১৬ দিনব্যাপী বিজয়ের মহোৎসব উদযাপনে এফবিসিসিআই

অর্থনৈতিক প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ১৭:১১ | প্রকাশিত : ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ১৪:১১

বাংলাদেশ স্বাধীন না হলে, কোনো বাঙালি ব্যবসায়ী হতে পারতেন না, অর্থনীতির এমন অগ্রগতিও সম্ভব হতো না। তাই জাতির জনকের অবদান, মুক্তিযুদ্ধে লাখো শহীদের আত্বত্যাগকে শ্রদ্ধা জানিয়ে ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন হিসেবে বেসরকারি খাতের পক্ষ থেকে বিজয়ের ৫০ বছরে লাল সবুজের মহোৎসব উদযাপন করছে এফবিসিসিআই।

এফবিসিসিআই আয়োজিত ১৬ দিনব্যাপী “বিজয়ের ৫০ বছর: লাল সবুজের মহোৎসব” এর ৪র্থ দিনের অনুষ্ঠানে দেওয়া সভাপতির বক্তব্যে এসব কথা বলেন এফবিসিসিআই’র সিনিয়র সহ-সভাপতি মোস্তফা আজাদ চৌধুরী আজাদ বাবু।

রাজধানীর হাতিরঝিলের অ্যামফিথিয়েটারে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে শনিবার ছিল নজরুল উৎসব। অনুষ্ঠানে এফবিসিসিআই’র সিনিয়র সহ-সভাপতি বলেন জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের লেখা অসংখ্যা গান ও কবিতা মুক্তিযুদ্ধের কঠিন দিনগুলোতে মুক্তিযোদ্ধাতের অনুপ্রাণিত করেছে। তাঁর লেখায় দেশাত্ববোধে জাগ্রত হয়েছে সব ধর্ম-বর্ন ও পেশার বাংলাদেশি।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান দেশ স্বাধীনতার পরপরই কবি নজরুল ইসলামকে দেশে ফিরিয়ে এনেছিলেন এবং তাঁকে জাতীয় কবির মর্যাদায় ভুষিত করেন। উনসত্বরের গণঅভ্যুত্থান ও মুক্তিযুদ্ধে জাতীয় কবির সাহিত্যকর্মের প্রতি সম্মান জানিয়ে, স্বাধীনতার মহোৎসবে নজরুলের মতো কালজয়ী কবির প্রতি চতুর্থ দিনটি উৎসর্গ করা হয়েছে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সমাজ কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদ, এমপি। তিনি বলেন, বাঙ্গালীরা সবসময়েই শোষিত ছিলো। বঙ্গবন্ধু দেশ স্বাধীন না করলে, বাঙ্গালীরা কখনো শাসক হতে পারতো না। আর বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যোগ্য শাসনে এক সময়ের অপরিচিতি বাংলাদেশ এখন বিশ্বজুড়ে উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে পরিচিতি পেয়েছে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ, এমপি। তিনি জানান, কবি নজরুলের বিদ্রোহী কবিতার এবছরই শততম বছর। একই সঙ্গে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একশ’ বছর পূর্ণ হয়েছে। তাই এই মহোৎসবে নজরুল উৎসব খুবই তাৎপর্যপূর্ণ।

অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথির বক্তব্যে এফবিসিসিআইর সাবেক সভাপতি কাজী আকরাম উদ্দীন আহমদ বলেন, চল্লিশ বছর আগে ওমরাহ করতে গিয়ে বিদেশে কটুক্তি শিকার হতেন বাংলাদেশিরা। কিন্তু এখন সেই দেশের মানুষরাই বাংলাদেশে বিনিয়োগ করতে, বাণিজ্য সম্প্রসারণ করতে আগ্রহী। বঙ্গবন্ধুর দেখানো পথে, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দৃঢ় নেতৃত্বে বিশ্বের রোল মডেলে পৌঁছেছে বাংলাদেশ।

এর আগে শুভেচ্ছা বক্তব্যে ঢাকা শহরকে সুন্দর ও পরিচ্ছন্ন রাখতে সবার প্রতি আহ্বান জানান ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম। অতিথিদের সংক্ষিপ্ত বক্তব্য শেষে, পরিবেশিত হয় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

১৬ দিনব্যাপী “বিজয়ের ৫০ বছর: লাল সবুজের মহোৎসব” এর ৫ম দিন রবিবার সন্ধ্যায় অনুষ্ঠিত হবে রবীন্দ্র উৎসব। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী মোহাম্মদ হাছান মাহমুদ, এমপি।

(ঢাকাটাইমস/৫ডিসেম্বর/এসকেএস)

সংবাদটি শেয়ার করুন

অর্থনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :