‘কিট নিয়ে’ ওষুধ প্রশাসনের ডাক পেল গণস্বাস্থ্য

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৪ জুলাই ২০২০, ২২:৩৪

করোনার নমুনা পরীক্ষায় গণস্বাস্থ্যের উদ্ভাবিত কিট নিয়ে জল কম ঘোলা হয়নি। সবশেষ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেলের সুপারিশমতে কিটের অনুমোদন পায়নি গণস্বাস্থ্য। তবে তার হাল ছাড়েনি। বিষয়টি নিয়ে কথা বলতে ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তরে সময় চাওয়া হয়েছিল। তাতে সাড়া দিয়ে রবিবার গণস্বাস্থ্যের প্রতিনিধিদের আলোচনার জন্য ডাকা হয়েছে।

শনিবার রাতে এ তথ্য জানিয়েছেন গণস্বাস্থ্য সমাজভিত্তিক মেডিকেল কলেজের ভাইস প্রিন্সিপাল (উপাধ্যক্ষ) ও কোভিড-১৯ র‌্যাপিড ডট ব্লট কিট প্রকল্পের সমন্বয়ক ডা. মুহিব উল্লাহ খোন্দকার। তিনি বলেন, ‘আমরা সাক্ষাতের জন্য একটা শিডিউল চেয়েছিলাম। ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তর শিডিউল দিয়েছে। অ্যান্টিবডি কিট ফল প্রকাশ পরবর্তী মিটিংয়ের জন্য ডেকেছে আমাদের।’

অন্যদিকে বিকালে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের দপ্তর প্রধান জাহাঙ্গীর আলম মিন্টু এ সংক্রান্ত একটি সংবাদ বিজ্ঞপ্তি সাংবাদিকদের পাঠিয়েছেন। গণস্বাস্থ্যের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর বরাত দিয়ে জাহাঙ্গীর আলম মিন্টু বলেন, ‘ড্রাগ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আগামীকাল গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র আপডেটেড অ্যান্টিবডি কিটের তথ্য উপাত্ত জানতে কর্মকর্তাদের ডেকেছেন। ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তর যদি গণস্বাস্থ্যকে কিটের অনুমতি দেয় তাহলে জনগণের জন্য ১৫ দিনের মধ্যে ৫০০০ অ্যান্টিবডি কিট তৈরি করা যাবে।’

এতে আরও বলা হয়, ‘গণস্বাস্থ্যের গবেষকরা এরইমধ্যে ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তরের নির্দেশনা বজায় রাখার জন্য অ্যান্টিবডি কিট আপডেট করেছে। এখন এর বৈজ্ঞানিক নথি উপস্থাপনের জন্য আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। আমি (ডা. জাফরুল্লাহ) আশা করি, তারা এখন আমাদের কিটে পুরোপুরি সন্তুষ্ট হবে এবং অনুমতি দেবে।’

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, ‘কিট উন্নয়ন দলের প্রধান বিজ্ঞানী বিজন কুমার শিলের সঙ্গে বলে জানা গেছে তারা কিটের সংবেদনশীলতা আরও বৃদ্ধি করেছে। এখন এটি অ্যান্টিবডিটিকে আরও দক্ষতার সঙ্গে শনাক্ত করতে পারে।

বিজন শীল আরও জানিয়েছেন, ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তরের ৯০ শতাংশ সংবেদনশীলতা এবং ৯৫ শতাংশের সুনির্দিষ্টতা নির্ধারণ করেছে যে, অনুমোদনের জন্য গণস্বাস্থ্যের কিটটি অবশ্যই অর্জন করবে।’

(ঢাকাটাইমস/০৪জুলাই/বিইউ/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :