যেকোন সংকটে পাশে থাকার প্রতিশ্রুতিও দিয়েছেন। বেক্সিট ইস্যুতে পদত্যাগের পূর্বে বরিস জনসন থেরেসা মে’র সরকারের পররাষ্ট্র সচিব হিসেবে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেছিলেন। 

নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণার সাথে সাথেই মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এক টুইট বার্তায় বরিসন জনসনকে অভিনন্দন জানিয়েছেন। তিনি আশা করেন, বরিস জনসন একজন মহান প্রধানমন্ত্রী হবেন।

যুক্তরাজ্যের রাণী দ্বিতীয় এলিজাবেথও বরিস জনসনকে অভিনন্দন জানিয়েছেন।

তবে, দলীয় অভ্যন্তরীণ কোন্দলের মধ্যেই বরিস জনসন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব নিতে যাচ্ছেন। নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণার পরে মন্ত্রিসভার অনেক সদস্য নির্বাচিত প্রধানমন্ত্রীর অধীনে কাজ না করার ঘোষণা দেন। ইতিমধ্যে বর্তমান শিক্ষামন্ত্রী এনে মিলটনা এক টুইট বার্তায় পদত্যাগের ঘোষণা প্রদান করেন। এ কারণে বরিস জনসনকে প্রাথমিকভাবে সরকার পরিচালনায় কিছুটা বেগ পেতে হবে। 

ঢাকাটাইমস/২৩জুলাই/আরআর

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :