আরবি শিক্ষার নামে আত্মঘাতী হামলার দাওয়াত!

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৪ মার্চ ২০২০, ১৮:০০

নিষিদ্ধঘোষিত জঙ্গি সংগঠনের জেএমবির সদস্যরা ধর্মপ্রাণ মুসলিমদের দীনি দাওয়াতের মাধ্যমে সদস্য সংগ্রহ করতেন বলে জানিয়েছে র‌্যাব। এমন অভিযোগে সোমবার রাজধানীর মতিঝিল থানার আরামবাগ এলাকা থেকে গোপন বৈঠকের সময় নিষিদ্ধঘোষিত জঙ্গি সংগঠন জেএমবির তিনজন সক্রিয় সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন-রিদওয়ান মাহমুদ ফয়েজ মোহাম্মদ এবং মাহিন ফয়সাল। এ সময়ে তাদের কাছ থেকে বিপুল পরিমাণ উগ্রবাদী বই ও মোবাইলফোন উদ্ধার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃতদের বরাত দিয়ে র‌্যাব জানায়, গ্রেপ্তারকৃতরা তাবলিগের নামে ধর্মপ্রাণ মুসলিমদের দীনি দাওয়াতের মাধ্যমে সদস্য সংগ্রহ করত। এছাড়াও গ্রেপ্তারকৃত রিদওয়ান ঢাকা শহরের বিভিন্ন এলাকায় মসজিদে আরবি শিক্ষা দিতেন। তারা দীনি দাওয়াত ও আরবি শিক্ষার মাধ্যমে বিভিন্ন বয়সী স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় ও মেডিকেল কলেজের ছাত্রদের পাশাপাশি সমাজের সব শ্রেণি ও পেশার ধর্মপ্রাণ মুসলিমদের সাথে রিদওয়ান ও তার সহযোগীদের সখ্য গড়ে উঠে। এভাবে সখ্য গড়ে তোলার এক পর্যায়ে আরবি শিক্ষার আলোচনার ছলে রিদওয়ান ও তার সহযোগীরা আরবি শিক্ষার্থীদের মাঝে জিহাদ ও জেএমবির সম্পর্কে মতবাদ প্রচার করতে থাকে।

গ্রেপ্তারকৃতদের বরাত দিয়ে র‌্যাব আরও জানায়, পরে তাদেরকে আত্মঘাতী হামলা এবং জিহাদি হওয়ার জন্য উদ্বুদ্ধ করে। তাছাড়াও তারা বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভিন্ন ধরনের জিহাদি, আত্মঘাতী এবং উগ্রপন্থিমূলক ছবি, বয়ান, মন্তব্য এবং ভিডিও পোস্ট ও শেয়ার করতো এবং তাদের অনুসারীদেরকে এসব কাজে উদ্বুদ্ধ করত।

গ্রেপ্তারকৃত রিদওয়ান মাহমুদ নারায়ণগঞ্জ জেলার জালাল উদ্দিনের ছেলে, ফয়েজ মোহাম্মদ চাঁদপুর জেলার মো. রফিকুল ইসলামের ছেলে এবং মাহিন ফয়সাল গাজীপুর জেলার আব্দুস সাত্তার ভূইঁয়ার ছেলে বলে জানায় র‌্যাব।

(ঢাকাটাইমস/২৪মার্চ/এএ/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

অপরাধ ও দুর্নীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :