কোয়ারেন্টাইনের সেলফি প্রতি ঘণ্টায় পাঠাতে হবে সরকারকে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকা টাইমস
| আপডেট : ৩১ মার্চ ২০২০, ১৩:২১ | প্রকাশিত : ৩১ মার্চ ২০২০, ১২:৪১

নিজের বাড়িতে কোয়রান্টাইনে থাকলে প্রতি ঘণ্টায় সেলফি তুলে তার প্রমাণ দিতে হবে। একটি নির্দিষ্ট মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে তা পাঠিয়ে দিতে হবে সরকারের কাছে। এই নির্দেশ অমান্য করলে নিজের বাড়ির স্বাচ্ছন্দ্য ছেড়ে থাকতে হবে সরকারি কোয়রান্টাইন কেন্দ্রে। সোমবার রাজ্যবাসীদের জন্য এমন কড়া নির্দেশিকা জারি করেছে ভারতের কর্নাটক রাজ্য সরকার।

কেন এমন নির্দেশিকা? প্রশাসন সূত্রের বরাত দিয়ে ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে খবর, করোনাভাইরাসকে রুখতে লকডাউনের বিধিনিষেধ অগ্রাহ্য করছেন অনেকেই। এমনকি, বিদেশ থেকে ফিরে বাধ্যতামূলক ভাবে নিজের বাড়িতে ১৪ দিনের কোয়রান্টাইনে থাকার নির্দেশও মানছেন না বহু মানুষ। এ বিষয়ে বারবার সচেতন করা সত্ত্বেও তা কানে তুলছেন না অনেকে।

দিন কয়েক আগেই বেঙ্গালুরুর ১০ ব্যক্তি নিজের বাড়িতে কোয়রান্টাইনের নির্দেশ অগ্রাহ্য করে পালিয়ে যান। এরপর তল্লাশি চালিয়ে শহর থেকে তাদের গ্রেফতার করে পুলিশ। বেঙ্গালুরুর কমিশনার বি এইচ অনিল কুমার জানিয়েছেন, তাদের বিরুদ্ধে মামলা রুজু করা হয়েছে। চলতি মাসে ফের একই ধরনের ঘটনা ঘটে। হাসপাতাল থেকে পালিয়ে যান এক করোনা-সন্দেহভাজন। বারবার এ ধরনের ঘটনা ঘটায় বাধ্য হয়েই সেলফি তোলার নির্দেশ জারি করেছে রাজ্য প্রশাসন।

সেলফি সংক্রান্ত নির্দেশ রাজ্য প্রশাসন আরও জানিয়েছে, সকাল ১০টা থেকে সন্ধ্যা ৭টার মধ্যে সেলফি তোলার ক্ষেত্রে ছাড় দেওয়া হয়েছে। অর্থাৎ, ওই সময়ের বাইরে প্রতি ঘণ্টায় সেলফি তুলে পাঠাতে হবে সরকারের কাছে। গোটা ব্যবস্থার নজরদারিতে থাকবেন কোয়রান্টিনে এনফোর্সমেন্ট স্কোয়াডের আধিকারিকেরা।

ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, কর্নাটকে নোভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৮৫ জন। ইতিমধ্যে সে রাজ্যে করোনায় মৃত্যু হয়েছে তিন জনের। এই ভাইরাস রুখতে বেশ কিছু ব্যবস্থা নিয়েছে কর্নাটক। তার মধ্যে একটি হল, নিজের বাড়িতেই ১৪ দিনের কোয়রান্টিনে থাকা। প্রায় ৪৩ হাজার মানুষ তেমন ভাবে নজরদারিতে ছিলেন। এর মধ্যে প্রায় ৩০ হাজার মানুষ ১৪ দিনের কোয়রান্টিনের মেয়াদ শেষ করেছেন। তাদের মধ্যে ১৪২ জনকে সরকারি কোয়রান্টিন কেন্দ্রে স্থানান্তরিত করা হয়েছে।

ঢাকা টাইমস/৩১মার্চ/একে

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :