নেহেরু বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম ‘মোদি বিশ্ববিদ্যালয়’ করার দাবি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৮ আগস্ট ২০১৯, ২২:০৮ | প্রকাশিত : ১৮ আগস্ট ২০১৯, ২০:০০

ভারতের ক্ষমতাসীন সংসদ ও গায়ক হংস রাজ হংস দিল্লীতে অবস্থিত জওহরলাল নেহেরু বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে ‘মোদি বিশ্ববিদ্যালয়’ রাখার দাবি করেছেন।

জওহরলাল নেহেরু বিশ্ববিদ্যালয়ের এক অনুষ্ঠানে নাম বদলের প্রস্তাব দেন পাঞ্জাবি শিল্পী হংস রাজ হংস।

সংবিধানের ৩৭০ ধারা বাতিলসহ রাজ হংস বলেন,‘প্রার্থনা করুন ওখানে সবাই যেন শান্তিতে থাকতে পারেন। কোনও বোমা যেন না ফাটে। আমাদের পূর্বপুরুষরা যে ভুল করছেন তার মাসুল এখন আমাদের গুনতে হচ্ছে। এই বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম অনেক শুনেছি। এই প্রথম এলাম। প্রধানমন্ত্রী মোদি দেশের জন্য অনেক কিছুই করেছেন। আমার প্রস্তাব, এই বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম বদল করে জেএনইউ থেকে এমএনইউ(মোদি নরেন্দ্র ইউনিভার্সিটি) করা হোক। কারন মোদিজির নামেও কিছু এদেশে কিছু হওয়া উচিত।’

জম্মু ও কাশ্মীরের ৩৭০ ধারা বিলোপ ও রাজ্যকে দুভাগ করা প্রসঙ্গে শিল্পী বলেন,‘প্রধানমন্ত্রী মোদি থাকলে সবকিছুই সম্ভব। মোদি হ্যায় তো মুমকিন হ্যায়।’

জম্মু ও কাশ্মীরের ৩৭০ ধারা বিলোপ ও রাজ্যকে দুভাগ করা প্রসঙ্গে শিল্পী বলেন,‘প্রধানমন্ত্রী মোদি থাকলে সবকিছুই সম্ভব। মোদি হ্যায় তো মুমকিন হ্যায়।’

উল্লেখ্য, গত লোকসভা নির্বাচনে উত্তর-পশ্চিম দিল্লি আসন থেকে ভোটে দাঁড়ান হংস রাজ হংস। আম আদমি পার্টির গগন সিং ও কংগ্রেসের রাজেশ লিলেটাথিয়াকে বিপুল ভোটে হারিয়ে বিজেপি টিকিটে সাংসদ নির্বাচিত হন তিনি।

দিল্লির দক্ষিণে জওহরলাল নেহেরু বিশ্ববিদ্যালয় অবস্থিত। এটি একটি সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়। ১৯৬৯ সালে স্বাধীন ভারতের প্রথম প্রধানমন্ত্রী জওহরলাল নেহেরুর নামে বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠিত হয়। বর্তমানে প্রায় নয় হাজার শিক্ষার্থী বিশ্ববিদ্যালয়টিতে অধ্যয়ন করছে।   

ঢাকাটাইমস/১৮ আগস্ট/আরআর

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :