প্রকাশনা শিল্পের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় মনোযোগী হওয়ার তাগিদ

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২৩ জানুয়ারি ২০২১, ১৬:১১ | প্রকাশিত : ২৩ জানুয়ারি ২০২১, ১৬:১০

প্রযুক্তির যুগে প্রকাশনা শিল্পের চ্যালেঞ্জ অনেক। আর সেই চ্যালেঞ্জগুলোকে মোকাবেলার বিষয়ে মনোযোগী হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন কৃষিমন্ত্রী ড. আবদুর রাজ্জাক।

শনিবার দুপুরে রাজধানীর রমনার ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে বাংলাদেশ পুস্তক প্রকাশনা ও বিক্রেতা সমিতির বার্ষিক সাধারণ সভায় মন্ত্রী এই পরামর্শ দেন। সভাটি উদ্বোধন করেন জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন।

কৃষিমন্ত্রী বলেন, ‘প্রকাশকেরা হাজার হাজার বছর ধরে জ্ঞান বিতরণ করে যাচ্ছেন। মানব সভ্যতার উন্নয়নে এটি মহৎ পেশা। অনেকে জীবনের ঝুঁকি নিয়েও বই প্রকাশ করে যাচ্ছেন। পুস্তক বিক্রেতারা ব্যবসায়ী হলেও তাদের কাজটা মহৎ। তবে এই পেশাগুলোতে রাতারাতি ধনী হওয়ার সুযোগ নেই। ধৈর্য ধরে ধীরে ধীরে এগোতে হবে।’

আবদুর রাজ্জাক বলেন, ‘দেশে প্রিন্টের মান বেড়েছে। কারণ বইয়ের প্রচ্ছদ, বার্ষিক প্রকাশনা এগুলো অনেক উন্নত হয়েছে। তাই দেশের প্রিন্টিং শিল্প অনেকটা আন্তর্জাতিক মানের হয়েছে। এর ভূমিকায় রয়েছেন প্রকাশকরা। এই বিকশিত করেছেন আপনারা।’

তথ্যপ্রযুক্তির যুগে চ্যালেঞ্জ থাকলেও তা মোকাবেলা করতে হবে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘আমি শুধু এতটুকুই বলতে চাই আপনাদের সামনে অনেক চ্যালেঞ্জ রয়েছে। এগুলো আপনারা কেউ বলেন না। কারণ এই আইসিটির যুগে প্রকাশনা শিল্পের বিরাট চালেঞ্জ রয়েছে। তবুও আমি বিশ্বাস করি, বই পড়ার যে আনন্দ সেটা কম্পিউটারে পড়ায় কখনোই হবে না। তাই আমার দৃঢ় বিশ্বাস, প্রকাশনা শিল্প ভালোভাবে বেঁচে থাকবে। তবে এটা মোকাবেলা করার জন্য প্রযুক্তিগত দিক থেকে উন্নত হওয়ার কিংবা কীভাবে টিকে থাকা যায় সে বিষয়ে ভাবতে হবে।’

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলেন, ‘পোশাকের পাশাপাশি পুস্তকও বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনের অংশীদার হতে পারে।’ বইয়ের দোকান যেন সুন্দরভাবে উপস্থাপন করা হয় সে বিষয়ে অনুরোধ করেন প্রতিমন্ত্রী।

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগে সভাপতি আবু আহমেদ মান্নাফি বইয়ে নির্ভুল প্রিন্টের মাধ্যমে তথ্য উপস্থাপনের ক্ষেত্রে আরও অবদান রাখতে প্রকাশকদের প্রতি আহ্বান জানান।

অনুষ্ঠানে বক্তারা প্রকাশনাকে শিল্প হিসেবে ঘোষণা করার জোর দাবি জানান। প্রকাশনা ব্যবসাকে কোনো ধরনের আইন দ্বারা নিয়ন্ত্রণ না করার অনুরোধও করেন। এছাড়া বই বিক্রির বিষয়ে অভিন্ন নীতিমালা চান বিক্রেতারা।

বাংলাদেশ পুস্তক প্রকাশনা ও বিক্রেতা সমিতি সভাপতি আরিফ হোসেন ছোটনের সভাপতিত্বে আরও উপস্থিত ছিলেন সিনিয়র সহসভাপতি কায়সার-ই- আলম প্রধান, সহসভাপতি শ্যামল পাল ও মির্জা আলী আশরাফ, রাজধানী শাখার সভাপতি মাজহারুল ইসলাম, সাবেক সভাপতি আলমগীর শিকদার লোটন, উপদেষ্টা ওসমান গণি ও বাহাউদ্দিন ভূইয়া প্রমুখ।

(ঢাকাটাইমস/২৩জানুয়ারি/টিএটি/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :