আবু রেজা মো. ইয়াহিয়ার বই

ঢাকাটাইমস ডেস্ক
 | প্রকাশিত : ০২ মার্চ ২০২০, ২২:৩২

মানুষের রহস্যময় মনোজগতের বিশ্লেষক আবু রেজা মো. ইয়াহিয়া। মানুষের অন্তর্নিহিত শক্তি ও মানবিক গুণাবলীর স্ফুরণে একজন ব্যক্তি হয়ে উঠতে পারে জগতে স্মরণীয়। অন্যদিকে, হতাশার করাল গ্রাসে এই মানুষটিই ছিটকে যেতে পারে সাফল্যের পথ থেকে। অনুপ্রেরণা ও দিকনির্দেশনামূলক প্রবন্ধের সমন্বয়ে লেখকের এবারের আয়োজন 'সুখ-সাফল্যের মায়াবী জগৎ'। চিত্রশিল্পী সৈয়দ লুৎফুল হকের প্রচ্ছদ বইটিতে যোগ করেছে দৃষ্টিনন্দন মাত্রা।

জীবননদীতে নিয়তই চলে সাফল্য-ব্যর্থতার জোয়ারভাটা। এ জোয়ার ভাটায় সফলতাকে বেছে নিয়ে সার্থকতার দিকে এগিয়ে যাওয়াই জীবনের উদ্দেশ্য। তবে জীবনের মায়াবী যে জগৎ রয়েছে তাতে প্রবেশ করতে প্রথমেই প্রয়োজন ইতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গি। মানবমনের রহস্যময় জলাশয়ের গহীনে সুখ ও দুঃখ দুটোই নিত্য খেলা করে। এই রহস্যময় জলাভূমির একটি পরিষ্কার মানচিত্র পাঠকদের সামনে উপস্থাপন করা হয়েছে। লেখকের জীবন থেকে নেয়া অভিজ্ঞতা, দূরদৃষ্টি ও প্রজ্ঞার সমন্বয়ে লেখা এই বইটিকে মলাটবদ্ধ করে প্রকাশ করেছে চয়ন প্রকাশন।

বইটির রচনাদর্শ সত্যিই ব্যতিক্রমী। বইটিতে স্থান পেয়েছে অসাধারণ সব বিষয়বস্তু- নীড় ছোট ক্ষতি নেই আকাশ তো বড়, নিজের দায়িত্ব নিজে নিন, শান্তি কোথা পাই, সুখের লাগিয়া এ ঘর বাঁধিনু, সুখ-দুঃখের সাতকাহন, মানুষ মানুষের জন্য, সময় গেলে সাধন হবে না, হৃদয় দিয়ে হৃদি অনুভব, জীবনের গল্প এতো ছোট নয়, কাজ দিয়ে বুনি স্বপ্নের জাল, পথ আমার গন্তব্য নয়-এবার আমি মানুষ হবো, অবিনশ্বরের তরে নশ্বরের অভিযাত্রা, দুঃখ কিসে যায়, ইতিবাচকতায় সাহস আসে, মহান স্রষ্টায় নিবেদন, জীবন সেতো বহুরুপী, চাপ-তাপ-উত্তাপ, এমপ্যাথি, আশায় বসতি, সফলতার চিরন্তন সূত্র, সফলতার অ আ ক খ, মানুষ চলে মনের বলে, আশা চাই ভালোবাসা চাই, লক্ষ্য হোক অটুট, ভয় কে জয় করে এগিয়ে যেতে হয়, সিদ্ধান্ত সিদ্ধান্তহীনতা আর দীর্ঘসূত্রতা, বর্তমানে বসবাস ও ঈগলের চোখ।

প্রতিটি বিষয়ই জীবনঘনিষ্ঠ যা নিমেষেই একটি পর্ব থেকে পরবর্তী পর্বের দিকে সহজেই টেনে নিয়ে যাবে। লেখক মন-মননে একজন দরদী মানুষ। তিনি স্বপ্ন দেখেন দরদী সমাজ ও মানবিক পৃথিবীর। বইটি পাঠককে সুখ সাফল্য বিষয়ে নতুন করে ভাবতে শেখাবে।

অনলাইন পরিবেশক রকমারির হটলাইন ১৬২৯৭- এ ফোন করে যে কেউ ঘরে বসে বইটি সংগ্রহ করতে পারবেন।

(ঢাকাটাইমস/২মার্চ/কেএম/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

সাহিত্য বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত