পরকীয়া সন্দেহে স্ত্রীকে টুকরো টুকরো করে কাটলেন স্বামী

ঢাকাটাইমস ডেস্ক
| আপডেট : ২৪ নভেম্বর ২০২২, ১২:৫১ | প্রকাশিত : ২৪ নভেম্বর ২০২২, ১১:৩৫

ভারতের দিল্লির হত্যাকাণ্ডের ছায়া এবার উত্তরপ্রদেশে! স্ত্রীকে খুন করে দেহ টুকরো টুকরো করে ফেলার অভিযোগ স্বামীর বিরুদ্ধে। নিহত মহিলার নাম জ্যোতি। দিল্লিতে শ্রদ্ধা নামের একটি মেয়েকে হত্যার পর যেমন টুকরো টুকরো করে কাটা হয়েছিল, জ্যোতির অবস্থাও তাই হয়েছে।

ঘটনাটি উত্তরপ্রদেশের সীতাপুরের। জ্যোতিকে খুনের অভিযোগে তার স্বামী পঙ্কজ মৌর্য এবং পঙ্কজের বন্ধু দুর্জন পাসিকে ইতোমধ্যেই গ্রেপ্তার করেছে সীতাপুর পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে খবর, উত্তরপ্রদেশের সীতাপুর জেলার রামপুর কালান থানার অন্তর্গত গুলারিহা থেকে ৮ নভেম্বর জ্যোতির টুকরো করা মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। এরপরই তদন্তে নামে পুলিশ। তদন্ত চলাকালীন পুলিশ প্রথমে পঙ্কজ এবং পরে দুর্জনকে গ্রেপ্তার করে।

পুলিশ এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, অভিযুক্ত পঙ্কজ পুলিশের কাছে স্বীকার করেছেন যে, তিনি তার বন্ধুকে সঙ্গে নিয়ে স্ত্রীকে খুন করেছেন।

পঙ্কজ জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছেন, জ্যোতি নিয়মিত মাদকসেবন করতেন। দীর্ঘ দিন বাড়ি ছেড়ে অন্য এক যুবকের বাড়িতে থাকতেও শুরু করেছিলেন। এ নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে সম্পর্ক খারাপ হয়।

এরপরই জ্যোতি বিবাহ-বহির্ভূত সম্পর্কে জড়িয়ে গেছে মনে করে তাকে খুন করার সিদ্ধান্ত নেন পঙ্কজ। বন্ধুর সাহায্যে জ্যোতিকে খুন করেন তিনি। দেহ টুকরো টুকরো করে ছড়িয়ে দেওয়া হয় আলাদা আলাদা জায়গায়।

এদিকে মাস ছয়েক আগে গত ১৮ মে দিল্লির মেহরৌলীতে একত্রবাসে থাকা প্রেমিকা শ্রদ্ধা ওয়ালকরকে খুনের অভিযোগ রয়েছে প্রেমিক আফতাব আমিন পুনাওয়ালার বিরুদ্ধে।

অভিযোগ, এরপর তিনি শ্রদ্ধার দেহ ৩৫ টুকরো করেন। সেই মৃতদেহ সংরক্ষণ করে রাখতে কেনা হয়েছিল নতুন ফ্রিজও। পরে ১৮ দিন ধরে ছতরপুর ছিটমহলের জঙ্গলের বিভিন্ন জায়গায় শ্রদ্ধার দেহের টুকরোগুলো ছড়িয়ে দিয়ে আসা হয়।

শ্রদ্ধার বাবার অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তে নেমে দিল্লি পুলিশ গত ১২ নভেম্বর আফতাবকে গ্রেপ্তার করে। সেই নিয়েই চলছে তদন্ত। তদন্তে নেমে একাধিক প্রমাণ উঠে এসেছে পুলিশের হাতে। তারই মাঝে একই ধরনের ঘটনা উত্তরপ্রদেশে।

(ঢাকাটাইমস/২৪নভেম্বর/এজে)

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আন্তর্জাতিক এর সর্বশেষ

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :