বিশ্বসেরা ফ্লাগশিপ ফোন কোনটি?

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৯ আগস্ট ২০১৯, ১০:৫৪

বিশ্ববাজারে স্যামসাংয়ের নোট টেন প্লাস উন্মোচনের খবরে বেশ আলোড়ন তৈরি হয়েছে। ফ্ল্যাগশিপের রাজত্বে কোন অ্যানড্রয়েড ফোনটি এগিয়ে থাকবে তা নিয়েও শুরু হয়েছে আলোচনা। হুয়াওয়ের পি৩০ প্রো ও স্যামসাংয়ের নোট টেন প্লাস নিয়ে ফ্ল্যাগশিপ রাজত্বের গুঞ্জন চলছে প্রযুক্তি বিশ্বে। 
হুয়াওয়ে পি৩০ প্রো বাজারে আসার পর বেশকিছু পুরষ্কারও জিতে নিয়েছে। প্রশংসা কুঁড়িয়েছে বিশ্বজুড়ে। অ্যানড্রয়েড প্ল্যাটফর্মের সেরা ফ্ল্যাগশিপের তকমাও জুটেছে ফোনটির। তবে স্যামসাংয়ের নোট টেন প্লাস বাজারে আসার পর এ নিয়ে নতুন করে শুরু হয়েছে আলোচনা। আসুন স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট টেন এবং হুয়াওয়ে পি ৩০ পো-এর তুলনামূলক পার্থক্য জেনে নেই। 

রিয়ার ক্যামেরা
এখনকার স্মার্টফোন বাজারে রাজত্বের অন্যতম অস্ত্র হলো ক্যামেরা। সেরা ফ্ল্যাগশিপ বিবেচনায়, হুয়াওয়ে পি৩০ প্রো ও স্যামসাং নোট টেন প্লাস এ ফোনটি ক্যামেরায় বেশ গুরুত্ব দিয়েছে। দু’টি ফোনেই রাখা হয়েছে কোয়াড ক্যামেরা ফিচার। 

হুয়াওয়ে ক্যামেরায় এগিয়ে থাকতে পি৩০ প্রোতে সঙ্গী হয়েছে বিশ্বখ্যাত ক্যামেরা কোম্পানি লেইকার সঙ্গে। রিয়ার ক্যামেরা রাখা হয়েছে ৪০, ২০ ও ৮ মেগাপিক্সেলের। সঙ্গে রাখা হয়েছে টিওএফ প্রযুক্তি। যার কারণে প্রফেশনাল ক্যামেরার ডেপথ অব ফিল্ড পাওয়া যাবে। ফলে ছবিগুলো হবে প্রফেশনাল। 

স্যামসাংয়ের নোট টেন প্লাস ফোনটিতেও হুয়াওয়ের মতো টিওএফ প্রযুক্তি রাখা হয়েছে। সঙ্গে জুড়ে দেওয়া হয়েছে ১২, ১২ ও ১৬ মেগাপিক্সেলের তিনটি ক্যামেরা। 

সেলফি ক্যামেরা
সেলফি এখন উৎসব, আনন্দময় মুহূর্তের অন্যতম অনুষঙ্গ। উৎসবকে রাঙাতে যে সেলফি তোলা হয়, তার জন্য প্রয়োজন ভালো মানের সেলফি ক্যামেরা। হুয়াওয়ের পি৩০ প্রো ফ্ল্যাগশিপ ফোনটিতে দুর্দান্ত মানের সেলফির জন্য রাখা হয়েছে ৩২ মেগাপিক্সেলের একটি সেলফি ক্যামেরা। দেশের বাজারে উন্মোচনের অপেক্ষায় স্যামসাংয়ের নোট টেন প্লাসে দেওয়া হয়েছে ১০ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা। 

ডিজাইন
ফ্ল্যাগশিপ ফোন ও আভিজাত্য দুটোই প্রায় সমার্থক শব্দবন্ধন। আভিজাত্য প্রকাশের জন্য অন্যতম নান্দনিক ও দৃষ্টিকার্ষক ডিজাইন। হুয়াওয়ে পি৩০ প্রো স্মার্টফোনটি আগেই বিশ্ববাজারে এসে ডিজাইনের জন্য বেশ প্রশংসা কুড়িয়েছে। স্যামসাংয়ের নোট টেন প্লাস স্মার্টফোনটির ডিজাইনও করা হয়েছে পি৩০ প্রো এর মতো করে। ফোন দু’টির রিয়ার ক্যামেরার অবস্থান, ডিসপ্লে ডিজাইন, রঙের সমাবেশ প্রায় একইরকম। 

ব্যাটারি

চার্জিং নিয়ে কোনরকম দুঃশ্চিন্তা ছাড়া ফোন ব্যবহারের জন্য প্রয়োজন ভালো মানের ব্যাটারি। হুয়াওয়ে পি৩০ প্রো ও স্যামসাং নোট টেন প্লাস ফোন দু’টিতে রাখা হয়েছে ভালো মানের ব্যাটারি। হুয়াওয়ে পি৩০ প্রোতে রয়েছে ৪২০০ এমএএইচ এর ব্যাটারি। আর স্যামসাং নোট টেন প্লাসে রাখা হয়েছে ৪৩০০ এমএএইচের ব্যাটারি।

বেশ কয়েকমাস আগে আসা হুয়াওয়ের পি৩০ প্রো ইতোমধ্যেই গ্রাহকদের আস্থা আর প্রত্যাশা পূরণ করেছে। পেয়েছে বেশ কয়েকটি বৈশ্বিক পুরষ্কারও । স্যামসাংয়ের নোট টেন প্লাসও প্রায় একইরকম ফিচার, ডিজাইন নিয়ে বাজারে আসছে। এদিকে বিশ্ববাজারে উন্মোচনের অপেক্ষায় রয়েছে হুয়াওয়ের মেট ৩০। তখন ফ্ল্যাগশিপ রাজত্বের দৌড়টা আরও বাড়বে।

যারা ফ্ল্যাগশিপ ফোন কিনবেন বলে ভাবছেন, তাদের কাছে কোন ফ্ল্যাগশিপটি এগিয়ে থাকছে? হুয়াওয়ে পি৩০ প্রো নাকি স্যামসাং নোট ১০ প্লাস?

(ঢাকাটাইমস/৯আগস্ট/এজেড)
 

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত