এক বছর আগেই মৃত্যু হয়েছে তালেবান প্রধান আখুন্দজাদার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
 | প্রকাশিত : ১৬ অক্টোবর ২০২১, ০৮:৫৫

আফগানিস্তানে তালেবান নতুন করে ক্ষমতায় আসার পর হিবাতুল্লা আখুন্দজাদার নাম বারবার সামনে এসেছে। তিনিই নব গঠিত সরকারের অন্যতম মাথা হবেন, তেমনটাও শোনা গিয়েছিল। কিন্তু, গত কয়েক মাসে তাকে প্রকাশ্যে আসতে দেখা যায়নি। শুধু ইন্টারনেটে তার একটি মাত্র ছবিই দেখা গিয়েছে। অবশেষে তালেবানের এক নেতা জানিয়েছেন যে এক বছর আগেই মৃত্যু হয়েছে তাদের সুপ্রিম লিডারের।

পাকিস্তানের বাহিনীর হাতে তার মৃত্যু হয়েছে বলে দাবি করেন প্রবীণ তালেবান নেতা আমির আল মুমিনিন। ভারতের নিউজ১৮ কে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে ওই তালেবান নেতা বলেন, ‘পাক–বাহিনীর কষা ছকেই একটি আত্মঘাতী হামলায় গত বছর শহিদ হয়েছেন হিবাতুল্লা আখুন্দজাদা।’

গত অগস্ট মাসে তালিব বাহিনী কাবুল দখল করার পর থেকেই আখুন্দজাদাকে নিয়ে একাধিক প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছিল। শোনা গিয়েছিল, পাক-বাহিনীর হেফাজতে রয়েছেন তিনি। কিছু সূত্র দাবি করেছিল, পাক-বাহিনীর হাতেই তার মৃত্যু হয়েছে।

নিউইয়র্ক পোস্টে উল্লেখ করা হয়েছে, ইন্টারনেটে হিবাতুল্লা আখুন্দজাদার যে ছবি দেখা যায়, তা বহু বছরের পুরনো। আফগানিস্তানে নয়া তালেবান সরকার ঘোষণার সময়েও শোনা গিয়েছিল আখুন্দজাদার নাম। মনে করা হয়েছিল আখুন্দজাদার নেতৃত্বেই সরকার চালানোর পরিকল্পনা রয়েছে তালিবানের। কিন্তু, শেষ পর্যন্ত তেমনটা হয়নি। এরপরই প্রশ্ন উঠতে শুরু করে আদৌ বেঁচে আছেন আখুন্দজাদা?

২০১৬ তে তালেবান নেতা মোল্লা আখতার মনসুর একটি ড্রোন হামলায় নিহত হন। এরপরই ক্ষমতা আসে আখুন্দজাদার হাতে। সেই সময় থেকেই তালেবানের মাথা ছিলেন আখুন্দজাদা। তালেবানের রাজনৈতিক, সামরিক বা ধর্মীয় ক্ষেত্রে শেষ কথা বলতেন তিনিই। তালিবান কীভাবে চলবে, কোথায় ক্ষমতায় আসবে আর কোথায় ক্ষমতা ভাঙবে সেটাও নাকি বলতেন তিনিই। আফগানিস্তানে কান্দাহার প্রদেশে থাকতেন এই নেতা।

ঢাকাটাইমস/১৬অক্টোবর/একে

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :