মিয়ানমারের ২২২ সিমসহ তিন রোহিঙ্গা আটক

কক্সবাজার প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২১:৫৬ | প্রকাশিত : ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২১:১৮

কক্সবাজারের টেকনাফে মিয়ানমারের ২২২টি সিমসহ তিন রোহিঙ্গাকে আটক করেছে পুলিশ। তারা অবৈধভাবে ব্যবহারের জন্য সিমগুলো নিয়ে এসেছিল বলে জানিয়েছে সংস্থাটি।  

মঙ্গলবার বিকালে টেকনাফ স্থলবন্দরের প্রধান গেইট দিয়ে বের হওয়ার সময় নিরাপত্তারক্ষী ও আনসার সদস্যরা তিন রোহিঙ্গাকে আটক করে পুলিশকে খবর দেয়। পরে টেকনাফ মডেল থানার এসআই সাব্বিরুল ইসলাম তাদের থানায় নিয়ে যায়।

আটক তিনজন হলেন উখিয়া জামতলি রোহিঙ্গা শিবিরের মো. শরিফের ছেলে রবি আলম, ট্টলার শ্রমিক মুচনী রোহিঙ্গা শিবিরের মো. হোসেনের ছেলে মো. সালাম ও ট্রলার মাঝি মিয়ানমারের মংডু এলাকার নুরুল আলমের ছেলে নুরুল হাসান।

টেকনাফ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রদীপ কুমার দাশ জানান, ২২২টি এমপিটি নামক মিয়ানমারের মোবাইল সিম অবৈধভাবে বাংলাদেশে ব্যবহারের জন্য নিয়ে আসে। আটককৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান ওসি।

গণহত্যা ও নির্যাতনের মুখে ২০১৭ সালের আগস্ট মাসে কয়েক লাখ রোহিঙ্গা নাগরিক বাংলাদেশে এসে আশ্রয় নেয়। তাদেরকে নিজ দেশ মিয়ানমারে ফেরানোর চেষ্টা করেও তা সম্ভব হচ্ছে না। দুই দফায় রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের তারিখ নির্ধারিত হলেও তা কার্যকর হয়নি।

এদিকে ক্যাম্পে থাকা রোহিঙ্গারা নানা অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে জড়িয়ে যাচ্ছে বলে প্রায়ই অভিযোগ আসছে। ইতিমধ্যে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে বেশ কয়েকজন রোহিঙ্গা মারাও গেছে। মোবাইল ফোন ব্যবহার করে রোহিঙ্গারা অপরাধ করছে এমন তথ্যের ভিত্তিতে সম্প্রতি বিটিআরসিকে রোহিঙ্গাদের সিম বন্ধের নির্দেশ দেয়া হয়। তবে স্থানীয়দের নাম্বারও বন্ধ হয়ে যাবে এমন ঝামেলার কারণে রোহিঙ্গাদের সিম বন্ধ করা যাচ্ছে না।

এর মধ্যেই মিয়ানমারের সিমসহ ধরা পড়ল তিন রোহিঙ্গা। এই সিমগুলো ব্যবহার করে অপরাধ ঘটানোর পরিকল্পনা ছিল বলে ধারণা করছে পুলিশ। তাদের জিজ্ঞাসাবাদে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য বেরিয়ে আসতে পারে বলে আশা করছে সংস্থাটি।

(ঢাকাটাইমস/১৭সেপ্টেম্বর/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :