শাহনাজের বাইক চুরি: দুই দিনের রিমান্ডে জনি

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৬ জানুয়ারি ২০১৯, ১৯:২২ | প্রকাশিত : ১৬ জানুয়ারি ২০১৯, ১৯:১৫

উবারে স্কুটি চালিয়ে সংসার চালানো শাহনাজ আক্তার পুতুলের স্কুটি চুরির অভিযোগে গ্রেপ্তার জোবাইদুল ইসলাম জনিকে দুই দিনের রিমান্ডে পেয়েছে পুলিশ।

বুধবার ঢাকা মহানগর হাকিম শহিদুল ইসলাম এই আদেশ দেন। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা শেরে বাংলানগর থানার উপপরিদর্শক শফিকুল ইসলাম তাকে সাত দিন হেফাজতে রেখে জিজ্ঞাসাবাদের আবেদন করেছিলেন।

তদন্ত কর্মকর্তার আবেদনে বলা হয়, আসামির বিরুদ্ধে মোটরবাইক চুরির অভিযোগ প্রাথমিকভাবে প্রমাণ হয়েছে। আসামি ও তার সহযোগীরা বিভিন্ন কৌশলে ঢাকা শহরের বিভিন্ন স্থান হতে মোটর সাইকেল চুরি করে।

শাহনাজের বাইক নিয়ে যাওয়ার ঘটনায় আর কেউ জড়িত কি না সেই তথ্য উদঘাটন এবং আসামি ও তার সহযোগীদের কাছে থাকা চোরাই মোটর সাইকেল উদ্ধারের স্বার্থে তাকে রিমান্ডে চাওয়া হয়।

আসামির আইনজীবী মেসবাহ উদ্দিন রিমান্ড বাতিল করে জামিনের আবেদন করেন। শুনানিতে তিনি বলেন, জনির সাথে শাহনাজ পূর্ব পরিচিত। গত ১০ জানুয়ারি তারা দেখা করেন। সেদিন দুই জন বিভিন্ন জায়গায় ঘুরে বেড়ান। তাদের মধ্যে ভুল বোঝাবুঝির জন্য এমনটা হয়েছে।

শাহনাজ অ্যাপভিত্তিক মোটর সাইকেল চালিয়ে সংসার চালান। তাকে চাকরি দেওয়ার কথা বলে মঙ্গলবার দেখা করেন জনি। আর কৌশলে বাইকটি নিয়ে চলে যান।

শাহনাজ শেরেবাংলা নগর থানায় গিয়ে অভিযোগ দেওয়ার পাশাপাশি বিভিন্ন গণমাধ্যমেও কথাটি জানান। আর তার জীবনযুদ্ধের বিষয়টি আগে থেকেই প্রচার হয়েছিল গণমাধ্যমে। আর তার বাইক চুরির পর আলোড়ন উঠে।

সঙ্গে সঙ্গে তৎপর হয় পলিশ। ওই রাতেই নারায়ণগঞ্জের সাইনবোর্ড এলাকায় ধরা পড়েন জনি। পরে তার দেওয়া তথ্যে একটি গ্যারাজ থেকে উদ্ধার করা হয় মোটর সাইকেলটি।

এরই মধ্যে পুলিশ শাহনাজের হাতে তার মোটর সাইকেলটি তুলে দিয়েছে। আর শাহনাজ পুলিশের কাছে কৃতজ্ঞতাও জানিয়েছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

অপরাধ ও দুর্নীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত