মিছিলের নগরী রাজশাহী, পথে পথে পুলিশি তল্লাশি, ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না মাঠে

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী
 | প্রকাশিত : ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ১৯:৪১

রাজশাহীতে বিএনপির গণসমাবেশ শনিবার (৩ ডিসেম্বর) । এই সমাবেশকে কেন্দ্র করে পথে পথে তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ। রাজশাহীর বিভিন্ন প্রবেশদ্বার থেকে শুরু করে রাজশাহী রেল স্টেশনেও চলছে তল্লাশি। বিএনপি নেতাদের অভিযোগ, তল্লাশি করতে গিয়ে সমাবেশে আসা নেতাকর্মীদেরকে হয়রানি করছে পুলিশ। আবার অনেককেই রাজশাহী শহরে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না। তাদেরকে বাড়ি ফেরত পাঠানো হচ্ছে। গত বুধবার থেকে এই অবস্থা চালাচ্ছে পুলিশ বলে অভিযোগ বিএনপি নেতাদের। শুক্রবার সন্ধ্যায়ও সমাবেশস্থলে ঢুকতে দেওয়া হয়নি নেতাকর্মীদের। সভাস্থলে ঢুকতে না পেরে বিভিন্ন জেলা থেকে আগত নেতাকর্মীরা বিক্ষোভ করছেন পুরো শহরে।

এদিকে রাজশাহীতে বিএনপির সমাবেশের জন্য বুধবার (১ ডিসেম্বর) থেকে রাজশাহী নগরের ঐতিহাসিক মাদ্রাসা মাঠ ব্যবহারের অনুমতি দিলেও নেতাকর্মীদেরকে সেই মাঠে ঢুকতে দেয়নি পুলিশ। সারাদেশে এ পর্যন্ত বিএনপির আটটি সমাবেশ শেষ হলেও কোথাও এ রকম ঘটনা ঘটেনি বলে জানান বিএনপির নেতারা। মাঠের গেটে এবং মাঠের মধ্যে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী অবস্থান করছে। তারা মাঠের মধ্যে কোনো নেতাকর্মীকে প্রবেশ করতে দিচ্ছে না। শুধু মঞ্চ তৈরির জন্য কিছু লোককে প্রবেশ করতে দিয়েছে। তাই বিভিন্ন জেলা থেকে আগত নেতাকর্মীরা ঈদগা মাঠে অবস্থান করছেন।

বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা মিজানুর রহমান মিনু ঢাকা টাইমসকে জানান, পুলিশি বাধা এবং হয়রানি উপেক্ষা করে এরই মধ্যে লাখো নেতাকর্মী রাজশাহী শহরে প্রবেশ করেছেন। এরই মধ্যে অনেকেই রাজশাহী ঐতিহাসিক মাদ্রাসা মাঠের পাশে ঈদগাহ মাঠে গিয়ে আশ্রয় নিয়েছেন। বাধা দিয়ে হয়রানি করে বিএনপি নেতাকর্মীদের সমাগম ঠেকানো যাবে না। তিনি বলেন, ঈদগাহ মাঠে নেতাকর্মীদের থাকার জন্য তাঁবু টানানোর ব্যবস্থা করা হলেও পুলিশ প্রথম দিকে তাতেও বাধা দেয়। ফলে অনেক নেতাকর্মীকে রাতে খোলা আকাশের নিচে কাটাতে হয় বলেও জানান তিনি।

সরজমিনে দেখা যায়, নগরীর সাহেব বাজার, হোসনীগঞ্জ, ঘোষপাড়া ফায়ার সার্ভিস, লালনমঞ্চ, মোহনভুবণ পার্ক এলাকায় মিছিল করছেন বিএনপির নেতাকর্মীরা। মিছিলে বিএনপি ছাড়াও যুবদল, ছাত্রদল, স্বেচ্ছাসেবক দল, মহিলা দল, ওলামাদল আলাদা আলাদা ব্যানারে মিছিল করছেন। বগুড়া থেকে আসা পাচঁ শতাধিক যুবদলের নেতাকর্মীরা মোটর সাইকেল নিয়ে পুরো শহর মহড়া দিচ্ছেন।

রাজশাহীর পদ্মার পাড় বিজিবি মুক্ত মঞ্চ এলাকায় হাজার হাজার কর্মী সমর্থক অবস্থান নিয়েছেন। সেখানে নির্মাণ কার হয়েছে কয়েক শতাধিক ভ্রাম্যমান টয়লেট। সেখানে বিভিন্ন ইজ্ঞিন চালিত নৌকায় বিপুল সংখ্যক মানুষকে জনসভাস্থলে আসতে দেখা গেছে।