ইভ্যালি অফিসের সামনে সুনসান নীরবতা

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৫:২২ | প্রকাশিত : ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩:১৫

ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. রাসেলের গ্রেপ্তারের পর প্রতিষ্ঠানটির কার্যালয়ে নেমে এসেছে সুনসান নীরবতা। কার্যালয়ে নেই কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কর্ম তৎপরতা, নেই গ্রাহক ও মার্চেন্টদের ভিড়।

শুক্রবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত ইভ্যালির ধানমণ্ডি কার্যালয়ের সামনে এমন চিত্র দেখা গেছে।

ইভ্যালির ভবনের নিরাপত্তাকর্মীদের ভাষ্য, গতকালের পর প্রতিষ্ঠানটির কোনো কর্মকর্তা-কর্মচারী কার্যালয়ে আসেননি। গতকাল রাত ১১টা পর্যন্ত গ্রাহক ও মার্চেন্টরা অফিসের সামনে আন্দোলন করেন। তবে শুক্রবার সকাল থেকে কেউ কার্যালয়ে আসেনি।

এদিকে স্থানীয় চায়ের দোকানি ও অন্যান্য ভবনের নিরাপত্তাকর্মীদের ভাষ্য, শুক্রবার সকাল থেকে দুই-একজন করে গ্রাহক ইভ্যালির কার্যালয়ের সামনে আসেন। কিছুক্ষণ দাঁড়িয়ে আবার তারা চলে যান। গ্রাহক ও মার্চেন্টদের কোনো জমায়েত এ সময় কারো চোখে পড়েনি।

শুক্রবার সকালে ইভ্যালির অফিসের সামনে আসেন প্রতিষ্ঠানটিতে পণ্যের জন্য টাকা জমা দেওয়া একজন গ্রাহক। লিয়াকত হোসেন নামে ওই গ্রাহক জানান, তিনি পণ্য কেনার জন্য সাড়ে পাঁচ লাখ টাকা জমা দিয়েছেন। প্রতিষ্ঠান প্রধান গ্রেপ্তার হওয়ায় এখন তিনি নিজের টাকা পাওয়া নিয়ে শঙ্কায় রয়েছেন।

লিয়াকত বলেন, গ্রেপ্তার কোনো সমাধান না। সবকিছু তো ঠিকই ছিল। রাসেল ভাই বলেছিল, সবার মাল, টাকা ধীরে ধীরে দিয়ে দিবেন। আমরা তো মেনেও নিয়েছি। এখন যে তাকে গ্রেপ্তার করা হলো, তাহলে আমাদের টাকা দেবে কে?

এদিকে বৃহস্পতিবার বিকালে প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান শামীমা নাসরিন ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ রাসেলকে মোহাম্মদপুরের বাসা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। ৪০৩ কোটি টাকা দেনা থাকা ইভ্যালির দুই কর্ণধারকে নেওয়া হয় র‌্যাব সদরদপ্তরে। পরে শুক্রবার বেলা ১টার দিকে তাদেরকে প্রতারণার মামলায় গুলশান থানায় হস্তান্তর করে র‌্যাব।

শুক্রবার সকালে র‍্যাব জানিয়েছে, ইভ্যালি হাজার কোটি টাকা দেনা রয়েছে এবং প্রতিষ্ঠানটির শেয়ার বাজারে ঢোকার পরিকল্পনা ছিল।

এর আগে বৃহস্পতিবার ভোরে আরিফ বাকের নামে একজন ভুক্তভোগী ইভ্যালির চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালকসহ অজ্ঞাত কর্মকর্তাদের নামে গুলশান থানায় মামলা করেন।

(ঢাকাটাইমস/১৭সেপ্টেম্বর/কারই/কেআর)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজধানী বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :