রাজধানীতে 'রেড জোন' নেই, আছে আংশিক লকডাউন

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস:
 | প্রকাশিত : ০৭ জুন ২০২০, ১৪:১৮

বৈশ্বিক মহামারি নভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে সরকার বিভিন্ন পদক্ষেপ নিলেও কোন সফলতা আসেনি। এবার রাজধানীসহ সারাদেশে করোনা রোধ করতে সংক্রমণের মাত্রার ওপর ভিত্তি করে রেড, ইয়েলো ও গ্রিন জোনে ভাগ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে কাজ শুরু করেছে সরকার।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ওয়েবসাইটে ঢাকা মহানগরীতে এখন পর্যন্ত পুরোপুরি লকডাউন (রেড জোন বিবেচিত) হিসেবে ঢাকার কোনো এলাকাকে দেখানো হচ্ছে না। তবে ৩৮টি এলাকাকে ইয়েলো জোন (আংশিক লকডাউন) এবং গ্রিন জোন (লকডাউন নয়) ১১টি এলাকাকে দেখানো হচ্ছে।

১ জুন সরকারের মন্ত্রী, সচিব ও পুলিশের ঊর্ধ্বতনদের একটি বৈঠক হয়। বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুয়ায়ী রেড জোন হিসেবে চিহ্নিত এলাকার লোকদের বাইরে বের হওয়া কিংবা বাইরে থেকেও রেড জোনে লোকদের প্রবেশ কড়াকড়ি আরোপ করা হবে।

আর সংক্রমণ কম বা ইয়েলো জোনে আক্রান্তদের ঘরবাড়ি লকডাউন করে সংক্রমণের বিস্তার ঠেকানো হবে। সেই সঙ্গে যে এলাকায় করোনা রোগী পাওয়া যায়নি, সেসব এলাকায় যাতে বাইরের কেউ ঢুকতে না পারে, সে ব্যবস্থা করা হবে।

রাজধানীতে আংশিক লকডাউন বলে চিহ্নিত ৩৮টি এলাকার মধ্যে রয়েছে- আদাবর, থানা, উত্তরা পূর্ব, উত্তরা পশ্চিম, ওয়ারী, কদমতলী, কলাবাগান, কাফরুল, কামরাঙ্গীরচর, কোতয়ালী, খিলক্ষেত, গুলশান, গেন্ডারিয়া, চকবাজার, ডেমরা, তেজগাঁও, তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল, দক্ষিণখান, দারুসসালাম, ধানমন্ডি, নিউমার্কেট, পল্টন মডেল, পল্লবী, বংশাল, বাড্ডা, বিমানবন্দর, ভাটারা, মিরপুর মডেল, মুগদা, মোহাম্মদপুর, যাত্রাবাড়ী, রমনা মডেল, লালবাগ, শাহআলী, শাহজাহানপুর, শেরেবাংলা নগর, সবুজবাগ, সুত্রাপুর ও হাজারীবাগ থানা।

লকডাউন নয় বলে চিহ্নিত ১১টি এলাকা হলো- উত্তরখান থানা, ক্যান্টনমেন্ট থানা, খিলগাঁও, তুরাগ, বনানী, ভাষানটেক, মতিঝিল, রামপুরা, রূপনগর, শাহবাগ ও শ্যামপুর থানা।

আজ থেকে চিহ্নিত এলাকাগুলোতে আংশিক লকডাউন বাস্তবায়ন করতে কাজ শুরু করবে পুলিশ। এরই মধ্যে বাহিনীটির দায়িত্বপ্রাপ্তদের এ নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

(ঢাকাটাইমস/৭জুন/এসএস/এইচএফ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :