হিরোশিমায় পারমাণবিক বোমা হামলার ৭৭ বছর

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ০৬ আগস্ট ২০২২, ১৬:৫১ | প্রকাশিত : ০৬ আগস্ট ২০২২, ১৬:৪২

জাপানের হোনশু দ্বীপে অবস্থিত আধুনিক শহর হিরোশিমা। আজ থেকে ঠিক ৭৭ বছর আগে, ১৯৪৫ সালের ৬ আগস্ট, শহরটিতে ঘটে যায় পৃথিবীর ইতিহাসের নিকৃষ্টতম ঘটনা। শহরটি সেদিন বিশ্বের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো পারমাণবিক হামলার শিকার হয়। শহরের বাসিন্দারা শনিবার সকালে হামলার ৭৭তম বার্ষিকীতে নিহতদের স্মরণ ও শান্তি কামনা করতে জড়ো হয়।

৬ আগস্ট, ১৯৪৫ সাল, স্থানীয় সময় সকাল ৮:১৫ মিনিট, ইউএস বি-২৯ যুদ্ধবিমান এনোলা গে ‘লিটল বয়’ নামে একটি পারমাণবিক বোমা ফেলে হিরোশিমায়। হামলাটি আনুমানিক ৩ লাখ ৫০ হাজার জনসংখ্যার শহরটিকে ধ্বংস করে দেয়। জীবিতদের মধ্যে অনেকে আহত হয়। আহত এবং তেজস্ক্রিয়তার প্রভাবে অসুস্থ হয়ে পরবর্তীতে আরও হাজার হাজার মানুষ মারা যায়।

হিরোশিমায় পারমাণবিক হামলার ঘটনা স্মরণ করে বর্তমান বিশ্বে চলমান ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধে পরিপ্রেক্ষিতে নতুন অস্ত্র প্রতিযোগিতা সম্পর্কে সতর্ক বার্তা দিয়েছেন জাতিসংঘের মহাসচিবসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা।

বার্তাসংস্থা রয়টার্স জানায়, ১৯৪৫ সালের ৬ আগস্ট হিরোশিমায় পারমাণবিক বোমা হামলায় নিহত ১ লাখ ৪০ হাজার মানুষের স্মরণে শহরের কেন্দ্রস্থলে পিস পার্কে হাজার হাজার বাসিন্দা জড়ো হয়েছে। তাদের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস।

সেখানে গুতেরেস বলেন, ‘পারমাণবিক অস্ত্র নির্বুদ্ধিতা। মৃত্যু এবং ধ্বংস ছাড়া এগুলো কোনো নিরাপত্তার নিশ্চয়তা দেয় না। এক শতাব্দীর তিন চতুর্থাংশ পরে, আমাদের অবশ্যই প্রশ্ন করতে হবে যে আমরা ১৯৪৫ সালে এই শহরের ওপরে ফুলে ওঠা মাশরুম মেঘ (পারণবিক হামলার পর সৃষ্ট মেঘের মতো ধোঁয়া যার আকৃতি মাশরুমের মতো) থেকে কী শিখেছি।’

হিরোশিমা (বামে) ও নাগাসাকিতে (ডানে) পারমাণবিক বোমা হামলার পর সৃষ্ট মাশরুম মেঘ

হিরোশিমার মেয়র কাজুমি মাতসুই এই বছর অনুষ্ঠানে রাশিয়ান রাষ্ট্রদূতকে আমন্ত্রণ জানাননি। তিনি ইউক্রেনে মস্কোর সামরিক পদক্ষেপের সমালোচক ছিলেন।

মাতসুই বলেছিলেন, ‘জনগণের জীবন ও সম্পত্তি রক্ষার জন্য নির্বাচিত রাশিয়ান নেতা ইউক্রেন আক্রমণ করার সময় তাদেরকে যুদ্ধের হাতিয়ার হিসাবে ব্যবহার করছেন। একটি ভিন্ন দেশে বেসামরিক মানুষের জীবন ও জীবিকা লুট করেছেন। এ থেকে আমরা বুঝতে পারি বিশ্বজুড়ে শান্তি পারমাণবিক প্রতিরোধের ওপর নির্ভর করে।’

বৃহস্পতিবার জাপানে রাশিয়ার রাষ্ট্রদূত মিখাইল গালুজিন পার্কের একটি স্মারক স্তম্ভে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানিয়েছিলেন এবং সাংবাদিকদের বলেছিলেন তার জাতি কখনই পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহার করবে না।

৬ আগস্ট হিরোশিমায় হামলার পর ৯ আগস্ট আরেক শহর নাগাসাকিতেও মার্কিন সামরিক বাহিনী পারমাণবিক হামলা চালায়। সে হামলায় তাৎক্ষণিকভাবে ৭৫ হাজারের বেশি মানুষ মারা যায়। জাপান হামলার ছয় দিন পর আত্মসমর্পণ করে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের অবসান ঘটায়।

(ঢাকাটাইমস/৬আগস্ট/এসএটি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আন্তর্জাতিক এর সর্বশেষ

করোনার পর বাদুড় থেকে ছড়াচ্ছে নতুন এক ভাইরাস

ইউক্রেনে রাশিয়ার সামরিক বাহিনীর সদস্যদের আত্মসমর্পণের আহ্বান জেলেনস্কির

ইরানে অন্তত ৬০ নারীসহ সাত শতাধিক বিক্ষোভকারী আটক

সশস্ত্র গোষ্ঠীর হামলায় নাইজেরিয়ায় মসজিদে নিহত ১৫

রিজার্ভ সৈন্য তলবের প্রতিবাদে বিক্ষোভে শত শত রুশ নাগরিক গ্রেপ্তার, উপ-প্রতিরক্ষামন্ত্রী বরখাস্ত

শাসন করায় শিক্ষককে ছাত্রের তিন রাউন্ড গুলি!

বিশ্বজুড়ে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় কমেছে মৃত্যু

পুতিন ইউক্রেনে পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহার করলে পরিণতি কী

কংগ্রেস সভাপতি নির্বাচনের মনোনয়নপত্র নিলেন শশী থারুর

পরমাণু অস্ত্র নিয়ে মোটেও ধাপ্পাবাজি করছেন না পুতিন: ইইউ

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :