কৃষকদের কাছে ক্ষমা চাইলেন কঙ্গনা

বিনোদন ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ১১:৪৪

ভারতে কৃষক আন্দোলনের বিরোধীতা করে এবং নানা মন্তব্য করে কয়েক মাস ধরেই তুমুল বিতর্কে বলিউড অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াত। সম্প্রতি আবার মোদি সরকার কৃষি আইন বাতিলের পর শিখ সম্প্রদায়ের কৃষকদের সঙ্গে খালিস্তানি সন্ত্রাসবাদীদের তুলনা করে বিতর্ক আরও উস্কে দেন নায়িকা।

ওই মন্তব্যের জেরে কঙ্গনার নামে এফআইআর দায়ের গয়। অভিনেত্রী সোশ্যাল মিডিয়ায় খুনের হুমকিও পান। শুক্রবার তো চন্ডীগড় যাওয়ার পথে কঙ্গনার কনভয় ঘিরে বিক্ষোভ শুরু করে শ্রী কিরাতপুর সাহিবের অন্তর্গত বুঙ্গা সাহিবে অঞ্চলের কৃষকেরা। অভিনেত্রীকে ক্ষমা চাইতে বলেন তারা।

অবশেষে কৃষকদের বিক্ষোভের মুখে নিজের মন্তব্যের জন্য ক্ষমা চান কঙ্গনা রানাওয়াত। ক্ষমা চাওয়ার পরই বিক্ষোভ তুলে নেন আন্দোলনকারীরা। এরপর নিজের গন্তব্য চন্ডীগড়ে রওনা দেন তিনি।

কৃষি আইন প্রত্যাহারের পর গত ২০ নভেম্বর ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে কঙ্গনা শিখ ধর্মাবলম্বীদের খালিস্তানি সন্ত্রাসবাদী বলে আখ্যা দেন। তিনি লেখেন, প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী তাদের নিজের জুতার ভেতর থাকা মশার মতো পিষে মেরেছিলেন। কঙ্গনার এহেন মন্তব্যেই চটেছিলেন শিখ সম্প্রদায়ের মানুষেরা। মুম্বাইয়ের খার পুলিশ স্টেশনে ২৯৫এ ধারায় কঙ্গনার বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছিলেন অমরজিৎ সিং সাঁধু নামের এক ব্যক্তি।

অভিনেতার নামে এফআইআর দায়ের করে মুম্বাই পুলিশ। এরপর খুনের হুমকি পাওয়ার পর সেই ব্যক্তির বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেন কঙ্গনাও। সোশ্যাল মিডিয়ায় তিনি ফের লেখেন, ‘মুম্বাইয়ের শহীদদের স্মরণে লিখেছিলাম যে বিশ্বাসঘাতকদের কখনও ক্ষমা করা উচিত নয়। এই সমস্ত ঘটনায় দেশের অভ্যন্তরের বিশ্বাসঘাতকদেরও হাত থাকে।’

অভিনেত্রী লেখেন, ‘এরা অর্থের লোভে, পদের লোভে, ক্ষমতার লোভে ভারতকে কলঙ্কিত করে। এই ধরনের বিঘ্নকারী শক্তি প্রায়ই আমাকে হুমকি দিচ্ছে। ভাতিন্ডার একজন আমাকে খুনের হুমকি দিয়েছেন। আমি এই সব হুমকিতে ভয় পাই না। আমি ষড়ষন্ত্রকারীদের বিরুদ্ধে বলতেই থাকব।’

ঢাকাটাইমস/০৪ডিসেম্বর/এএইচ

সংবাদটি শেয়ার করুন

বিনোদন বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :