আলফাডাঙ্গায় কৃষি জমিতে পুকুর খননের হিড়িক

মুজাহিদুল ইসলাম নাঈম, আলফাডাঙ্গা (ফরিদপুর)
 | প্রকাশিত : ১০ মে ২০১৯, ১৬:১৭

ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গায় সরকারি নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করে দিনে-রাতে অবাধে চলছে কৃষি জমিতে পুকুর বা দিঘি খননের কাজ। কৃষি জমির প্রকৃতি পরিবর্তন করে পুকুর খনন করায় আবাদি জমির পরিমাণ কমে যাচ্ছে এবং চাষাবাদ হুমকির মুখে পড়ছে বলে স্থানীয় কৃষকরা দাবি করেছেন।

দ্রুত এর অবসান না হলে জলাবদ্ধতাসহ পরিবেশের ওপর বিরূপ প্রভাব পড়ারও আশঙ্কা করছেন কৃষি সংশ্লিষ্টরা। 

উপজেলার ছয়টি ইউনিয়নের বিভিন্ন কৃষি জমিতেই চলছে এ পুকুর খননের মহোৎসব।  

স্থানীয়দের অভিযোগ, প্রভাবশালীরা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশ উপেক্ষা করে জমির প্রকৃতি পরিবর্তন করে পুকুর খনন চালিয়ে যাচ্ছে।

সরেজমিনে দেখা গেছে, উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত ভেকু দিয়ে কৃষিজমিতে পুকুর খনন করা হচ্ছে। আর খননের পর বেশিরভাগ মাটি ট্রাক্টরে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে ইট ভাটায়। এছাড়া মাটি বহনকারী ট্রাক্টর অবাধে চলাচল করায় অল্পদিনেই নষ্ট হচ্ছে রাস্তাঘাট। এতে করে দুর্ভোগে পড়ছেন এলাকাবাসী। 

জানা যায়, প্রতিটি গাড়ির মাটি বিক্রি হচ্ছে এক হাজার থেকে ১১শ টাকায়। সেই সঙ্গে যারা গাড়িগুলো চালাচ্ছেন, তাদের অধিকাংশই অপ্রাপ্ত বয়স্ক। তাদের বয়স পনের থেকে বিশের মধ্যে। এদের কোনও ড্রাইভিং লাইসেন্স বা গাড়ি চালানোর কোনও বৈধ কাগজপত্র নেই। 

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভা.প্রা.) আসাদুজ্জামান ‘ঢাকাটাইমস’কে বলেন, ‘ফসলি জমিতে পুকুর খনন যেমন আইনবিরোধী- তেমনি কৃষি ফসল বিনষ্ট করে পুকুর খনন করা আরও বড় অপরাধ।’

এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দেন তিনি। 

(ঢাকাটাইমস/১০মে/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :