দিনাজপুরে চুরির অভিযোগে মা-ছেলেকে পিটিয়ে কারাগারে ইউপি চেয়ারম্যান

নিজস্ব প্রতিবেদক, দিনাজপুর
 | প্রকাশিত : ০৩ মে ২০২৩, ১৭:৫২

দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটে চুরির অভিযোগে মা-ছেলেকে পেটানোর দায়ে ইউপি চেয়ারম্যানকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

বুধবার আদালতের নির্দেশে তাকে কারাগারে পাঠায় পুলিশ।

এর আগে ঘোড়াঘাট উপজেলায় চুরির অপরাধে সাগর (১৩) নামে এক কিশোর ও তার মাকে মারধরের অভিযোগে ঘোড়াঘাট উপজেলার সিংড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাজ্জাদ হোসেনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

মঙ্গলবার (২ মে) সকালে নির্যাতিত কিশোরের মা মনোয়ারা বেগম বাদী হয়ে ইউপি চেয়ারম্যান সাজ্জাদ হোসেন ও ৮নং ওয়ার্ড সদস্য মফিজুল মিয়াকে (৫০) আসামি করে থানায় এজাহার দাখিল করেন। ওই দিন বিকালে রানীগঞ্জ বাজার থেকে ইউপি চেয়ারম্যানকে গ্রেপ্তার করা হয়।

আজ বুধবার তাকে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, ঘোড়াঘাট উপজেলার আবিরের পাড়া আশ্রয়ণ কেন্দ্রের বাসিন্দা মনোয়ারা বেগম তার ছেলে সাগরকে নিয়ে বসবাস করেন।

সোমবার চেয়ারম্যান সাজ্জাত হোসেন ও মফিজল মিয়া ওই ছেলে ও মাকে বাড়ি থেকে উচ্ছেদ করার উদ্দেশ্যে বিভিন্ন প্রকার ভয়ভীতি ও হুমকি প্রদর্শন করেন। পরে লোহার রড দিয়ে সাগরের শরীরের বিভিন্নস্থানে মারতে থাকেন। মারপিটের সময় কিশোরের মা মনোয়ারা বেগম তার ছেলেকে রক্ষা করতে গেলে তাকেও আঘাত করেন চেয়ারম্যান।

পরে তাদের আশ্রয়ণ কেন্দ্রের ঘরে তালাবদ্ধ করে রাখা হয়। এ সময় তারা গ্রাম ছেড়ে অন্যত্র চলে না গেলে তাদেরকে হত্যা করার হুমকিও দেওয়া হয়। পরে স্থানীয়রা তাদেরকে উদ্ধার করে ঘোড়াঘাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করান।

ঘোড়াঘাট থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু হাসান কবির বলেন, নির্যাতিত কিশোরের মা বাদী হয়ে থানায় এহাজার দাখিল করেছেন। অভিযুক্ত ইউপি চেয়ারম্যানকে গ্রেপ্তার করে আদালতে মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। অভিযুক্ত ইউপি সদস্যকেও খোঁজা হচ্ছে।

(ঢাকাটাইমস/৩মে/এআর)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :