১০ কি.মি সড়কের ৯ কি.মির বেহাল দশা

নাজমুল হাসান, নরসিংদী
| আপডেট : ০৩ আগস্ট ২০২১, ১২:৩৩ | প্রকাশিত : ০৩ আগস্ট ২০২১, ১১:৫৪

নির্মাণের পর দীর্ঘদিন ধরে সংস্কার না করায় বেহাল হয়ে পড়েছে নরসিংদীর মাধবদী উপজেলার নোয়াকান্দি-চালাকচর-শেখের বাজার আঞ্চলিক সড়ক। ১০ কিলোমিটার সড়কটির ৯ কিলোমিটার অংশজুড়ে খানাখন্দের সৃষ্টি হওয়ায় চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। এতে দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন উপজেলার তিন ইউনিয়নের বাসিন্দারা।

২০০৪ সালে সড়ক ও জনপথ বিভাগ মনোহরদী উপজেলার নোয়াকান্দি-চালাকচর-শেখের বাজার আঞ্চলিক সড়কটি নির্মাণ করে। ১০ কিলোমিটার দৈর্ঘ্য ও ১২ ফিট প্রস্থের এই সড়কে যাতায়াত করেন উপজেলার তিন ইউনিয়ন লেবুতলা, চালাকচর ও কাচিকাটা ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামের বাসিন্দারা। উপজেলার ঐতিহ্যবাহী চালাকচর বাজার, উপজেলা সদরসহ বিভিন্ন স্থানে যাতায়াত ও কৃষিপণ্য পরিবহনে এলাকাবাসীর জন্য এই সড়কটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এছাড়া এই সড়কে পাশের জেলা গাজীপুরের খিরাটি, কাপাসিয়া ও রানীগঞ্জ এলাকা থেকেও খুচরা ব্যবসায়ী ও সাধারণ মানুষ আসেন চালাকচর বাজারে। অথচ নির্মাণের কয়েক বছর পর থেকেই খানাখন্দ ও গর্ত সৃষ্টি হওয়ায় বেহাল দশায় পরিণত হয়েছে। সড়কের বেশিরভাগ অংশের পিচ ওঠে গিয়ে সৃষ্ট বড় বড় গর্তের কারণে ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে সিএনজিচালিত অটোরিকশা, ইজিবাইকসহ ছোট ছোট যানবাহন। এতে প্রতিনিয়ত ঘটছে দুর্ঘটনা। জানা যায়, দুই বছর আগে সড়কটির এক কিলোমিটার সংস্কার করে সড়ক ও জনপথ বিভাগ। কিন্তু অজ্ঞাত কারণে বাকি অংশের কাজ আর হয়নি। ফলে এখন চলাচলের প্রায় অনুপযোগী হয়ে পড়েছে সড়কটি। ফলে বাধ্য হয়ে ১০ কিলোমিটার ঘুরে বিকল্প সড়কে চলাচল করতে গিয়ে ব্যয় হচ্ছে বাড়তি সময় ও খরচ।

সিএনজিচালিত অটোরিকশা চালক মজিদ বলেন, দীর্ঘদিন ধরে সড়কের বেহাল দশার কারণে গাড়ি চালাতে সমস্যা হচ্ছে। যাত্রী কম পাওয়া যায়, জ্বালানি খরচ বেশি হয়। প্রায়ই গাড়ি নষ্ট হয়ে যায়।

আরেক সিএনজি চালক ইউসুফ সরকার বলেন, চালাকচর বাজার থেকে ৭ কিলোমিটার পর্যন্ত সড়কটির খুবই খারাপ অবস্থা। কিছু কিছু স্থানে বড় গর্তের কারণে গাড়ি থেকে যাত্রীদের নামিয়ে দিতে হয়।

চক তাতারদি গ্রামের বাসিন্দা আফজাল বলেন, এই রাস্তায় চলাচল খুবই কষ্টকর। কেউ অসুস্থ হয়ে পড়লে উপজেলা সদর হাসপাতালে রোগী নিয়ে যাওয়া সম্ভব হচ্ছে না। গাড়িতে গেলে অসুস্থ হয়ে পড়তে হয় তাই পায়ে হেটে চলাচল করি।

যোগাযোগ করা হলে নরসিংদী সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মোফাজ্জল হায়দার জানান, গুরুত্ব বিবেচনা করে পর্যায়ক্রমে সড়ক বিভাগ কর্তৃক নির্মিত চলাচলের অনুপযোগী সব সড়কের সংস্কার কাজ করা হচ্ছে। নির্মাণের পর দুই বছর আগে মনোহরদীর এই সড়কটির ১ কিলোমিটার সংস্কার কাজ করা হয়েছে। চলতি অর্থ বছরে সড়কটির দেড় কিলোমিটার অংশ সংস্কারের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এছাড়া আগামী অর্থবছরে সড়কটি ১২ ফিট থেকে ১৮ ফিটে প্রশস্থকরণসহ পুরো সড়কটির সংস্কার কাজ করা হবে।

(ঢাকাটাইমস/৩ আগস্ট/পিএল)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

বাংলাদেশ এর সর্বশেষ

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :