বারডেমে চিকিৎসকদের আন্দোলন: চতুর্থ দিনেও দেখা মেলেনি কর্তৃপক্ষের

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ০১ জুলাই ২০২০, ১৯:৫৫ | প্রকাশিত : ০১ জুলাই ২০২০, ১৯:৫২

চাকরি স্থায়ীকরণের দাবিতে চতুর্থ দিনের মতো অবস্থান কর্মসূচি পালন করছেন বারডেম জেনারেল হাসপাতালের শতাধিক চিকিৎসক। চতুর্থ দিন বুধবারও নিজেদের দাবির বিষয়ে হাসপাতাল পরিচালকের সঙ্গে দেখা করতে ব্যর্থ বারডেমের আবাসিক মেডিকেল অফিসাররা।

আন্দোলনকারীরা জানান, কর্তৃপক্ষের উস্কানিমূলক চাকরি ও ট্রেনিং অবসানের নোটিশের পরিপ্রেক্ষিতে চিকিৎসকবৃন্দ তাদের অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন। পরবর্তীতে হাসপাতালের পরিচালক কাইউম চৌধুরীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে তার অফিসের সামনে গেলে নিরাপত্তারক্ষীরা তাদের বাধা দেয়। ফলে তারা পরিচালকের কক্ষের সামনে শৃংখলা বদ্ধভাবে বসে অপেক্ষা করেন৷ কিন্তু হাসপাতাল পরিচালক কাইউম চৌধুরী আজকেও তাদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে অস্বীকৃতি জানান।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে একজন চিকিৎসক বলেন, ‘একই হাসপাতালে একই কাজ করে আমরা বেতন কম পাচ্ছি। শুধু তাই নয়, গতকাল আমাদের ট্রেনিং অবসানের হুমকি স্বরূপ চিঠি দেয়া হয়। চিঠিতে আমাদের ট্রেইনি বলে সম্বোধন করা হয়। কিন্তু আমরা বলতে চাই, আমরা বারডেমের অফিসার। নিয়োগের সার্কুলারে আমাদের অফিসার হিসেবে উল্লেখ আছে। আমরা বারডেমের অফিসার হিসেবে প্রতি বছর ট্যাক্স দিই৷ তাই আমরা এই চিঠির প্রতিবাদ করছি এবং এই উস্কানিমূলক চিঠির জবাব আমরা চাই।‘

এর আগে গত রবিবার থেকে চাকরি স্থায়ীকরণের দাবিতে আন্দোলনে নামেন রাজধানীর শাহবাগের বারডেম হাসপাতালের আরএমও, সিএ, এম (অস্থায়ী) পদের চিকিৎসকরা। তাদের অভিযোগ, করোনাভাইরাসের শুরু থেকে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের নানা অনিয়মের কারণে এমন পরিস্থিতির জন্ম হয়েছে। করোনা ভাইরাস সংক্রমণের শুরুর দিয়ে চিকিৎসকের কোনো ধরনের সুরক্ষা সামগ্রী দেয়া হয়নি। পরবর্তীতে পিপিই দেয়া হলেও তা বারবার ধুয়ে ব্যবহারের জন্য বলা হয়। এমন অবস্থায় বেশ কয়েকজন চিকিৎসক কোভিড-১৯ আক্রান্ত হন। আক্রান্ত চিকিৎসকদের চিকিৎসা না দিয়ে তাদেরকে হাসপাতাল থেকে বের করে দেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন আন্দোলনকারীরা। ৫ দফা দাবিকে এক দফায় রূপান্তর করে চাকরির নিশ্চয়তায় আন্দোলন করে যাচ্ছেন তারা।

ঢাকাটাইমস/১জুলাই/কারই/ইএস

সংবাদটি শেয়ার করুন

স্বাস্থ্য বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :