নাইজেরিয়ায় আরও ৭০ কৃষকের লাশ উদ্ধার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
| আপডেট : ৩০ নভেম্বর ২০২০, ১১:৪৮ | প্রকাশিত : ৩০ নভেম্বর ২০২০, ১০:৪৭

নাইজেরিয়ায় খামারে কর্মরত শ্রমিকদের নির্বিচারে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা। শনিবার ক্ষেত থেকে ৪৩ কৃষকের গলাকাটা মরদেহ উদ্ধারের পর রবিবার আরও অন্তত ৭০ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে জাতিসংঘ। এই ঘটনায় আহত কয়েকজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এছাড়া বেশ কয়েকজন কৃষককে অপহরণ করা হয়েছে বলেও জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। খবর আল জাজিরার।

শনিবার বোর্নো রাজ্যের রাজধানী মাইদুগুড়ির কাছে কোশব নামক গ্রামে কৃষক শ্রমিকদের বেঁধে এবং গলা কেটে হত্যা করে জঙ্গিরা।

একজন গ্রাম্য নেতা এবং স্থানীয় যোদ্ধা জানিয়েছেন, স্থানীয় সরকারি অঞ্চল কাওয়াশেবি জামারমারি খামারে শ্রমিকরা ধান রোপণ করছিলেন। স্থানীয় সময় সকালের শেষ দিকে এই হামলা চালানো হয়।

রবিবার এক বিবৃতিতে নাইজেরিয়ায় জাতিসংঘের মানবিক সমন্বয়কারী এডওয়ার্ড ক্যালন বলেছেন, 'মোটরসাইকেলে সশস্ত্র ব্যক্তিরা তাদের ক্ষেত্রের ফসল কাটা বেসামরিক পুরুষ ও মহিলাদের ওপর নৃশংস আক্রমণ চালিয়েছিল।'

তিনি জানান, এই হামলায় কমপক্ষে ১১০ জন বেসামরিক মানুষ নিহত হয়েছেন এবং আরও অনেকে আহত হয়েছেন। বেশ কয়েকজন মহিলা অপহৃত হয়েছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

ক্যালন বলেন, 'বেসামরিক মানুষদের ওপর চলতি বছরে এটিই সবচেয়ে বড় হামলা। আমি এই জঘন্য ও নির্বোধ কাজের অপরাধীদের বিচারের আওতায় আনার আহ্বান জানাচ্ছি।'

তবে কারা এই হামলা চালিয়েছে সে বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া যায়নি। এখনো কেউ এই হামলার দায় স্বীকার করেনি। হামলাকারীদের খুঁজতে তল্লাশি শুরু করেছে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ।

তবে স্থানীয় একটি সশস্ত্র গোষ্ঠীর নেতা বাবাকুরা কোলো দাবি করেন, এটা বোকো হারামের কাজ তাতে কোনো সন্দেহ নেই। তারা এই এলাকায় কৃষকদের ক্রমাগত আক্রমণ করছে।

এর আগে গত মাসে মাইদুগুরি এলাকার কাছে পৃথক দুটি ঘটনায় ২২ জন কৃষককে হত্যা করেছিল বোকো হারামের সদস্যরা।

উত্তর-পূর্ব নাইজেরিয়ায় বোকো হারাম এবং ইসলামিক স্টেট বেশ সক্রিয়। তাদের সঙ্গে সহিংসতায় হাজার হাজার মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন, ২০০৯ সাল থেকে এ পর্যন্ত বাস্তুচ্যুত হয়েছেন ২০ লাখের বেশি মানুষ।

ঢাকা টাইমস/৩০নভেম্বর/একে

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :