ডা. মুরাদের দপ্তরেও স্বস্তির হাওয়া!

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ০৭ ডিসেম্বর ২০২১, ১০:৫১ | প্রকাশিত : ০৭ ডিসেম্বর ২০২১, ১০:৪৮

কুরুচিপূর্ণ ও বিভিন্ন বিতর্কিত বক্তব্যের কারণে ফেঁসে গেছেন তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান। বিশেষ করে একাধিকার নারীদের নিয়ে ‘আপত্তিকর’ এবং ‘আজেবাজে’ কথা বলে নেট দুনিয়ায় সমালোচনার পাত্র হয়েছেন তিনি। দলের ভেতরেও সমালোচনা কম হয়নি এই চিকিৎসককে নিয়ে। বিতর্কিত নানা মন্তব্য করা মুরাদ হাসান শেষ পর্যন্ত প্রতিমন্ত্রীর পদ খোয়াতে বসেছেন। আর এমন খবরে স্বস্তির হাওয়া লেগেছে তার নিজ মন্ত্রণালয়েও।

জানা গেছে, দায়িত্ব পালনকালে মুরাদ হাসান নিজ মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের নানা সময় গালিগালাজ করতেন। তাছাড়া হুমকি ধামকি অনেকটা নিত্যদিনের ঘটনা ছিল। প্রতিমন্ত্রীর পদ খোয়ানোর খবর শোনার পর মুরাদের মন্ত্রণালয়ের দপ্তরের কর্মর্তা-কর্মচারীদের মনে স্বস্তির হাওয়া লেগেছে।

নারীদের নিয়ে বিতর্কিত বক্তব্যের পর নায়িকাকে ধর্ষণের হুমকি দিয়ে কথা বলার ঘটনা ফাঁস হয়ে যাওয়ার পর প্রতিমন্ত্রীর এসব বিষয় সামনে আসতে শুরু করেছে। এতদিন এসব ঘটনা নিয়ে মুখ বুঝে সহ্য করলেও তাকে পদত্যাগ করতে নির্দেশ দেওয়ার খবরের পর কেউ কেউ তাদের তিক্ত অভিজ্ঞতার কথা বলছেন। অনেকে স্বস্তি প্রকাশ করছেন।

জানা গেছে, বাজে আচরণের জন্য কয়েকজন তার দপ্তর থেকে দায়িত্বও ছেড়েছেন। একান্ত সচিব (পিএস) ও সহকারী একান্ত সচিবের (এপিএস) দায়িত্বে থাকা কর্মকর্তাদেরও ছাড়তেন না ডা. মুরাদ। এসব কারণে দায়িত্বও ছেড়েছেন কয়েকজন কর্মকর্তা।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক প্রতিমন্ত্রীর দপ্তরের সাবেক এক কর্মকর্তা বলেন, তার ব্যবহার অত্যন্ত খারাপ ছিল। গালি কাকে বলে, তার সঙ্গে কাজ না করলে বুঝবেন না।

মন্ত্রণালয়ের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাকে প্রতিমন্ত্রী বলেছিলেন, ‘তোকে লাথি মারব’।

অন্য একটি ঘটনার ব্যাপারে ওই কর্মকর্তা বলেন, আরেকজনকে ফাইল দিয়ে মারার জন্য উদ্যত হয়েছিলেন প্রতিমন্ত্রী মুরাদ। বলেছিলেন, ‘তোকে আজ শেষ করে দেব।’ প্রতিমন্ত্রী মুরাদ সীমালঙ্ঘন করেছেন বলেও মনে করেন ওই কর্মকর্তা। আর তাই তার পদ খোয়ানোর খবরে মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাকে স্বস্তি পেয়েছেন বলে জানান তিনি।

সোমবার রাতে মুরাদ হাসানকে মন্ত্রিসভা থেকে পদত্যাগ করতে নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের প্রধানমন্ত্রীর সেই নির্দেশনার কথা গণমাধ্যম কর্মীদের জানান। আজ যেকোনো সময় তিনি আনুষ্ঠানিকভাবে পদত্যাগ পত্র জমা দেবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এদিকে ডা. মুরাদকে পদত্যাগ করতে হচ্ছে এমন খবর শোনার পরই তার নির্বাচনী এলাকা জামালপুরের সরিষাবাড়িতে আনন্দ মিছিল করেছেন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। প্রধানমন্ত্রীর সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়ে তারা মিষ্টিও বিতরণ করেন।

ঢাকাটাইমস/০৭ডিসেম্বর/বিইউ/এমআর

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

জাতীয় এর সর্বশেষ

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :