পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারে দিল্লিকে ঢাকার অনুরোধ

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৯:৪৫ | প্রকাশিত : ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৯:৪৪
ফাইল ছবি

গত বছরের মতো এবারও হঠাৎ করে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দিয়েছে প্রতিবেশী রাষ্ট্র ভারত। এতে বাংলাদেশের পেঁয়াজের বাজারে দেখা দিয়েছে অস্থিরতা। ৬০ টাকার পেঁয়াজ ইতিমধ্যে ১০০ টাকায় পর্যন্ত বিক্রি হচ্ছে। এজন্য বন্ধুপ্রতিম দেশটির এই সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারে এরই মধ্যে দিল্লিকে ঢাকা অনুরোধ করেছে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম।

মঙ্গলবার কয়েকটি বেসরকারি টেলিভিশনকে দেয়া সাক্ষাৎকারে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধের আগে বাংলাদেশকে জানানোর কথা থাকলেও জানায়নি ভারত। তবে আবার রপ্তানির বিষয়ে দিল্লির সঙ্গে আনুষ্ঠানিক আলোচনা শুরু হয়েছে।’

গতকাল সোমবার ভারতের পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধের খবর প্রকাশিত হলে রাজধানীর কোথাও কোথাও এই প্রয়োজনীয় পণ্যটির দাম বাড়িয়ে দিয়েছেন খুচরা ব্যবসায়ীরা। মাত্র একদিনের ব্যবধানে রাজধানীর বিভিন্ন বাজারে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, এরই মধ্যে শতকের ঘরে পৌঁছে গেছে পেঁয়াজের দাম।

গত বছর সেপ্টেম্বরের শেষ দিকে হঠাৎ করে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেয় ভারত। এতে বাংলাদেশে সব রেকর্ড ভঙ্গ করে পেঁয়াজের দাম কেজিতে ৩০০ টাকা পর্যন্ত পৌঁছে।

তবে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেছেন গতবারের অবস্থা এবার হবে না। তিনি বলেন, ‘আমরা বিকল্প বাজার থেকে পেঁয়াজ আমদানি করার চেষ্টা করবো। গত বছর থেকে আমাদের তো কিছু অভিজ্ঞতা হয়েছে। মিয়ানমার, টার্কি, ইজিপ্ট, চায়না থেকে। বাইরে থেকে আমদানি করা সম্ভব হলে পরিস্থিতি ভালো হবে।’

সরকারি বিক্রয় প্রতিষ্ঠান ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবির) মুখপাত্র মো. হুমায়ুন কবির বলছেন, আমরা বেশ কিছুদিন ধরেই ২৮৫টি পয়েন্টে কম দামে পেঁয়াজ বিক্রি করছি। সেই কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। পাশাপাশি অন্যান্য দেশ থেকেও পেঁয়াজ আমদানির যে নিয়মিত প্রক্রিয়া, সেটাও অব্যাহত রয়েছে।

(ঢাকাটাইমস/১৫সেপ্টেম্বর/এনআই/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :