কর্মসূচি দিতে সময় চাইলেন মোশাররফ

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা টাইমস
| আপডেট : ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৭:৫৪ | প্রকাশিত : ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৬:৫০

সংগঠন শক্তিশালী না হলে জনগণকে নেতৃত্বে দেয়া যাবে না- এমন মন্তব্য করে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন আন্দোলন কর্মসূচি ঘোষণা ও দল পুনর্গঠনের জন্য তৃণমূল নেতাকর্মী ও সমর্থকদের কাছে সময় চেয়েছেন।

আজ শনিবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে একটি প্রকাশনা অনুষ্ঠানে তিনি বক্তব্য দিচ্ছিলেন। বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা তৈমুর আলম খন্দকার রচিত দুটি গ্রন্থের প্রকাশনা উপলক্ষে অনুষ্ঠানটি আয়োজিত হয়।

ড. মোশাররফ বলেন, ‘আমি মনে করি বিএনপির সামনে বিরাট সুযোগ এ দেশের গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করার। এটা আওয়ামী লীগ করবে না। গণমুখী রাজনৈতিক দল হিসেবে এটা আমাদের দায়িত্ব। কাজ করার জন্য বিএনপি প্রস্তুত আছে।’

তবে তার জন্য সময় লাগবে বলে জানান বিএনপির এই জ্যেষ্ঠ নেতা। বলেন, ‘আমাদের একটু সময় দিতে হবে। দলের মধ্যে যে দুর্বলতা রয়েছে, সেগুলো চিহ্নিত করে পুনর্গঠন শুরু হয়েছে। সংগঠন শক্তিশালী করতে না পারলে আমরা জনগণকে নেতৃত্ব দিতে পারব না।’

বিএনপি সময়ের অপেক্ষা করছে জানিয়ে এই নীতিনির্ধারক বলেন, ‘এ দেশের মানুষ নিজেদের অধিকার তথা গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করবে। তবে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ছাড়া গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা হবে না। তাই দল-মতনির্বিশেষে সবার দায়িত্ব বেগম জিয়াকে মুক্ত করা।’

গত সংসদ নির্বাচনে ‘২৯ ডিসেম্বর রাতে ভোট ডাকাতি একটি অস্বাভাবিক ঘটনা। আর এর মন্ত্রিসভাও আরেকটি অস্বাভাবিক ঘটনা। সুতরাং এটা বেশি দিন টিকবে না।’ বলে মনে করেন ড. মোশাররফ।

তিনি বলেন, ‘অনেকে মনে করছে বিএনপি পরাজিত হয়েছে। আমি মনে করি, আমরা পরাজিত হইনি। আবার অনেকেই বলেন, বিএনপির কর্মীরা হতাশ। আমি এটা বিশ্বাস করি না। আমি মনে করি, আমাদের নেতাকর্মীরা হতভম্ব, হতাশ নয়।’

প্রকাশনা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন গ্রন্থ দুটির লেখক তৈমুর আলম খন্দকারসহ বিএনপির বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মী-সমর্থকরা।

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদুর সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন ভাইস চেয়ারম্যান মেজর (অব.) হাফিজউদ্দিন আহমেদ, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিব, কবি আবদুল হাই শিকদার, লেবার পার্টির চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান ইরান প্রমুখ।

(ঢাকাটাইমস/২৩ফেব্রুয়ারি/বি্ইউ/এমআর/মোআ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :