মরদেহও আসছে প্রধানমন্ত্রীর সহায়তায়

বিনোদন প্রতিবেদক
 | প্রকাশিত : ২০ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৪:০৫

প্রয়াত চলচ্চিত্র নির্মাতা আমজাদ হোসেনের চিকিৎসার দায়িত্ব নিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ৪২ লাখ টাকা দিয়ে নির্মাতাকে তিনি ব্যাংককে পাঠিয়েছিলেন উন্নত চিকিৎসার জন্য। কিন্তু ফেরানো যায়নি আমজাদ হোসেনকে। গত ১৪ ডিসেম্বর ব্যাংককের বামরুনগ্রাদ হাসপাতালে টিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। আর ছয় দিন পর নিহত আমজাদ হোসেনের মরদেহও আসছে সেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সহায়তায়।

খবরটি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন আমজাদ হোসনের বড় ছেলে সাজ্জাদ হোসেন দোদুল। তিনি বলেন, বাবার চিকিৎসা ব্যয় প্রায় ৬৫ লাখ টাকার মতো হয়েছিল। এতো টাকা আমাদের পক্ষে দেয়া সম্ভব হচ্ছিল না। তাই মরদেহ দেশে আনতে এতো বিলম্ব। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ব্যাপারটি জানার পর সব ব্যবস্থা করে দিয়েছেন। শুক্রবার সন্ধ্যা সাতটায় বাংলাদেশ বিমানে বাবাকে নিয়ে আসা হবে।’

গত ১৮ নভেম্বর  রাজধানীর তেজগাঁওয়ের ইমপালস হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল আমজাদ হোসেনকে। সেখানে তাকে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) রাখা হয়েছিল। কিন্তু শারীরিক অবস্থার কোনো উন্নতি হচ্ছিল না। ঠিক সে সময় নির্মাতার পাশে দাঁড়িয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি আমজাদ হোসেনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশে নিতে বলেন এবং চিকিৎসার সমস্ত খরচ বহনের আশ্বাস দেন।

সেই মতো আমজাদ হোসেনের চিকিৎসা খরচের জন্য ২০ লাখ এবং এয়ার অ্যাম্বুলেন্সের ভাড়া বাবদ ২২ লাখ টাকা তার দুই ছেলের হাতে তুলে দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী। এরপর গত ২৭ নভেম্বর এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে করে নির্মাতাকে ব্যাংককের বামরুনগ্রাদ হাসপাতালে নেওয়া হয়েছিল। পরদিন থেকেই তার চিকিৎসা শুরু হয়। সে সময় নির্মাতার শারীরিক অবস্থা কিছুটা উন্নতি হয়েছিল বলে জানিয়েছিলেন তার ছোট ছেলে সোহেল আরমান। কিন্তু ১৪ ডিসেম্বর বজ্রপাতের মতো আসে আমজাদ হোসেনের মৃত্যুর খবর।

তার মৃত্যুতে শোকের ছায়া নেমে আসে চলচ্চিত্রাঙ্গণে। বেশি ভেঙে পড়েন তার অধিকাংশ ছবির নায়িকা ববিতা। আমজাদ হোসেনের ‘নয়নমনি’, ‘গোলাপী এখন ট্রেনে’ এবং ‘সুন্দরী’ ছবিগুলোতে অভিনয় করেছেন ববিতা। যেগুলোর সবকটিই জিতেছে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। এছাড়া চিত্রনাট্যকার এবং গীতিকার হিসেবেও জাতীয় পুরস্কার জিতেছেন তিনি। বহু প্রতিভাধর আমজাদ হোসেন তার পরিচালনা জীবন শুরু করেছিলেন ১৯৬১ সালে ‘তোমার আমার’ ছবির মাধ্যমে। 

ঢাকা টাইমস/২০ ডিসেম্বর/এএইচ

সংবাদটি শেয়ার করুন

বিনোদন বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :