নভেম্বরে জিম্বাবুয়েতে ওয়ানডে সিরিজ খেলবে সালমারা

ক্রীড়া প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৬:৫৩ | প্রকাশিত : ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৬:২৭

গত বছর অস্ট্রেলিয়ায় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর আবারও মাঠের ক্রিকেটে ফিরছে সালমা-জাহানারারা। ২০২২ সালের অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া ওয়ানডে বিশ্বকাপের বাছাই পর্বের আগে নিজেদের ঝালাই করে নিতে বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দল ম্যাচ খেলবে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে।

আগামী ৪ অথবা ৫ নভেম্বর দেশ ছাড়বেন জাহানারা আলমরা। জিম্বাবুয়ের মাটিতে তারা তিনটি একদিনের ম্যাচ খেলে বাছাই পর্বের জন্য বানানো বায়ো-বাবলে প্রবেশ করবে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) বিসিবি উইমেন্স উইংয়ের চেয়ারম্যান শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল।

ক্রিকেটভিত্তিক ওয়েবসাইট ক্রিকইনফেকে তিনি বলেন, ‘বিসিবি ও জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট বোর্ডের মধ্যে কথাবার্তা চূড়ান্ত। বিশ্বকাপ বাছাইয়ের আগে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলবে আমাদের নারী দল।’

বিশ্বকাপ বাছাইয়ের আগে ওয়ানডে সিরিজটি প্রস্তুতির জন্য দারুণ কাজে আসবে জানিয়ে শফিউল আলম বলেন, ‘আমরা এই দ্বিপাক্ষিক সিরিজে শুধুমাত্র ওয়ানডে ম্যাচ রেখেছি কারণ বিশ্বকাপ বাছাইটা হবে ওয়ানডে ফরম্যাটে। যা আমাদের বিশ্বকাপ বাছাইয়ের জন্য ভালো প্রস্তুতির সুযোগ করে দেবে।’

নভেম্বরে জিম্বাবুয়েতে শুরু হচ্ছে নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাছাইপর্ব। সেখানের বাংলাদেশ নারী দলের প্রতিপক্ষ হিসেবে রয়েছে আয়ারল্যান্ড, নেদারল্যান্ডস, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা, পাপুয়া নিউ গিনি, থাইল্যান্ড, ওয়েস্ট ইন্ডিজ, জিম্বাবুয়ে ও আমেরিকা।

মোট ১০ দলের বিশ্বকাপের মুল আসর অনুষ্ঠিত হবে ৪ মার্চ থেকে। নিউজিল্যান্ডে আয়োজিত বৈশ্বিক এই আসর শেষ হবে ৩ এপ্রিল। আগামী ২১ নভেম্বর থেকে শুরু হওয়া আফ্রিকান দেশ জিম্বাবুয়েতে বাছাই পর্ব শেষ হবে ৫ ডিসেম্বর।

করোনার সময়ে বাংলাদেশ পুরুষদের ক্রিকেট ফিরলেও প্রায় দেড় বছর ধরে বন্ধ রয়েছে নারী ক্রিকেটের সফর। মাঝে এমার্জিং দলের হয়ে সাউথ আফ্রিকা এমার্জিং দলের বিপক্ষে খেলেন রুমানা-জ্যোতিরা। তবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলা হয়নি।

এদিকে গতবছরের জুনে আঞ্জু জেইন দায়িত্ব ছাড়ার পর নতুন কোনো কোচকে দায়িত্ব দেয়নি বাংলাদেশ। তবে বাংলাদেশ খুঁজছেন বিদেশি একজন কোচ। নাদেল বলেন, ‘আমাদের জাতীয় পুলে বেশ কয়েকজন স্বনামধন্য কোচ আছেন যারা মহিলা ক্রিকেটারদের সঙ্গে কাজ করেন। এবং আমরা বিদেশি কোচদের আগ্রহও দেখেছি, নারী দলের জন্য আমাদের বিগত কয়েকজন জাতীয় প্রধান কোচ বিদেশ থেকে এসেছেন, আমি তাদের নাম উল্লেখ করছি না।’

বাংলাদেশ মহিলা দল মানসিকভাবে আরো ভালো অবস্থানে থাকুক এমনটি চাওয়া থেকেই বিসিবি খোঁজ করছে একজন ভালো বিদেশি কোচ। নাদেল বলেন, ‘আমাদের দলটি আন্তর্জাতিক আসরে এখনও অনভিজ্ঞ। তাই আমরা শক্তিশালী আন্তর্জাতিক অভিজ্ঞতাসম্পন্ন একজন কোচের সার্ভিস চাই এবং আমরা চাই আমাদের মহিলা দল মানসিকভাবে শক্তিশালী হোক। সে কারণে আমরা একজন বিদেশি কোচ খুঁজছি।’

(ঢাকাটাইমস/১৬সেপ্টেম্বর/এইচএন)

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :