আশুলিয়ায় স্কুলছাত্রের হাতে শিক্ষক হত্যার প্রতিবাদ চবিতে

চবি প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৮ জুন ২০২২, ১৯:৫৫

ঢাকার আশুলিয়ায় হাজী ইউনুস আলী স্কুল অ্যান্ড কলেজের প্রভাষক ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজনীতি বিজ্ঞান বিভাগের সাবেক শিক্ষার্থী উৎপল কুমার সরকারকে হত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) শিক্ষার্থীরা।

মঙ্গলবার (২৮ জুন) বেলা ১২টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শহিদ মিনার প্রাঙ্গণে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

উৎপল কুমার চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজনীতি বিজ্ঞান বিভাগের ৪১তম ব্যাচের শিক্ষার্থী ছিলেন।

শনিবার (২৫ জুন) দুপুর ২টার দিকে আশরাফুল ইসলাম জিতু (১৬) নামের এক শিক্ষার্থীর আঘাতে আহত হন তিনি। পরে সোমবার (২৭ জুন) ভোর সোয়া ৫টার দিকে এনাম মেডিকেল কলেজ অ্যান্ড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের ৪১ তম ব্যাচের শিক্ষার্থীদের ব্যানারে আয়োজিত এ মানববন্ধনে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করেন।

উৎপল কুমারের সহপাঠী রাজনীতি বিজ্ঞান বিভাগের ৪১ তম ব্যাচের শিক্ষার্থী আব্দুল্লাহ আল মামুন স্মৃতিকাতর হয়ে বলেন, 'উৎপল খুব বিনয়ী একজন মানুষ ছিলেন। তবে অন্যায়ের কাছে কখনও আপোষ করত না। উৎপল একজন স্পষ্টবাদী মানুষ ছিল। ওর এই হত্যাকাণ্ড আমার আমাদের সবার জন্য বেদনাদায়ক। কারণ একজন শিক্ষকের মৃত্যু মানে একজন কারিগরের মৃত্যু। একজন উৎপলের অভাব কখনো পূরণ হবার নয়।

আশুলিয়ায় তার এই নির্মম মৃত্যুতে অভিযুক্তের সুষ্ঠু বিচারের দাবিও জানান তিনি।

মানববন্ধনে বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজনীতি বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. ভূঁইয়া মো. মনোয়ার কবির বলেন, মানুষ গড়ার কারিগর, যারা জাতির মেরুদণ্ড তাদের ওপর এমন সন্ত্রাসী হামলা অত্যন্ত কষ্টদায়ক। একজন ছাত্রের হাতে শিক্ষক হত্যা, এর চেয়ে দুঃখজনক বিষয় আর কী হতে পারে? শিক্ষকরা হচ্ছে ছাত্রদের মাথার মুকুট সমতূল্য । কিন্তু একজন ছাত্রের হাতে যখন একজন শিক্ষক খুন হন,বিষয়টা অকল্পনীয়। আমি আজকের মানববন্ধন থেকে আমার ছাত্র উৎপল হত্যার বিচারের দাবি জানাচ্ছি।

নৃবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. রহমান নাসির উদ্দিন বলেন, যেখানে একজন ছাত্রের হাতে শিক্ষক খুন হওয়ার চিত্র দেখতে হচ্ছে। যে শিক্ষার্থীকে আমি পড়াই, আমি আলোড়িত করি- সেই ছাত্রের আঘাতে আমার মৃত্যুবরণ করতে হবে তার চাইতে দুঃখের আর কিছু হতে পারে না। আমাদের সমাজের অগ্রযাত্রাকে ধারণ করতে হবে। শিক্ষককে পিতৃতুল্য ভাবতে হবে। সমাজে একটা সংস্কার দরকার।

জানা যায়, শিক্ষক উৎপল সরকার সিরাজগঞ্জ জেলার উল্লাপাড়ায় থানার এঙ্গেলদানি গ্রামের মৃত অজিত সরকারের ছেলে। তিনি প্রায় ১০ বছর ধরে আশুলিয়ার চিত্রশাইল এলাকার হাজী ইউনুস আলী স্কুল অ্যান্ড কলেজের কলেজ শাখার রাষ্ট্র বিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক এবং শৃংখলা কমিটির সভাপতি হিসাবে দায়িত্ব পালন করছিলেন। শৃংখলা কমিটির সভাপতি থাকার কারণে সকল ছাত্রদের সকল আচরণগত সমস্যা নিয়ে কাউন্সেলিং করতে হতো তাকে। শিক্ষার্থী জিতু (১৬) আশুলিয়ার চিত্রশাইল এলাকার উজ্জ্বল হাজীর ছেলে। সে হাজী ইউনুস আলী স্কুল অ্যান্ড কলেজের দশম শ্রেণির বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্র।

(ঢাকাটাইমস/২৮জুন/এআর)

সংবাদটি শেয়ার করুন

শিক্ষা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিক্ষা এর সর্বশেষ

বুয়েটে ছাত্রলীগের সাবেক নেতাদের সভা, শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

ভর্তি পরীক্ষার্থী ও অভিভাবকদের পাশে ইবি ছাত্রলীগ

জাবি উপ-উপাচার্য নুরুল আলমের মেয়াদ শেষ হবে রবিবার

কুবিতে গুচ্ছের 'বি' ইউনিটের পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন

রাবিতে ‘বিডিঅ্যাপস হ্যাকাথন’ এর আঞ্চলিক পর্ব অনুষ্ঠিত

জাবি উপাচার্য প্যানেল নির্বাচনে জয়ী তিন অধ্যাপক আমির আলম অজিত

জাবির উপাচার্য প্যানেল নির্বাচনে প্রথম হলেন অধ্যাপক আমির হোসেন

উপাচার্য নির্বাচনে জাবি অধ্যাপক মোতাহার হোসেনের প্রার্থিতা প্রত্যাহার

রাবিতে পাওয়া গেল ৭ ফুটের বিষধর খৈয়া গোখরা

গুচ্ছের বি ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষার জন্য প্রস্তুত কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :