ভার্চুয়াল আর বাস্তবের জনপ্রিয়তায় বিস্তর তফাৎ আছে

আশরাফুল আলম খোকন
 | প্রকাশিত : ২৫ অক্টোবর ২০২০, ১২:৪৮

রাজনীতির জগৎ আর ভার্চুয়াল জগৎ এর বিস্তর তফাৎ। ভার্চুয়াল জগতের লাখ লাখ ভিউ কমেন্ট দেখে ভিমড়ি খাওয়া উচিত না। ভার্চুয়াল জগতের জনপ্রিয়তা দেখে অনেক মিডিয়া তাদেরকে প্রমোটও করতে পারে। ঐটা মিডিয়ার ব্যবসা। হোক না সমাজ কিংবা রাষ্ট্রের ক্ষতি। হোক সে মৌলবাদী গোষ্ঠী কিংবা অ্যাম্বাসির দালাল।

পত্রিকায় দেখলাম সম্প্রতি এক ভার্চুয়াল জগতের পপুলার একজনের সিনেমা মুক্তি পেয়েছে। সে ইউটিউবে কিংবা ফেসবুকে কিছু আপ দিলেই মিলিয়ন মিলিয়ন ভিউ হয়ে যায়। রাস্তায় দাঁড়ালে শত শত মানুষ তাকে ঘিরে ধরে। মিডিয়াও তার যেকোনো সংবাদ প্রমোট করতে কার্পণ্য করে না।

এই ভার্চুয়াল জনপ্রিয়তা দেখে তার মুক্তিপ্রাপ্ত সিনেমাটি অনেক সিনেমা হল মুক্তি দিয়েছে। অন্তত প্রথমবার বাম্পার হবে এই আশায়। কিন্তু আশায় গুড়েবালি। সিনেমা হলের ভিতরে দর্শকই হয় না কিন্তু ঐ হিরো ঘুরতে গেলে বাইরে দর্শকের অভাব নাই। ভার্চুয়াল জগৎটা আসলেই ভিতরে ফাঁপা। অবশ্য তা কিছুদিন স্থায়ী হয়।

ভার্চুয়াল মিডিয়া থেকে তাকে মূলধারাতে মিডিয়াই নিয়ে এসেছে। আর তাতে বিভ্রান্ত হয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে সিনেমা হলগুলো। সুতরাং ভার্চুয়াল রাজনীতিবিদদের মূলধারার মিডিয়াতে আনা উচিত না। তাদেরকে ওখানেই মানায়। ভার্চুয়াল জনপ্রিয়তা নিয়ে অনেকে সরকার পতনের স্বপ্ন দেখেন। যাদের পক্ষে ইউনিয়নের একজন চেয়ারম্যানকে ফেল করানো সম্ভব না।

লেখক: উপ-প্রেস সচিব, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়

ঢাকাটাইমস/২৫অক্টোবর/এসকেএস

সংবাদটি শেয়ার করুন

ফেসবুক কর্নার বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :