স্বাস্থ্য কর্মকর্তাকে হুমকি, পাঁচদিনেও জিডি নেয়নি পুলিশ

ঝালকাঠি প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৯:৪৯

নলছিটি উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তাকে জীবননাশের হুমকির ঘটনায় পাঁচদিনেও সাধারণ ডায়েরির (জিডি) আবেদন গ্রহণ করেনি থানা কর্তৃপক্ষ। গত ১৯ সেপ্টেম্বর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. শিউলী পারভীন থানার ওসি বরাবরে লিখিত অভিযোগ দেন।

এ ব্যাপারে নলছিটি থানার ওসির সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, গত ১৬ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় নলছিটি উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মফিজুর রহমান শাহীন উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. শিউলী পারভীনকে মোবাইল ফোনে কল দেন। স্বাস্থ্য কর্মকর্তা কল গ্রহণ করে ‘কে বলছেন’ জানতে চান। এতে ভাইস চেয়ারম্যান তার নাম্বার চিনতে না পারার কারণে ক্ষিপ্ত হয়ে শিউলী পারভীনের সঙ্গে অশ্লীল ভাষা ব্যবহার করেন এবং জীবননাশের হুমকি দেন।

এক পর্যায় শাহীন বলেন, নলছিটিতে কিভাবে চাকরি করেন তা তিনি দেখে নেবেন। ডা. শিউলীকে উদ্দেশ করে শাহীন বলেন, নিজেকে ডাক্তার মনে করেন আপনার মতো দুজন আমাদের বাসায় কাজ করে।

শাহীনের হুমকিতে নিরাত্তাহীনতায় থাকা ডা. শিউলী পারভীন গত ১৯ সেপ্টেম্বর দুপুর ১২টায় নলছিটি থানায় অভিযোগ দিলেও থানা কর্তৃপক্ষ গত পাঁচদিনেও অজ্ঞাত কারণে কোনো আইনগত ব্যবস্থা বা অভিযোগ জিডি হিসেবে লিপিবদ্ধ করেনি।

ডা. শিউলী পারভীন এই প্রতিবেদককে বলেন, আমি নলছিটিতে নতুন এসেছি। সবার নাম্বার আমার ফোনে সেভ করা নেই, তবে বিশিষ্ট ব্যক্তিদের নাম্বার আমার ডায়রিতে লেখা আছে। নাম্বার সেভ না থাকার কারণে আমি ওনার পরিচয় জানতে চেয়ে বলি, ‘কে বলছেন প্লিজ’। এটা কি কোনো অপরাধ?

শিউলী বলেন, ‘কে বলছেন’ বলার পরপরই ভাইস চেয়ারম্যান সাহেব আমাকে অশ্লীল ভাষা ব্যবহার করে নানা হুমকি ধামকি দেয়া শুরু করেন। ভবিষ্যতে তিনি আমাকে বিপদের মধ্যে ফেলতে পারেন এ আশঙ্কায় এবং আমার নিরাপত্তার কারণে আমি থানায় অভিযোগ দিয়েছি। কিন্তু পাঁচদিন পার হলেও কেন থানা কর্তৃপক্ষ জিডি গ্রহণ করেনি তা আমি বলতে পারছি না। তবে এ ঘটনায় আমি আতঙ্কিত। আমি বিষয়টি সংসদ সদস্য মহোদয়, জেলা প্রশাসক, সিভিল সার্জন এবং উপজেলা চেয়ারম্যানকেও জানিয়েছি।

(ঢাকাটাইমস/২৩সেপ্টেম্বর/কেএম)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :