কুমিল্লায় মানব পাচারকারী চক্রের সদস্যসহ আটক ৬

কুমিল্লা প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৮:৩৫

কুমিল্লায় মানব পাচারকারী চক্রের তিন সদস্য ও তিন রোহিঙ্গা নাগরিককে আটক করেছে র‌্যাব। জেলার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার ধরকড়া বাজার এবং চিওড়া এলাকায় বিশেষ অভিযান চালিয়ে তাদের ছয়জনকে আটক করা হয়। সোমবার কুমিল্লার র‌্যাব ১১-সিপিসি-২ এর কার্যালয়ে এক প্রেস ব্রিফিংয়ের মাধ্যমে র‌্যাবের কোম্পানি অধিনায়ক মেজর তালুকদার নাজমুছ সাকিব এ তথ্য জানান।

পাচারকারী তিন সদস্য হলেন- উপজেলার কাপড় চতলী এলাকার আব্দুর রহিম রুবেল, নূরুল হক এবং ডিমাতলী এলাকার ফয়সাল আহাম্মেদ রনি। তাদের জিম্মা হতে তিনজন বাস্তুচ্যুত মিয়ানমার নাগরিককে (রোহিঙ্গা) উদ্ধার করা হয়।

আটক রোহিঙ্গাদের মধ্যে অপ্রাপ্ত বয়স্ক এক নারী এবং দুজন পুরুষ। তারা হলেন, বালুখালী পানবাজার রোহিঙ্গা ক্যাম্প-১৮ এর অপ্রাপ্ত বয়স্ক নারী, ট্যাংখালী রোহিঙ্গা ক্যাম্প-১৯ এর মোহাম্মদ আমির হোসেনের ছেলে মো. জাহেদ হোসেন (২৫) এবং উখিয়া কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্প-সি/৩ এর হাকিম শরিফের ছেলে মো. রফিক (৩৭)।

র‌্যাব অধিনায়ক মেজর তালুকদার নাজমুছ সাকিব বলেন, আসামিরা দীর্ঘদিন কক্সবাজারের বিভিন্ন রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে রোহিঙ্গাদের নানা প্রলোভন দেখিয়ে বিদেশে পাচারের উদ্দেশ্যে কুমিল্লাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে নিয়ে আসে। বাংলাদেশি পাসপোর্ট তৈরি করে মালয়েশিয়াসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে পাচার করে আসছে। আসামিদের বিরুদ্ধে কুমিল্লা জেলার চৌদ্দগ্রাম থানায় মামলা প্রক্রিয়াধীন।

র‌্যাব জানায়, চৌদ্দগ্রামের ধরকড়া বাজার এবং চিওড়া এলাকা থেকে গ্রেপ্তার হওয়া মানব পাচারকারী চক্রের তিন সদস্যকে আটকের পর তাদের কাছ থেকে বিপুল সংখ্যক ভুয়া পাসপোর্ট, ভুয়া জন্মসনদ, কাগজপত্র এবং সার্টিফিকেট তৈরির কাজে ব্যবহৃত তিনটি কম্পিউটার, দুটি প্রিন্টার, একটি স্ক্যানার, সাতটি মোবাইল ফোন এবং নগদ ৬০ হাজার ৫৪০ টাকা জব্দ করা হয়। এছাড়াও উদ্ধার রোহিঙ্গা নারীর ভুয়া জন্মসনদ জব্দ করা হয়, যা ওই পাচারকারী চক্র তৈরি করে তার মাধ্যমে পাসপোর্ট প্রস্তুত করে বিদেশে পাচার করার চেষ্টা করছিল।

(ঢাকাটাইমস/১৭ফেব্রুয়ারি/কেএম/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :