Breaking news

  •    দশম ও দ্বাদশ শ্রেণির সপ্তাহে ছয় দিন ক্লাস
  •    রোজাতেও চলবে ক্লাস
  •    স্কুল-কলেজ খুলছে ৩০ মার্চ

সোনার বার ছিনতাইয়ে গ্রেপ্তার পাঁচজন রিমান্ডে

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২০ জানুয়ারি ২০২১, ১৮:৩৩
ফাইল ছবি

সোনার বার ছিনিয়ে নেয়ার মামলায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক এসএম সাকিব হোসেন, সোর্স হারুন ও সিপাহী আমিনুলের তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত। একই মামলায় অপর দুই আসামি এমদাদুল ও আলমগীরের দুদিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত। এছাড়া গাড়িচালক ইব্রাহিম শিকদার স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

বুধবার আসামিদের ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করে পুলিশ। আসামি ইব্রাহিম শিকদার স্বেচ্ছায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিতে সম্মত হওয়ায় রেকর্ড করার আবেদন করেন তদন্তকারী কর্মকর্তা। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকা মহানগর হাকিম সাদবীর ইয়াসির আহসান চৌধুরী তার জবানবন্দি রেকর্ড করেন। এরপর তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

অন্যদিকে তদন্ত কর্মকর্তা মামলার সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে আসামি এমদাদুল ও আলমগীরকে সাত দিনের রিমান্ডে নেয়ার আবেদন করেন। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে আদালত দুই আসামির দুদিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এদিকে একই মামলায় গত মঙ্গলবার মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক এসএম সাকিব হোসেন, সোর্স হারুন ও সিপাহী আমিনুলের তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে আদালত।

গত সোমবার জীপন পাল ও রতন কুমার দোষ স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দেন।

৯০ ভরি সোনার বার ছিনিয়ে নেয়ার অভিযোগে গত ১২ জানুয়ারি পুরান ঢাকার জিন্দাবাহার লেনের এক ব্যবসায়ী কোতোয়ালি থানায় মামলা করেন।

মামলার অভিযোগে বলা হয়, গত ৭ জানুয়ারি ডিবি পুলিশ পরিচয়ে কয়েক ব্যক্তি বাদীকে তুলে নিয়ে ৯০ ভরি সোনার বার লুট করে নিয়ে যায়। অজ্ঞাত ওই ব্যক্তিরা নিজেদের ডিবি পুলিশ পরিচয় দেন।

এ ঘটনায় মামলা করা হলে কোতোয়ালি থানা পুলিশ প্রথমে ভুক্তভোগী ওই ব্যক্তির দুই কর্মচারীকে আটকের পর জিজ্ঞাসাবাদ করে। জিজ্ঞাসাবাদে তারা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক সাকিব হোসেনের নাম জানালে সিপাহী আমিনুল ও সোর্স হারুনসহ তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ মামলায় গ্রেপ্তার আটজনের মধ্যে তিনজন স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। অপর পাঁচ আসামি বিভিন্ন মেয়াদে রিমান্ডে রয়েছেন।

জানা গেছে, সহকারী পরিচালক সাকিব হোসেন মুন্সীগঞ্জ জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক হিসেবে কর্মরত। তবে মাসখানেক ধরে তিনি পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের একটি প্রশিক্ষণ কর্মশালায় অংশগ্রহণের জন্য রাজধানী ঢাকায় অবস্থান করছেন।

এ ব্যাপারে ঢাকা মহানগর পুলিশের লালবাগ বিভাগের উপকমিশনার বিপ্লব বিজয় তালুকদার ঢাকাটাইমসকে বলেন, ‘ওনাদের তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত। আমাদের তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করছি। তবে এখনো বিস্তারিত কিছুই জানতে পারিনি।’

(ঢাকাটাইমস/২০জানুয়ারি/এএ/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

আদালত বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :